40th BCS Preliminary Question Full Solution

Content Protection by DMCA.com

কোভিড-১৯ এর জন্য দেশে ডাক্তার ডাক্তারের জরুরী প্রয়োজন দেখা দিয়েছে। তাই পিএসসি সিদ্ধান্ত নিয়েছে ৪২তম বিশেষ বিসিএসের মাধ্যমে ২০০০ নতুন ডাক্তার নিয়োগ দিবে।

আজ দেয়া হল 40th BCS Preliminary Question Full Solution ব্যাখ্যাসহ পূর্ণাঙ্গ সমাধান-

একজন প্রার্থী বিসিএস এর প্রস্তুতি নেয়ার সময় সবার আগে তার উচিত হচ্ছে, বিগত বিসিএস এর প্রশ্ন ভালো করে বুঝে তার সাথে সিলেবাস মিলিয়ে দেখা। প্রিলি পরীক্ষার সিস্টেম চালু হয়েছে ১০ম বিসিএস থেকে। প্রিলিতে ২৮ তম থেকে ন্যাগেটিভ মার্কিং চালু হয়েছে এবং ৩৫ তম থেকে সিলেবাস দেয়া হয়েছে। বিসিএস সিলেবাস ও নম্বর বণ্টন দেখতে এখানে ক্লিক করুন। আমাদের সাইটে ১০ম ‍শুরু করে সকল বিসিএস প্রশ্ন দেয়া হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজ থাকছে ৪০তম বিসিএস প্রিলিমিনারি টেস্ট প্রশ্নের পূর্ণাঙ্গ সমাধান।

পোস্টসংখ্যা
General Cadre: 465
Technical Cadre: 568
General Education cadre: 870
Assistant Teacher Trainer-33
Set – ১(সুরমা)

40th BCS Preliminary Question Full Solution: Bengali Language and Literature 35

০১. বাক্যের ক্রিয়ায় সাথে অন্যান্য পদের যে সম্পর্ক তাকে কী বলে?

(ক) বিভক্তি
(খ) কারক
(গ) প্রত্যয়
(ঘ) অনুসর্গ

উত্তর: (খ) কারক

ব্যাখ্যা: কৃ + নক = কারক। বাক্যের ক্রিয়ার সাথে অন্যান্য পদের যে সম্পর্ক তাকে কারক বলে।

০২. ‘গীর্জা’ কোন ভাষার অন্তর্গত শব্দ?

(ক) ফারসী
(খ) পর্তুগীজ
(গ) ওলন্দাজ
(ঘ) পাঞ্জাবী

উত্তর: (খ) পর্তুগীজ

ব্যাখ্যা: পর্তুগিজ শব্দ- গীর্জা, পাদ্রী, বোবা, কেরানী, মিস্ত্রি, কামড়া, জানালা, আয়া, আলাপ, আচাড়, ইংরেজ, পিস্তল, তোয়ালে, গুদাম, চাবি, আলমিরা, গামলা, বালতি, আনারস, পেপে, পেয়ারা, তামাক, আলপিন, খোঁচা, নোনা।

০৩. কোন শব্দযুগল বিপরীতা্র্থক নয়?

(ক) ঐচ্ছিক-অনাবশ্যক
(খ) কুটিল-সরল
(গ) কম-বেশী
(ঘ) কদাচার-সদাচার

উত্তর: (ক) ঐচ্ছিক-অনাবশ্যক

ব্যাখ্যা: ঐচ্চিক-অনাবশ্যিক (সমার্থক শব্দ)।

০৪. দ্বারা, দিয়া, কর্তৃক-বাংলা ব্যাকরণ অনুযায়ী কোন বিভক্তি?

(ক) তৃতীয়া বিভক্তি
(খ) প্রথমা বিভক্তি
(গ) দ্বিতীয়া বিভক্তি
(ঘ) শূন্য বিভক্তি

উত্তর: (ক) তৃতীয়া বিভক্তি

ব্যাখ্যা: বাংলা শব্দ বিভক্তি ৭ প্রকার-

বিভক্তির নামবিভক্তি
বিভক্তি প্রথমা বা শূণ্য বিভক্তি০, অ
দ্বিতীয়া বিভক্তিকে, রে
 তৃতীয়া বিভক্তিদ্বারা, দিয়া (দিয়ে), কর্তৃক
চতুর্থী বিভক্তিকে, রে
পঞ্চমী বিভক্তি হইতে (হতে), থেকে, চেয়ে
ষষ্ঠী বিভক্তির, এর
সপ্তমী বিভক্তিএ, য়, তে

 

০৫. ‘অভিরাম’ শব্দের অর্থ কী?

(ক) বিরামহীন
(খ) বালিশ
(গ) চলন
(ঘ) সুন্দর

উত্তর: (ঘ) সুন্দর

ব্যাখ্যা: অভিরাম- [বিশেষণ পদ] সুন্দর, আনন্দদায়ক। [অভি+রম্‌+অ]। অভিরাম (adjective) Beautiful; pretty; handsome; pleasing.

40th BCS Preliminary Question Full Solution

০৬. শরতের শিশির-বাগধারা শব্দটির অর্থ কী?

(ক) সুসময়ের বন্ধু
(খ) সুসময়ের সঞ্চয়
(গ) শরতের শোভা
(ঘ) শরতের শিউলি ফুল

উত্তর: (ক) সুসময়ের বন্ধু

ব্যাখ্যা: “শরতের শিশির” বাগধারাটির অর্থ সুসময়ের বন্ধু, ক্ষণস্থায়ী। সুসময়ের বন্ধুরা সাধারণত ক্ষণস্থায়ী হয়ে থাকে দুধের মাছি বাগধারার অর্থও সুসময়ের বন্ধু।

০৭. শিব রাত্রির সলতে-বাগধারাটির অর্থ কী?

(ক) শিবরাত্রির আলো
(খ) একমাত্র সঞ্চয়
(গ) একমাত্র সন্তান
(ঘ) শিবরাত্রির গুরুত্ব

উত্তর: (গ) একমাত্র সন্তান

ব্যাখ্যা: শিব রাত্রির সলতে বলতে বুঝায় পিতা মাতার এক মাত্র জীবিত সন্তান/এক মাত্র সন্তান/এক মাত্র অবলম্বন/একমাত্র বংশধর।

০৮. “প্রােষিতভর্তৃকা”- শব্দটির অর্থ কী?

(ক) ভৎসনাপ্রাপ্ত তরুণী
(খ) যে নারীর স্বামী বিদেশে অবস্থান করে
(গ) ভূমিতে প্রােথিত তরুমূল
(ঘ) যে বিবাহিতা নারী পিত্রালয়ে অবস্থান করে

উত্তর: (খ) যে নারীর স্বামী বিদেশে অবস্থান করে

ব্যাখ্যা: ভর্ৎসনাপ্রাপ্ত তরুণী/নারী- ভর্ৎসিতা; যে নারীর স্বামী বিদেশে অবস্থান করে- প্রোষিতভর্তৃকা; যে পুরুষের স্ত্রী বিদেশে থাকে- প্রোষিতপত্নীক/ প্রোষিতভার্য; বিবাহিতা/অবিবাহিতা নারী পিত্রালয়ে অবস্থান করে- চিরন্ট।

০৯. বাংলা কৃৎ-প্রত্যয় সাধিত শব্দ কোনটি?

(ক) কারক
(খ) লিখিত
(গ) বেদনা
(ঘ) খেলনা

উত্তর: (ঘ) খেলনা

ব্যাখ্যা: কৃদন্ত পদ: কৃৎ প্রত্যয় সাধিত পদটিকে বলা হয় কৃদন্ত পদ। অর্থাৎ যে নাম পদ (বিশেষ্য বা বিশেষণ পদ) ক্রিয়ামূল বা ধাতুর সঙ্গে কৃৎ প্রত্যয় যোগ হয়ে গঠিত, তাকে কৃদন্ত পদ বলে। সহজ ভাষায় বলতে গেলে, ক্রিয়ামূল বা ধাতু থেকে গঠিত বিশেষ্য বা বিশেষণ পদকেই কৃদন্ত পদ বলে। যেমন, উপরের পড়ুয়া, নাচুনে, জিতা। বাংলা ভাষায় ব্যবহৃত কৃৎ প্রত্যয় ২ প্রকার- বাংলা কৃৎ প্রত্যয় ও সংস্কৃত কৃৎ প্রত্যয়। না (বাংলা কৃৎ প্রত্যয়): বিশেষ্য গঠনে ব্যবহৃত হয়। √কাঁদ+না = কাঁদনা ˃ কান্না √রাঁধ+না = রাঁধনা ˃ রান্না √ঝর+না = ঝরনা

১০. ‘Attested’-এর বাংলা পরিভাষা কোনটি?

(ক) সত্যায়িত
(খ) প্রত্যয়িত
(গ) সত্যায়ন
(ঘ) সংলগ্ন/সংলাপ

উত্তর: (খ) প্রত্যয়িত

ব্যাখ্যা: Attested এর বহুল ব্যবহৃত বাংলা পারিভাষিক শব্দ হচ্ছে ‘সত্যায়িত’। সূত্র হিসেবে বাংলা একাডেমী English to Bengali dictionary উল্লেখ করা যেতে পারে। ড. শাহজান মনিরের বাংলা ব্যাকরণে attestation শব্দটির বাংলা দেয়া হয়েছে ‘সত্যায়ন’।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১১. কোনটি শুদ্ধ বানান?

(ক) প্রজ্বল
(খ) প্রোজ্জল
(গ) প্রোজ্বল
(ঘ) প্রোজ্জ্বল

উত্তর: (ঘ) প্রোজ্জ্বল

ব্যাখ্যা: কিছূ শুদ্ধ বানান: বয়োজ্যেষ্ঠ বাল্মীকি বিদুষী বিভীষিকা বুদ্ধিজীবী বৈয়াকরণ পৈতৃক প্রণয়ন প্রতিযোগিতা প্রতিদ্বন্দ্বিতা প্রাণিবিদ্যা প্রোজ্জ্বল/প্রজ্জ্বলন ফটোস্ট্যাট বহিষ্কার, ব্যর্থ ব্যতীত।

১২. ‘জোছনা’ কোন শ্রেণীর শব্দ?

(ক) যৌগিক
(খ) তৎসম
(গ) দেশী
(ঘ) অর্ধ-তৎসম

উত্তর: (ঘ) অর্ধ-তৎসম

ব্যাখ্যা: অর্ধ-তৎসম শব্দ: যে-সব সংস্কৃত শব্দ কিছুটা পরিবর্তিত হয়ে বাংলা ভাষায় গৃহীত হয়েছে সেগুলোকে বলা হয় অর্ধ-তৎসম শব্দ। যেমনঃ জ্যোৎস্না>জ্যোছনা, শ্রাদ্ধ >ছেরাদ্দ, গৃহিণী>গিন্নী, বৈষ্ণব>বোষ্টম, কুৎসিত >কুচ্ছিত।

১৩. “জিজীবিষা’ শব্দটি দিয়ে বােঝায়–

(ক) জয়ের ইচ্ছা
(খ) হত্যার ইচ্ছা
(গ) বেঁচে থাকার ইচ্ছা
(ঘ) শােনার ইচ্ছা

উত্তর: (গ) বেঁচে থাকার ইচ্ছা

ব্যাখ্যা: জিজীবিষা- বেঁচে থাকার ইচ্ছা। জিগীষা- জয়ের ইচ্ছা (প্রবল জিগীষার আত্মপ্রকাশ)। জিঘাংসা- বধ করার বা হত্যার ইচ্ছা। জিঘাংসু- হত্যা করতে চায় এমন; হত্যা করতে ইচ্ছুক।

১৪. “সর্বাঙ্গীণ” শব্দের সঠিক প্রকৃতি-প্রত্যয়

(ক) সর্বঙ্গ+ঈন
(খ) সর্ব + অঙ্গীন
(গ) সর্ব + ঙ্গীন
(ঘ) সর্বাঙ্গ + ঈন

উত্তর: (ঘ) সর্বাঙ্গ + ঈন

ব্যাখ্যা: সর্বাঙ্গীণ’ শব্দের সঠিক প্রকৃতি প্রত্যয়- সর্বাঙ্গ+ঈন। সর্বাঙ্গীণ, সর্বাঙ্গীন/বিশেষণ পদ/সম্পূর্ণ, নিঁখুত; সর্বাঙ্গব্যাপী; পূর্ণাঙ্গ।

১৫. অন্যের রচনা থেকে চুরি করাকে বলা হয়–

(ক) বেতসবৃত্তি
(খ) পতঙ্গবৃত্তি
(গ) জলৌকাবৃত্তি
(ঘ) কুম্ভিলকবৃত্তি

উত্তর: (ঘ) কুম্ভিলকবৃত্তি

ব্যাখ্যা: কুম্ভিলকবৃত্তি ( Plagiarism ): অন্যের রচনা থেকে চুরি করাকে বলা হয় । পতঙ্গবৃত্তি- পতঙ্গের মতো আগুনে ঝাঁপ দেওয়া; বিপদ না বুঝে মনোহর কিন্তু বিপজ্জনক বস্তুর মোহে ধাবিত হয়ে আত্মনাশ করা। বেতসবৃত্তি- [বিশেষ্য পদ] বেতসলতার ন্যায় নমনশীলতা, বেতসলতা যেমন জলস্রোতে নত হয় সেরূপ অল্পেই নতিস্বীকার।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১৬. উর্ণনাভ’—শব্দটি দিয়ে বুঝায়–

(ক) টিকটিকি
(খ) তেলেপােকা
(গ) উইপােকা
(ঘ) মাকড়সা

উত্তর: (ঘ) মাকড়সা

ব্যাখ্যা: ঊর্ণনাভ:- [বিশেষ্য পদ]-সংস্কৃত শব্দ -এর অর্থ মাকড়সা।

১৭. চর্যাপদে কোন ধর্মমতের কথা আছে?

(ক) খ্রীষ্টধর্ম
(খ) প্যাগনিজম
(গ) জৈনধর্ম
(ঘ) বৌদ্ধধর্ম

উত্তর: (ঘ) বৌদ্ধধর্ম

ব্যাখ্যা: ১৯০৭ সালে হরপ্রসাদ শাস্ত্রী আবিষ্কৃত “চর্যাপদ” হল বৌদ্ধ সহজিয়া পন্থীদের দেহ সাধনার বই। চর্যাপদের ধর্মমত নিয়ে প্রথম আলোচনা করেন ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ ১৯২৭ সালে। বৌদ্ধ ধর্মমতে- শূন্যতা + করূণা= বোধিসত্ত্বলাভ ইহ জগতের সবকিছুই মূল্যহীন এই উপলব্ধি হচ্ছে- শূন্যতা। আর বস্তু জগতের লোভ লালসা থেকে মুক্তির আকাঙ্ক্ষাকে বলে – করূণা। এই দুয়ের সমন্বয়ে সাধনার চরম স্তরে পৌঁছানো যায়। অর্থাৎ বোধিসত্ত্ব লাভ হয়। ১ সংখ্যক চর্যায় লুইপা লিখেছেন, “কাআ তরুবর পঞ্চ বি ডাল চঞ্চল চিএ পইঠা কাল।।” অর্থাৎ দেহ হল তরুর মত পাঁচটা যার ডাল চঞ্চল চিত্তে প্রবেশ করে কাল। চর্যাপদে দেহ সাধনার কথা লেখা হয়েছে গূঢ় রহস্যপূর্ণ ভাষায়- যা সাধারণ মানুষের পক্ষে বোঝা প্রায় অসম্ভব।

১৮. উল্লিখিতদের মধ্যে কে প্রাচীন যুগের কবি নন?

(ক) কাহ্ণপাদ
(খ) লুইপাদ
(গ) শান্তিপাদ
(ঘ) রমনীপাদ

উত্তর: (ঘ) রমনীপাদ

ব্যাখ্যা: কাহ্নপাদ বা কাহ্ন পা বা কৃষ্ণপাদ বা কৃষ্ণাচার্য্য চুরাশিজন বৌদ্ধ মহাসিদ্ধদের মধ্যে একজন ছিলেন। তিনি চর্যাপদের তেরোটি পদ রচনা করেন। তবে কাহ্নপা রচিত ২৪তম পদটি পাওয়া যায়নি। চর্যাপদে শান্তি পার একটি পদ গৃহীত হয়েছে। শান্তি পা বিক্রমশিলা বিহারের দ্বারপণ্ডিত ছিলেন। দীপঙ্কর শ্রীজ্ঞান অতীশ তার শিষ্য। এগার শতকের প্রথমে তিনি জীবিত ছিলেন। তার চর্যাপদের ভাষা প্রাচীন মৈথিলি। শান্তি পা রত্নাকর শান্তির সংক্ষিপ্ত নাম। চর্যাপদের প্রথম এবং ঊনত্রিশতম পদ লুই পার রচনা ।

১৯. উল্লিখিত কোন রচনাটি পুঁথি সাহিত্যের অন্তর্গত নয়?

(ক) ময়মনসিংহ গীতিকা
(খ) ইউসুফ-জুলেখা
(গ) পদ্মাবতী
(ঘ) লাইলী মজনু

উত্তর: (ক) ময়মনসিংহ গীতিকা

ব্যাখ্যা: ১৯১৬ সালে ময়মনসিংহের কবি চন্দ্রকুমার দে প্রথম সেই এলাকার প্রচলিত পালাগান বা গাথাগুলি সংগ্রহ করেছিলেন। আচার্য দীনেশচন্দ্র সেনের উত্সাহে তা পরে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকাশিত হয়। এই সমস্ত পালা ময়মনসিংহ গীতিকা নামেই পরিচিতি লাভ করে। এটি লোকসাহিত্যের অন্তর্ভুক্ত।

২০. জীবনীকাব্য রচনার জন্য বিখ্যাত:

(ক) ফকির গরীবুন্যাহ
(খ) নরহরি চক্রবর্তী
(গ) বিপ্রদাস পিপিলাই
(ঘ) বৃন্দাবন দাস

উত্তর: (ঘ) বৃন্দাবন দাস

ব্যাখ্যা: বৃন্দাবন দাস একজন মধ্যযুগীয় এবং পদাবলী সাহিত্যের বিখ্যাত কবি ছিলেন। বর্ধমানের কাছে দেনুর গ্রামে ১৬ শতকের শুরুতে জন্ম। তাঁর রচিত শ্রীচৈত্যন্যদেবের জীবনী চৈত্যন্যভাগবত সবচেয়ে পুরোনো যা বৈষ্ণব সমাজে বেদব্যাস হিসাবে বিখ্যাত। তাঁর রচিত গোপিকামোহন কাব্যও বৈষ্ণব সমাজের আদরের বস্তু। তিনি কৃষ্ণকর্ণামৃতটীকা, নিত্যানন্দযুগলাষ্টক, রসকল্পসারস্তব, রামানুজগুরু-পরম্পরা প্রভৃতি কয়েকটি সংস্কৃত কাব্য রচনা করে যশ লাভ করেন।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

২১. বৈষ্ণব পদাবলির সঙ্গে কোন ভাষা সম্পর্কিত?

(ক) সন্ধ্যাভাষা
(খ) অধিভাষা
(গ) ব্রজবুলি
(ঘ) সংস্কৃত ভাষা

উত্তর: (গ) ব্রজবুলি

ব্যাখ্যা: ব্রজবুলি মধ্যযুগীয় বাংলা সাহিত্যের দ্বিতীয় কাব্যভাষা বা উপভাষা। ব্রজবুলি মূলত এক ধরনের কৃত্রিম মিশ্রভাষা। মৈথিলি ও বাংলার মিশ্রিত রূপ হলো ব্রজবুলি ভাষা। মিথিলার কবি বিদ্যাপতি (আনু. ১৩৭৪-১৪৬০) এর উদ্ভাবক। তার পদের ভাব ও ভাষার অনুসরণে বাংলা, উড়িষ্যা ও আসামে পঞ্চদশ শতাব্দীর শেষ ভাগে ব্রজবুলি ভাষার সৃষ্টি হয়।

২২. বাংলা আধুনিক উপন্যাস-এর প্রবর্তক ছিলেন–

(ক) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
(খ) প্যারীচাঁদ মিত্র
(গ) ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর
(ঘ) বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

উত্তর: (ঘ) বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

ব্যাখ্যা: বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় (২৬ জুন ১৮৩৮ – ৮ এপ্রিল ১৮৯৪) ছিলেন উনিশ শতকের বিশিষ্ট বাঙালি ঔপন্যাসিক। বাংলা গদ্য ও উপন্যাসের বিকাশে তার অসীম অবদানের জন্যে তিনি বাংলা সাহিত্যের ইতিহাসে অমরত্ব লাভ করেছেন। তাকে সাধারণত প্রথম আধুনিক বাংলা ঔপন্যাসিক হিসেবে গণ্য করা হয়। তিনি বাংলা ভাষার আদি সাহিত্যপত্র বঙ্গদর্শনের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ছিলেন। তিনি ছদ্মনাম হিসেবে কমলাকান্ত নামটি বেছে নিয়েছিলেন। তাকে বাংলা সাহিত্যের সাহিত্য সম্রাট বলা হয়। বঙ্কিমচন্দ্র রচিত আনন্দমঠ (১৮৮২) উপন্যাসের কবিতা বন্দে মাতরম ১৯৩৭ সালে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস কর্তৃক ভারতের জাতীয় স্তোত্র হিসেবে স্বীকৃতি পায়।

২৩. “কিন্তু আরম্ভের পূর্বেও আরম্ভ আছে। সন্ধ্যা বেলায় দীপ জ্বালার আগে। সকাল বেলায় সলতে পাকানাে” –বাক্যদ্বয় কোন রচনা থেকে উদ্ধৃত?

(ক) নৌকাডুবি
(খ) চোখের বালি
(গ) যােগাযােগ।
(ঘ) শেষের কবিতা

উত্তর: (গ) যােগাযােগ

ব্যাখ্যা: যোগাযোগ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত একটি সামাজিক উপন্যাস। এটি ১৯২৯ সালে (আষাঢ়, ১৩৩৬ বঙ্গাব্দ) প্রকাশিত হয়। এটি প্রথমে ১৩৩৪ বঙ্গাব্দের আশ্বিন মাস থেকে ১৩৩৫ বঙ্গাব্দের চৈত্র মাস পর্যন্ত বিচিত্রা মাসিকপত্রে ধারাবাহিকভাবে প্রকাশিত হয়। প্রথম দুই সংখ্যায় এই উপন্যাসের শিরোনাম ছিল তিনপুরুষ। ১৩৩৪ বঙ্গাব্দের অগ্রহায়ণ সংখ্যায় রবীন্দ্রনাথ এই উপন্যাসের শিরোনাম পরিবর্তন করে নতুন শিরোনাম দেন যোগাযোগ।

২৪. মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক উপন্যাস কোনটি?

(ক) একটি কালাে মেয়ের কথা
(খ) তেইশ নম্বর তৈলচিত্র
(গ) আয়নামতির পালা
(ঘ) ইছামতী

উত্তর: (ক) একটি কালাে মেয়ের কথা

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে লিখিত প্রথম উপন্যাস একটি কালো মেয়ের কথা রচনা করেছিলেন শ্রেষ্ঠ কথাশিল্পী তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যয়। নির্যাতিতা ও সন্তানহারা কালো মেয়ে নাজমা ১৯৭১-এর বাংলাদেশের প্রতিরূপক হয়ে উঠেছে উপন্যাসে। তবে, উপন্যাসটিতে ব্যক্তিগত কথকতা ছাপিয়ে বড়ো হয়ে উঠেছে পূর্ব বাংলার সমাজ-রাজনীতি, গণহত্যা ও বাঙালির মহান মুক্তিযুদ্ধ।

২৫. কালাে বরফ’ উপন্যাসটির বিষয়:

(ক) তেভাগা আন্দোলন
(খ) ভাষা আন্দোলন
(গ) মুক্তিযুদ্ধ
(ঘ) দেশভাগ

উত্তর: (ঘ) দেশভাগ

ব্যাখ্যা:  কথাসাহিত্যিক মাহমুদুল হক রচিত ‘কালো বরফ’ উপন্যাসে দেশভাগের পটভূমি ব্যাপকভাবে উঠে এসেছে আর উঠে এসেছে শেকড় হারাবার বেদনায় বিমর্ষ কিছু চরিত্র। শৈশব-কৈশোর তাড়িত আব্দুল খালেক নামে এক ব্যক্তির স্বাতন্ত্র্য সত্ত্বা উন্মোচিত হয়েছে এ উপন্যাসে। হিন্দু-মুসলমানের বিরোধ-দাঙ্গা দ্বেষ-ক্ষোভ এবং মিলন বর্নিত হয়েছে। শৈশবের স্মৃতিবিজড়িত দেশ বা মাটি— যে দেশ বা মাটি খালেকের জীবনের সবচেয়ে বড় অধ্যায়। মফস্বলের কলেজ শিক্ষক প্রথাবিচ্ছিন্ন মানুষ আবদুল খালেক এবং তার অর্ন্তজগতের সম্রাট ‘পোকা’, এই নিয়েই ‘কালো বরফ’। ‘পোকা’ আবদুল খালেকের শৈশব। আবদুল খালেক একজন বিচ্ছিন্ন এবং নিঃসঙ্গ মানুষ, যে নিজেই নিজেকে দূরে সরিয়ে রেখেছে, বলা যায় খানিকটা পিছিয়ে পড়া দলের মানুষ। এই দলছুট মানুষ আবদুল খালেকের শৈশব-কৈশোর ও বর্তমান এবং উভয়ের সমন্বয়ে চিত্রায়িত কতকগুলো স্মৃতি-বিস্মৃতির দৃশ্যপটই ‘কালো বরফ’।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

২৬. ঢাকা প্রকাশ সাপ্তাহিক পত্রিকাটির সম্পাদক কে?

(ক) কৃষ্ণচন্দ্র মজুমদার
(খ) রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়
(গ) শামসুর রাহমান
(ঘ) সিকান্দার আবু জাফর

উত্তর: (ক) কৃষ্ণচন্দ্র মজুমদার

ব্যাখ্যা: ঢাকা প্রকাশ ঢাকা থেকে প্রকাশিত প্রথম বাংলা সংবাদপত্র। এর প্রথম সংখ্যা প্রকাশিত হয় ১৮৬১ সালের ৭ মার্চ বাবুবাজারের ‘বাঙ্গালা যন্ত্র’ থেকে। পত্রিকার শিরোনামের নিচে একটি সংস্কৃত শ্লোকাংশ ‘সিদ্ধিঃ সাধ্যে সমামস্ত্ত’ (সাধ্য অনুযায়ী সিদ্ধিলাভ হোক) মুদ্রিত হতো। প্রতি সপ্তাহে গুরুবার অর্থাৎ বৃহস্পতিবার তা বের হতো। ডাকমাশুলসহ পত্রিকার বার্ষিক মূল্য ছিল ৫ টাকা। ঢাকা প্রকাশের প্রথম সম্পাদক ছিলেন কবি কৃষ্ণচন্দ্র মজুমদার।

২৭. ‘জীবনস্মৃতি’ কার রচনা?

(ক) ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর
(খ) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
(গ) বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়
(ঘ) রােকেয়া সাখাওয়াত হােসেন

উত্তর: (খ) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

ব্যাখ্যা: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত আত্মজীবনীমূলক প্রবন্ধ গ্রন্হ- জীবনস্মৃতি (১৯১২)। ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর রচিত আত্নজীবনীমূলক বর্ণনাধর্মী অসমাপ্ত রচনার নাম- আত্মচরিত।

২৮. দীনবন্ধু মিলের ‘নীলদর্পণ’ নাটকটি ইংরেজিতে অনুবাদ করেন কে?

(ক) প্যারীচাঁদ মিত্র
(খ) মাইকেল মধুসূদন দত্ত
(গ) প্রমথ চৌধুরী
(ঘ) দ্বিজেন্দ্রলাল রায়

উত্তর: (খ) মাইকেল মধুসূদন দত্ত

ব্যাখ্যা: নীলদর্পণ নাটকটি লিখেন দীনবন্ধু মিত্র। নাটকটি ১৮৬০ সালে ঢাকা থেকে প্রথম প্রকাশিত হয়। বাংলাদেশের মেহেরপুর অঞ্চলের নীলকরদের অত্যাচার ও নীলচাষীদের দুঃখ-কষ্ট নিয়ে রচিত হয়েছে। এই নাটকটি ইংরেজিতে অনুবাদ করেছেন মাইকেল মধুসূদন দত্ত।

২৯. “সকালে উঠিয়া আমি মনে মনে বলি, সারাদিন আমি যেন ভালাে হয়ে চলি”- চরণ দু’টির রচয়িতা কে?

(ক) চণ্ডীচরণ মুনশী
(খ) কাজী নজরুল ইসলাম
(গ) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
(ঘ) মদনমােহন তর্কালঙ্কার

উত্তর: (ঘ) মদনমােহন তর্কালঙ্কার

৩০. জসীম উদ্দীনের রচনা কোনটি?

(ক) যাদের দেখেছি
(খ) পথে-প্রবাসে
(গ) কাল নিরবধি
(ঘ) ভবিষ্যতের বাঙালী

উত্তর: (ক) যাদের দেখেছি

ব্যাখ্যা: জসীম উদ্দীনের আত্নকথা: যাদের দেখেছি (১৯৫১) ঠাকুর বাড়ির আঙ্গিনায় (১৯৬১) জীবন কথা (১৯৬৪) স্মৃতিপট (১৯৬৪) স্মরণের সরণী বাহি (১৯৭৮)।অন্যদিকে, পথে প্রবাসে– অন্নদাশঙ্কর রায়, কাল নিরবধি– আনিসুজ্জামান, ভবিষ্যতের বাঙালী- এস ওয়াজেদ আলী।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৩১. ‘কিন্তু মনুষ্য কখনো পাষাণ হয় না’– উক্তিটি কোন উপন্যাসের?

(ক) রবীন্দ্রনাথের ‘চোখের বালি
(খ) শরৎচন্দ্রের পথের দাবী’
(গ) শওকত ওসমানের ক্রীতদাসের হাসি
(ঘ) বঙ্কিমচন্দ্রের ‘রাজসিংহ’

উত্তর: (ঘ) বঙ্কিমচন্দ্রের ‘রাজসিংহ’

ব্যাখ্যা: রাজসিংহ ১৮৮২ ঐতিহাসিক উপন্যাস। প্রথম প্রকাশ বঙ্গদর্শন পত্রিকায় (চৈত্র, ১২৮৪ – ভাদ্র, ১২৮৫)। পত্রিকায় অসমাপ্ত উপন্যাসটি সমাপ্ত করে ১৮৮২ সালে ৮৩ পৃষ্ঠার প্রথম সংস্করণ প্রকাশিত হয়। দ্বিতীয় সংস্করণে পৃষ্ঠাসংখ্যা বেড়ে হয় ৯০। ১৮৯৩ খ্রিস্টাব্দে চতুর্থ সংস্করণে পৃষ্ঠাসংখ্যা হয় ৪৩৪।

৩২. ইয়ংবেঙ্গল গােষ্ঠীভুক্ত ছিলেন কে?

(ক) অক্ষয় কুমার দত্ত
(খ) এন্টনি ফিরঙ্গি
(গ) মাইকেল মধুসূদন দত্ত
(ঘ) কলম্বিসাসিংহ ঠাকুর

উত্তর: (গ) মাইকেল মধুসূদন দত্ত

ব্যাখ্যা: ইয়ং বেঙ্গল গোষ্ঠী ও হিন্দু কলেজ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ১৮১৭ খ্রিষ্টাব্দে হিন্দু কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়। ইয়ংবেঙ্গলের প্রতিষ্ঠাতা- হেনরি লুই ভিভিয়ান ডিরোজিও(হিন্দু কলেজের শিক্ষক) ১৮৩১ সালে ইয়ংবেঙ্গল প্রতিষ্ঠিত হয়।ডিরোজিওর শিষ্যরাই ইয়ংবেঙ্গল নামে পরিচিত,ইয়ংবেঙ্গলরা মূলত ইংরেজ ভাবধারাপুষ্ট বাঙালী যুবক।ইয়ংবেঙ্গলের আদর্শ- আস্তিকতা হোক আর নাস্তিকতা হোক, কোন জিনিসকে পূর্ব থেকে গ্রহণ না করা; জিজ্ঞাসা ও যুক্তি দিয়ে বিচার করা।তারা সাহিত্যে যুক্তিশীলতা ও মানবিকতাকে বড় করে ফুটিয়ে তুলেছেন। ডিরোজিওর প্রধান গ্রন্থ– ‘The Fakeer of Jungkeera’ হিন্দু কলেজের মেধাবী ছাত্র ও সাহিত্যিকরা হলেন– প্যারীচাদ মিত্র, দক্ষিণারঞ্জন মিত্র, কালিপ্রসাদ ঘোষ, হরচন্দ্র ঘোষ, মাধবচন্দ্র মল্লিক, রামতনু লাহিড়ী প্রমুখ।

৩৩. ‘বিদ্রোহী’ কবিতাটি কোন সনে প্রথম প্রকাশিত হয়?

(ক) ১৯২৩ সনে
(খ) ১৯২১ সনে
(গ) ১৯১৯ সনে
(ঘ) ১৯১৮ সনে

উত্তর: (খ) ১৯২১ সনে

ব্যাখ্যা: কলকাতার তালতলা লেনের ৩/৪ সি বাড়িটি বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের বিদ্রোহী কবিতার আঁতুড়ঘর। ১৯২১ সালে দ্বিতল এই বাড়িটিতে বসে কবি লিখেছিলেন রক্তে দোলা জাগানিয়া ‘বল বীর.. চীর উন্নত মম শির।’

৩৪. ‘আগুন পাখি’– উপন্যাসটির রচয়িতা কে?

(ক) রাহাত খান
(খ) হাসান আজিজুল হক
(গ) সেলিনা হােসেন
(ঘ) ইমদাদুল হক মিলন

উত্তর: (খ) হাসান আজিজুল হক

ব্যাখ্যা: হাসান আজিজুল হক (জন্ম: ২ ফেব্রুয়ারি, ১৯৩৯) একজন বাংলাদেশী ঔপন্যাসিক ও ছোট গল্পকার। তিনি বাংলা ভাষার অন্যতম প্রধান কথাসাহিত্যক হিসেবে পরিগণিত। ষাটের দশকে আবির্ভূত এই কথাসাহিত্যিক তার সুঠাম গদ্য এবং মর্মস্পর্শী বর্ণনাভঙ্গির জন্য প্রসিদ্ধ। জীবনসংগ্রামে লিপ্ত মানুষের কথকতা তার গল্প-উপন্যাসের প্রধানতম অনুষঙ্গ। রাঢ়বঙ্গ তার অনেক গল্পের পটভূমি। আগুনপাখি (২০০৬) হক রচিত শ্রেষ্ঠ উপন্যাস। তিনি বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেন ১৯৭০ খ্রিষ্টাব্দে। ১৯৯৯ খ্রিষ্টাব্দে বাংলাদেশ সরকার তাকে একুশে পদকে ও ২০১৯ সালে স্বাধীনতা পুরস্কারে ভূষিত করে। এই অসামান্য গদ্যশিল্পী তার সার্বজৈবনিক সাহিত্যচর্চার স্বীকৃতি স্বরূপ ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে “সাহিত্যরত্ন” উপাধি লাভ করেন।

৩৫. একুশে ফেব্রুয়ারীর বিখ্যাত গানটির সুরকার কে?

(ক) সুবীর সাহা
(খ) সুধীন দাস
(গ) আলতাফ মাহমুদ
(ঘ) আলতাফ মামুন

উত্তর: (গ) আলতাফ মাহমুদ

ব্যাখ্যা: ১. ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি।” এ গানের গীতিকার -আব্দুল গাফফার চৌধুরী। ২.’আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি।” এ গানের ১ম সুরকার- আব্দুল লতিফ। ৩. “আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি।” গানটির বর্তমান -আলতাফ মাহমুদ।

40th BCS Preliminary Question Full Solution: English Language and Literature 35

৩৬. Please write to me at the above address. The word ‘above in this sentence is a/an–

(ক) noun
(খ) adjective
(গ) pronoun
(ঘ) adverb

উত্তর: (খ) adjective

৩৭. In which sentence is the word ‘past’ used as a preposition?

(ক) Writing letters is a thing of the past.
(খ) I look back on the past without regret.
(গ) I called out to him as he ran past.
(ঘ) Tania was a wonderful singer, but she’s past.

উত্তর: (ঘ) Tania was a wonderful singer, but she’s past.

ব্যাখ্যা: Past can be used as a preposition (followed by a noun): past + NP.

৩৮. The word ‘sibling’ means

(ক) a brother
(খ) a sister
(গ) a brother or sister
(ঘ) an infant

উত্তর: (গ) a brother or sister

৩৯. Fill in the blank: As she was talking, he suddenly broke____, saying, ‘That’s a fie!”

(ক) off
(খ) in
(গ) down
(ঘ) into

উত্তর: (খ) in

ব্যাখ্যা: break in = to interrupt someone’s conversation.

৪০. Fill in the blank: You may go for a walk if you feel _____ it.

(ক) about
(খ) on
(গ) like
(ঘ) for

উত্তর: (গ) like

ব্যাখ্যা: Feel like = To have the urge or desire to do something.

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৪১. Identify the word which is spelt incorrectly

(ক) consciencious
(খ) perseverance
(গ) convalescence
(ঘ) maintenance

উত্তর: (ক) consciencious

ব্যাখ্যা: Consciencious > conscientious

৪২. “You look terrific in that dress!” The word ‘terrific’ in the above sentence means–

(ক) excellent
(খ) funny
(গ) very ugly
(ঘ) horrible

উত্তর: (ক) excellent

ব্যাখ্যা: এখানে terrific তার আভিধানিক অর্থের পরিবর্তে Figurative Language হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে। যা সম্পূর্ণ উল্টো অর্থ দিচ্ছে।

৪৩. Someone who is capricious is ______.

(ক) easily irritated
(খ) wise and willing to cooperate
(গ) exceedingly conceited and arrogant
(ঘ) known for sudden changes in attitude or behavior

উত্তর: (ঘ) known for sudden changes in attitude or behavior

ব্যাখ্যা: Someone who is capricious is known for sudden changes in attitude or behavior. Capricious = অস্হিরচিত্তের মানুষ

৪৪. Which one of the following Words is masculine?

(ক) mare
(খ) lad
(গ) pillow
(ঘ) pony

উত্তর: (খ) lad

ব্যাখ্যা: Lad (masculine) – Lass (feminine)

৪৫. A man whose wife has died is called a–

(ক) widow
(খ) widower
(গ) spinster
(ঘ) bachelor

উত্তর: (খ) widower

ব্যাখ্যা: A man whose wife has died is called a- widower. spinster- অবিবাহিত মহিলা; Bachelor- অবিবাহিত পুরুষ ।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৪৬. Which word is similar to appal?

(ক) deceive
(খ) confuse
(গ) dismay
(ঘ) solicit

উত্তর: (গ) dismay

ব্যাখ্যা: Appal- Dismay; হতাশ করা, মর্মাহত করা, আতঙ্কিত করা

৪৭. Which word means the opposite of dearth?

(ক) lack
(খ) abundance
(গ) poverty
(ঘ) shortage

উত্তর: (খ) abundance

ব্যাখ্যা: Dearth (অভাব/ আকাল)- Abundance (প্রাচুর্য);

৪৮. Identify the word which remains the same in its plural form?

(ক) aircraft
(খ) intention
(গ) mouse
(ঘ) thesis

উত্তর: (ক) aircraft

৪৯. Identify the determiner in the following sentence ‘I have no news for you.’

(ক) have
(খ) news
(গ) no
(ঘ) for

উত্তর: (গ) no

৫০. ‘A lost opportunity never returns. Here lost’ is-

(ক) gerund
(খ) verbal noun
(গ) gerundial infinitive
(ঘ) participle

উত্তর: (ঘ) participle

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৫১. The saying ‘enough is enough’ is used when you want

(ক) Something to continue
(খ) something to stop
(গ) something to continue until it’s enough
(ঘ) to tell instructions are clear

উত্তর: (খ) something to stop

৫২. ‘He ran with great speed.’ The underlined part of the sentence is a–

(ক) noun phrase
(খ) adverb phrase
(গ) adjective phrase
(ঘ) participle phrase

উত্তর: (খ) adverb phrase

৫৩. ‘We must not be late, else we will miss the train. This is a-

(ক) compound sentence
(খ) complex sentence
(গ) simple sentence
(ঘ) interrogative sentence

উত্তর: (ক) compound sentence

৫৪. Change the voice ‘Who is calling me’?

(ক) By whom am I called?
(খ) By whom I am called?
(গ) By whom am I being called?
(ঘ) Whom am I called by?

উত্তর: (গ) By whom am I being called?

ব্যাখ্যা: Passive: By whom+am+ Subject (I)+being + v3+ ?

৫৫. An extra message added at the end of a letter after it is signed is called–

(ক) corrigendum
(খ) postscript
(গ) NB
(ঘ) RSVP

উত্তর: (খ) postscript

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৫৬. ‘The Rape of the Lock by Alexander Pope is a/an

(ক) epic
(খ) ballad
(গ) mock-heroic poem
(ঘ) elegy

উত্তর: (গ) mock-heroic poem

৫৭. Which of the following is not an American poet?

(ক) Robert Frost
(খ) W. B. Yeats
(গ) Emily Dickinson
(ঘ) Langston Hughes.

উত্তর: (খ) W. B. Yeats

ব্যাখ্যা: William Butler Yeats (13 June 1865 – 28 January 1939) was an Irish poet and one of the foremost figures of 20th-century literature.

৫৮. William Shakespeare was born in–

(ক) 1616
(খ) 1664
(গ) 1564
(ঘ) 1493

উত্তর: (গ) 1564

৫৯. Tennyson’s ‘In Memoriam’ is an elegy on the death of

(ক) John Milton
(খ) John Keats
(গ) Arthur Henry Hallam
(ঘ) Sydney Smith

উত্তর: (গ) Arthur Henry Hallam

ব্যাখ্যা: Tennyson’s ‘In Memoriam’ is an elegy on the death of- Arthur Henry Hallam.n elegy মানে শোক কবিতা । প্রিয় ক্যামব্রিজ বন্ধুর মৃত্যুর শোকে কবিতাটি লিখেন।

৬০. ‘Sweet Helen’ make me immortal with a kiss. The sentence has been taken from the play

(ক) Romeo and Juliet
(খ) Caesar and Cleopatra
(গ) Doctor Faustus
(ঘ) Antony and Cleopatra

উত্তর: (গ) Doctor Faustus

ব্যাখ্যা: Doctor Faustus (Marlowe)

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৬১. “What’s in a name? That which we call a rose. By any other name would smell as sweet – Who said this?

(ক) Juliet
(খ) Romeo
(গ) Portia
(ঘ) Rosalind

উত্তর: (ক) Juliet

৬২. ‘Man’s love is of man’s life a thing apart, `Tis woman’s whole existence.’- This is taken from the poem of’

(ক) P. B. Shelley
(খ) Lord Byron
(গ) John Keats
(ঘ) Edinund Spense

উত্তর: (খ) Lord Byron

ব্যাখ্যা: Extracts from Don Juan: Donna Julia’s Letter By Lord Byron (1788–1824)[From Canto I.]

৬৩. Boi Who translated the ‘Rubaiyát of Omar Khayyam into English?

(ক) Thomas Carlyle
(খ) Edward Fitzgerald
(গ) D. G. Rossetti
(ঘ) William Thackeray

উত্তর: (খ) Edward Fitzgerald

৬৪. ‘Ulysses’ is a novel Written by –

(ক) Joseph Conrad
(খ) Thotias Hardy
(গ) Charles Dickens
(ঘ) James Joyce

উত্তর: (ঘ) James Joyce

৬৫. The short story ‘The Diamond Necklace’ was written by –

(ক) Guy de Maupassant
(খ) O Henry
(গ) Somerset Maugham
(ঘ) George Orwell

উত্তর: (ক) Guy de Maupassant

ব্যাখ্যা: The Necklace” or “The Diamond Necklace” (French: La Parure) is an 1884 short story by French writer Guy de Maupassant.

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৬৬. All the perfumes of Arabia will not sweeten this little hand.’ – Who said this?

(ক) Macbeth
(খ) Lady Macbeth
(গ) Lady Madcuff
(ঘ) Madcuff

উত্তর: (খ) Lady Macbeth

৬৭. ‘Where are the songs of Spring? Aye, where are they? Think not of them, thou hast thy music too.’ – Who wrote this?

(ক) William Wordsworth
(খ) Robert Browning
(গ) John Keats
(ঘ) Samuel Coleridge

উত্তর: (গ) John Keats

ব্যাখ্যা: In poem- To Autumn.

৬৮. Who is the central character of ‘Wuthering Heights’,

(ক) Mr. Earnishaw
(খ) Catheritae
(গ) Heathcliff
(ঘ) Hindley Earshaw

উত্তর: (গ) Heathcliff

ব্যাখ্যা: Wuthering Heights, Emily Brontë’s only novel, was published in 1847 under the pseudonym “Ellis Bell”.

৬৯. The old order changeth, yielding place to new.’- This line is extracted from Tennyson’s poem –

(ক) The Lotos-Eaters
(খ) Tithonus
(গ) Locksley Hall.
(ঘ) Morte d’ Arthur

উত্তর: (ঘ) Morte d’ Arthur

৭০. Who wrote the poem ‘The Good-Morrow?

(ক) George Herbert
(খ) Andrew Marvell
(গ) John Donne
(ঘ) Henry Vaughan

উত্তর: (গ) John Donne

40th BCS Preliminary Question Full Solution: Bengladesh Affairs 30

৭১. আলাউদ্দিন হোসেন শাহ কখন বৃহত্তর বাংলা শাসন করেন?

(ক) ১৪৯৮-১৫১৬ খৃষ্টাব্দ
(খ) ১৪৯৮-১৫১৭ খৃষ্টাব্দ
(গ) ১৪৯৮-১৫১৮ খৃষ্টাব্দ
(ঘ) ১৪৯৮-১৫১৯ খৃষ্টাব্দ

উত্তর: (ঘ) ১৪৯৮-১৫১৯ খৃষ্টাব্দ

ব্যাখ্যা: আলাউদ্দিন হোসেন শাহ (শাসনকাল ১৪৯৪-১৫১৯) ছিলেন মধ্যযুগে বাংলার স্বাধীন সুলতান। তিনি হোসেন শাহি রাজবংশের পত্তন করেন। হাবশি সুলতান শামসউদ্দিন মোজাফফর শাহ নিহত হওয়ার পর তিনি বাংলার সুলতান হন। ইতিপূর্বে তিনি মোজাফফর শাহের উজির ছিলেন।

৭২. প্রাচীন বাংলা মৌর্য শাসনের প্রতিষ্ঠাতা কে?

(ক) অশোক মৌর্য
(খ) চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য
(গ) সমুদ্র গুপ্ত
(ঘ) এর কোনটিই না

উত্তর: (খ) চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য

ব্যাখ্যা: মৌর্য সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠাতা- চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য। মৌর্য সাম্রাজ্যের রাজধানী- পাটলীপুত্র। প্রথম সর্বভারতীয় রাষ্ট্র/ ভারতীয় উপমহাদেশে প্রথম সাম্রাজ্য- মৌর্য সাম্রাজ্য। প্রথম সর্বভারতীয় রাষ্ট্র/ ভারতীয় উপমহাদেশে প্রথম সাম্রাজ্য স্থাপন করেন- চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য। সম্রাট অশোক- মৌর্য সম্রাট কলিঙ্গ যুদ্ধের ভয়াবহতা দেখে অশোক বৌদ্ধধর্ম গ্রহণ করেন। মৌর্যবংশের রাজাদের ক্রম (সকলের সময়েই বাংলা মৌর্য সাম্রাজ্যের অন্তর্গত ছিল, এমন নয়): চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য>বিন্দুসার>সম্রাট অশোক>দাশরথি>সম্প্রতি>সালিশুকা>দেববর্মণ> শতধনবান> বৃহদ্রথা।

৭৩. ইউরােপীয় বণিকদের মধ্যে বাংলায় প্রথম এসেছিলেন–

(ক) পর্তুগীজরা
(খ) ইংরেজরা
(গ) ওলন্দাজরা
(ঘ) ফরাসিরা

উত্তর: (ক) পর্তুগীজরা

ব্যাখ্যা: বাংলায় ইউরোপীয় বণিকদের মধ্যে প্রথম এসেছিল পর্তুগীজরা। ভাস্কো-দা-গামা ছিলেন পর্তুগীজ নাবিক।

৭৪. ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় জাতিসংঘে কোন দেশ বাংলাদেশের পক্ষে ‘ভেটো’ প্রদান করেছিল?

(ক) যুক্তরাজ্য
(খ) ফ্রান্স
(গ) যুক্তরাষ্ট্র
(ঘ) সােভিয়েত ইভনিয়ন

উত্তর: (ঘ) সােভিয়েত ইভনিয়ন

ব্যাখ্যা: ১৯৭১ সালের ৪ ডিসেম্বর জাতিসংঘে বাংলাদেশের পক্ষে ভেটো প্রদান করেছিল সোভিয়েত ইউনিয়ন। তখন জাতিসংঘে সোভিয়েত ইউনিয়নের স্থায়ী প্রতিনিধি ছিলেন ইয়াকফ মালিক।তিনিই প্রথম সোভিয়েত রাষ্ট্রীয় প্রতিনিধি, যিনি বিশ্বসভায় বাংলাদেশ নামটি উচ্চারণ করেন।

৭৫. বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ সংবিধানের কোন তফসিলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে?

(ক) চতুর্থ তফসিল
(খ) পঞ্চম তফসিল
(গ) ষষ্ঠ তফসিল
(ঘ) সপ্তম তফসিল

উত্তর: (খ) পঞ্চম তফসিল

ব্যাখ্যা: ১৯৭১ সালের বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ আজ সারা বিশ্বে অতীব তাৎপর্যপূর্ণ একটি ঐতিহাসিক প্রামাণিক দলিল হিসেবে পরিগণিত, যাকে ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে ‘মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ এর স্বীকৃতি দিয়েছে ইউনেস্কো। ১৯৯২ সালে ইউনেস্কো তার ‘মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ এর স্বীকৃতি প্রদান কর্মসূচি শুরু করে। আমাদের সংবিধানের ১৫০(২) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, বঙ্গবন্ধুর এই ভাষণ সংবিধানের পঞ্চম তফসিল দ্বারা আমাদের সংবিধানের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। উপরন্তু, সংবিধানের ৭(খ) অনুযায়ী, সংবিধানের ১৫০ অনুচ্ছেদকে সংবিধানের একটি অপরিবর্তনযোগ্য বিধান হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ফলে পঞ্চম তফসিলে উল্লিখিত বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণটি আমাদের সংবিধানের একটি অপরিহার্য ও অপরিবর্তনীয় অংশে পরিণত হয়েছে।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৭৬. বঙ্গভঙ্গকালে ভারতের ভাইসরয় কে ছিলেন?

(ক) লর্ড কার্জন
(খ) লর্ড ওয়াভেল
(গ) লর্ড মাউন্ট ব্যাটেন
(ঘ) লর্ড লিনলিথগো

উত্তর: (ক) লর্ড কার্জন

ব্যাখ্যা: ১৯০৫ সালের ১৬ই অক্টোবর ভারতের ভাইসরয় লর্ড কার্জনের আদেশে ১ম বঙ্গভঙ্গ সম্পন্ন হয়।কিন্তু ১৯১১ সালে, প্রচণ্ড গণআন্দোলনের ফলশ্রুতিতে বঙ্গভঙ্গ রহিত হয়। দ্বিতীয়বার বঙ্গভঙ্গ হয় ১৯৪৭ সালে। এ সময় ভাইসরয় ছিলেন লর্ড মাউন্টব্যাটেন।এর ফলে পূর্ববঙ্গ পাকিস্তানে এবং পশ্চিমবঙ্গ ভারতে যুক্ত হয়। এই পূর্ববঙ্গই পরবর্তীকালে পাকিস্তানের কাছ থেকে এক রক্তক্ষয়ী বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের মাধ্যমে ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা লাভ করে ও বাংলাদেশ নামক একটি নতুন রাষ্ট্রের সৃষ্টি করে।

৭৭. বাংলাদেশের কোন বনভূমি শালবৃক্ষের জন্য বিখ্যাত?

(ক) সিলেটের বনভুমি
(খ) পার্বত্য চট্টগ্রামের বনভূমি
(গ) ভাওয়াল ও মধুপুরের বনভূমি
(খ) খুলনা, বরিশাল ও পটুয়াখালীর বনভূমি

উত্তর: (গ) ভাওয়াল ও মধুপুরের বনভূমি

ব্যাখ্যা: ক্রান্তীয় পাতাঝরা বা পত্রপতনশীল অরণ্য: বাংলাদেশের ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, গাজীপুর, দিনাজপুর ও রংপুর জেলা পাতাঝরা অরণ্যের অঞ্চল। এ বনভূমিতে বছরের শীতকালে একবার গাছের পাতা সম্পূর্ণরূপে ঝরে যায়। শাল বা গজারি ছাড়াও এ অঞ্চলে কড়ই, বহেড়া, হিজল, শিরীষ, হরীতকী, কাঁঠাল, নিম ইত্যাদি গাছ জন্মে। এ বনভূমিতে শালগাছ প্রধান বৃক্ষ তাই এ বনকে শালবন হিসেবেও অভিহিত করা হয়। ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল ও গাজীপুরে এ বনভূমি মধূপুর ভাওয়াল বনভূমি নামে পরিচিত। দিনাজপুর অঞ্চলে এটিকে বরেন্দ্র অঞ্চলের বনভূমি বলা হয়।

৭৮. বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশী পাট উৎপন্ন হয় কোন জেলায়?

(ক) ফরিদপুর
(খ) রংপুর
(গ) জামালপুর
(ঘ) শেরপুর

উত্তর: (ক) ফরিদপুর

৭৯. বাংলাদেশে মােট আবাদযােগ্য জমির পরিমাণ –

(ক) ২ কোটি ৪০ লক্ষ একর
(খ) ২ কোটি ৫০ লক্ষ একর
(গ) ২ কোটি ২৫ লক্ষ একর
(ঘ) ২ কোটি ২১ লক্ষ একর

উত্তর: (ক) ২ কোটি ৪০ লক্ষ একর

ব্যাখ্যা: মোট আবাদযোগ্য জমি: ৮৫.৭৭ লক্ষ হেক্টর। মোট সেচকৃত জমি: ৭৪.৪৮ লক্ষ হেক্টর। আবাদযোগ্য পতিত: ২.২৩ লক্ষ হেক্টর। উৎস: http://www.brri.gov.bd

৮০. ‘গারাে’ উপজাতি কোন জেলায় বাস করে?

(ক) পার্বত্য চট্টগ্রাম
(খ) সিলেট
(গ) ময়মনসিংহ
(ঘ) টাঙ্গাইল

উত্তর: (গ) ময়মনসিংহ

ব্যাখ্যা: ভারতে মেঘালয় ছাড়াও আসামের কামরূপ, গোয়ালপাড়া ও কারবি আংলং জেলায় এবং বাংলাদেশের ময়মনসিংহ ছাড়াও টাঙ্গাইল, সিলেট, শেরপুর, জামালপুর, নেত্রকোনা, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার, ঢাকা ও গাজীপুর জেলায় গারোরা বাস করে। গারোরা ভাষা অনুযায়ী বোডো মঙ্গোলীয় ভাষাগোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৮১. ২০১৮ সালে বাংলাদেশের Per capita GDP (nominal) কত?

(ক) $১,৭৫০ মার্কিন ডলার
(খ) $১,৭৫১ মার্কিন ডলার
(গ) $১,৭৫২ মার্কিন ডলার
(ঘ) $১,৭৫৩ মার্কিন ডলার

উত্তর: (খ) $১,৭৫১ মার্কিন ডলার

ব্যাখ্যা: অর্থনৈতিক সমীক্ষা ২০১৯ অনুসারে,বাংলাদেশের মাথা পিছু আয় ( Per capita GDP)১,৯০৯ মার্কিন ডলার। বিদায়ী অর্থবছর (২০১৯-২০) শেষে দেশের মানুষের মাথাপিছু গড় আয় দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৬৪ ডলার।

৮২. বাংলাদেশে প্রথম আদমশুমারি অনুষ্ঠিত হয় –

(ক) ১৯৭২ সালে
(খ) ১৯৭৩ সালে
(গ) ১৯৭৪ সালে
(ঘ) ১৯৭৫ সালে

উত্তর: (গ) ১৯৭৪ সালে

ব্যাখ্যা: আদমশুমারি/জনশুমারি: কোনো দেশের জনসংখ্যার আনুষ্ঠানিক গণনাই আদমশুমারি বা জনশুমারি। স্বাধীনতা-পরবর্তী বাংলাদেশের প্রথম আদমশুমারি হয় ১৯৭৪ সালে। তখন চুড়ান্ত ফলাফলে জনসংখ্যা ছিল ৭ কোটি ৬৪ লাখ। সর্বশেষ ৫ম আদমশুমারি হয়েছে ২০১১ সালের ১৫-১৯ মার্চ। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো( BBS) প্রতি ১০ বছর পর পর আদমশুমারি পরিচালনা করে থাকে৷ ৬ষ্ঠ আদমশুমারি হবে ২০২১ সালে স্যাটেলাইট ইমেজের মাধ্যমে এ কাজে বাংলাদেশকে সহায়তা করবে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্হা নাসা৷ সূত্র- বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন ।

৮৩. Inclusive Development Index (IDI)-এর ভিত্তিতে দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশের স্থান কত?

(ক) প্রথম স্থান
(খ) দ্বিতীয় স্থান
(গ) তৃতীয় স্থান
(ঘ) চতুর্থ স্থান

উত্তর: (খ) দ্বিতীয় স্থান

ব্যাখ্যা: দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর Inclusive Development Index ( IDI) হলো—ভারত (3.09), পাকিস্তান (3.55), বাংলাদেশ(3.98), নেপাল (4.15) ও শ্রীলঙ্কা ( 3.79)।

৮৪. ২০১৮ সালে বাংলাদেশের মোট রপ্তানি আয় কত?

(ক) $ ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার
(খ) $ ৪১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার
(গ) ৪২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার
(ঘ) ১ ৪৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার

উত্তর: (খ) $ ৪১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার

৮৫. Alliance যে দেশ ভিত্তিক গার্মেন্টস ব্রান্ডগুলাের সংগঠন

(ক) যুক্তরাজ্যের
(খ) যুক্তরাষ্ট্রের
(গ) কানাডার
(ঘ) ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের

উত্তর: (খ) যুক্তরাষ্ট্রের

ব্যাখ্যা: অ্যালায়েন্স ফর বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স সেফটি, যেটি “অ্যালায়েন্স” নামেও পরিচিত, বিশ্বের ২৮টি বিখ্যাত ব্র্যান্ডের সমন্বয়ে গঠিত একটি পাঁচ বছর মেয়াদী সংস্থা, যারা বাংলাদেশের পোশাক কারখানার শ্রমিকদের শ্রম নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করবে, এটি রানা ধ্বসের প্লাজার পরে  ২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল  গঠিত হয়। সম্মিলিতভাবে, অ্যালায়েন্স সদস্যরা বিশেষত উত্তর আমেরিকার আমদানিকারক, যারা বাংলাদেশের ৭০০+ কারখানা থেকে তৈরি পোশাক আমদানি করে থাকে। ইউরোপীয় ক্রেতা জোট অ্যাকর্ড অন ফায়ার অ্যান্ড বিল্ডিং সেফটি ইন বাংলাদেশ, সংক্ষেপে যা অ্যাকর্ড ( Accord) নামে পরিচিত।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৮৬. ২০১৮ সালে বাংলাদেশের GDP-তে শিল্প খাতের অবদান কত শতাংশ ছিল?

(ক) ২৯.৬৬%
(খ) ৩০.৬৬%
(গ) ৩২.৬৬%
(ঘ) ৩৩.৬৬%

উত্তর: (ঘ) ৩৩.৬৬%

ব্যাখ্যা: ২০১৮ সালে বাংলাদেশের জি.ডি.পি- তে শিল্প খাতে অবদান ছিল ৩৩.৬৬ যা ২০১৯ সালে বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৩৫.০০।

৮৭. ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে রপ্তানি প্রণােদনা রাখা হয়েছে –

(ক) সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকা
(খ) সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা
(গ) সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা
(ঘ) সাড়ে ৬ হাজার কোটি টাকা

উত্তর: (ক) সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকা

ব্যাখ্যা: ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে রপ্তানি প্রনোদনা রাখা হয়েছে ৪ হাজার ৫০০ কোটি টাকা। ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে তা ৫ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে। সূত্র: অর্থ মন্ত্রণায়।

৮৮. বাংলাদেশে প্রথম ভ্যাট (VAT) চালু হয় –

(ক) ১৯৯১ সালে
(খ) ১৯৭৩ সালে
(গ) ১৯৮৬ সালে
(ঘ) ১৯৯৬ সালে

উত্তর: (ক) ১৯৯১ সালে

ব্যাখ্যা: মূল্য সংযোজন কর (ইংরেজি: Value Added Tax, বা VAT), সংক্ষেপে মূসক। বাংলাদেশে ১৯৯১ সালের ১ জুলাই প্রথম মূল্য সংযোজন কর ব্যবস্থা প্রবর্তন করা হয়। মূল্য সংযোজন কর একটি পরোক্ষ কর। এই উৎস থেকে বাংলাদেশ সরকারের সর্বোচ্চ রাজস্ব আয় হয়।

৮৯. সংবিধানের কোন সংশােধনীকে ‘first distortion of constitution’ বলে আখ্যায়িত করা হয়?

(ক) ৫ম সংশােধন
(খ) ৪র্থ সংশােধন
(গ) ৩য় সংশােধন
(ঘ) ২য় সংশােধন

উত্তর: (ক) ৫ম সংশােধন

ব্যাখ্যা: জাতীয় সংসদে পঞ্চম সংশোধনী আনা হয় ১৯৭৯ সালের ৬ এপ্রিল। পঞ্চম সংশোধনী সংবিধানে কোন বিধান সংশোধন করেনি। এ সংশোধনী ১৯৭৫-এর ১৫ আগস্টে সামরিক শাসন জারির পর থেকে ৬ এপ্রিল ১৯৭৯ পর্যন্ত সামরিক শাসনামলের সব আদেশ, ঘোষণা ও দণ্ডাদেশ বৈধ বলে অনুমোদন করে। সংবিধানের এই সংশোধনীকে First Distortion of Constitution বা সংবিধানের প্রথম বিকৃতি বলে আখ্যায়িত করা হয় ।

৯০. স্বাধীনতার ঘােষণাপত্র সংবিধানের কততম তফসিলে সংযােজন করা হয়েছে?

(ক) চতুর্থ
(খ) পঞ্চম
(গ) ষষ্ঠ
(ঘ) সপ্তম

উত্তর: (ঘ) সপ্তম

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশের সংবিধানের তফসিল সমূহ বাংলাদেশের সংবিধানের ৭টি তফসিল –
প্রথম তফসিল – অন্যান্য বিধান সত্ত্বেও কার্যকর আইন।
দ্বিতীয় তফসিল – রাষ্ট্রপতি নির্বাচন।
তৃতীয় তফসিল- শপথ ঘোষণা।
চতুর্থ তফসিল – ক্রান্তিকাল ও অস্থায়ী বিধানমালা।
পঞ্চম তফসিল–১৯৭১সালের ৭মার্চ তারিখে ঢাকার রেসকোর্সময়দানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দেওয়া ঐতিহাসিক ভাষণ।
ষষ্ঠ তফসিল -১৯৭১সালের ২৫মার্চ মধ্যরাত শেষে অর্থাৎ ২৬মার্চ প্রথম প্রহরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক স্বাধীনতার ঘোষণা।
সপ্তম তফসিল- ১০এপ্রিল ১৯৭১ এর মুজিব নগর সরকারের জারিকৃত স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৯১. গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান প্রবর্তিত হয় –

(ক) ১৭ এপ্রিল, ১৯৭১
(খ) ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭২
(গ) ৭ মার্চ, ১৯৭২
(ঘ) ২৬ মার্চ ১৯৭৩

উত্তর: (খ) ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭২

ব্যাখ্যা: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান ১৯৭২ সালের ৪ নভেম্বর গণপরিষদে গৃহীত হয় এবং একই বছর ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে বলবৎ হয়। সংবিধানে এগারোটি ভাগ ও চারটি সিডিউলে বিন্যস্ত মোট ১৫৩টি অনুচ্ছেদ রয়েছে।

৯২. সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে ‘সরকারি কর্ম কমিশন’ (PSC) গঠনের উল্লেখ আছে?

(ক) ১৩৭ নং অনুচ্ছেদে
(খ) ১৩৫ নং অনুচ্ছেদে
(গ) ১৩৮ নং অনুচ্ছেদে
(ঘ) ১৩৪ নং অনুচ্ছেদে

উত্তর: (ক) ১৩৭ নং অনুচ্ছেদে

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশ সংবিধানের নবম ভাগে রয়েছে বাংলাদেশের কর্মবিভাগ। এর ২য় পরিচ্ছেদে রয়েছে সরকারী কর্ম কমিশন প্রতিষ্ঠা যা সংবিধানের ১৩৭ অনুচ্ছেদ: “ আইনের দ্বারা বাংলাদেশের জন্য এক বা একাধিক সরকারী কর্ম কমিশন প্রতিষ্ঠার বিধান করা যাইবে এবং একজন সভাপতিকে ও আইনের দ্বারা যেরূপ নির্ধারিত হইবে, সেইরূপ অন্যান্য সদস্যকে লইয়া প্রত্যেক কমিশন গঠিত হইবে।”

৯৩. আওয়ামী লীগের ৬-দফা পেশ করা হয়েছিল-

(ক) ১৯৬৬ সালে
(খ) ১৯৬৭ সালে
(গ) ১৯৬৮ সালে
(ঘ) ১৯৬৯ সালে

উত্তর: (ক) ১৯৬৬ সালে

ব্যাখ্যা: ছয় দফা আন্দোলন বাংলাদেশের একটি ঐতিহাসিক ও গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক ঘটনা। ১৯৬৬ সালের ৫ ও ৬ ফেব্রুয়ারি লাহোরে অনুষ্ঠিত বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর এক সম্মেলনে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শেখ মুজিবুর রহমান পূর্ব পাকিস্তানের স্বায়ত্তশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে “৬ দফা দাবি” পেশ করেন। আনুষ্ঠানিকভাবে ছয় দফা উত্থাপন করা হয় লাহোর প্রস্তাবের সাথে মিল রেখে ২৩ মার্চ। ছয় দফা দাবির মূল উদ্দেশ্য- পাকিস্তান হবে একটি ফেডারেলরাষ্ট্র।

৯৪. বঙ্গবন্ধুসহ আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় মােট আসামী সংখ্যা ছিল কত জন?

(ক) ৩৪ জন
(খ) ৩৫ জন
(গ) ৩৬ জন
(ঘ) ৩২ জন

উত্তর: (খ) ৩৫ জন

ব্যাখ্যা: ৬ জানুয়ারি, ১৯৬৮ সালে ২ জন সি. এস. পি অফিসারসহ ২৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের গ্রেফতার সম্পর্কে সরকারী প্রেসনোটে উল্লেখ করা হয় যে, “ গত মাসে (অর্থাৎ ডিসেম্বর, ১৯৬৭) পূর্ব-পাকিস্তানে উদ্‌ঘাঁটিত জাতীয় স্বার্থবিরোধী এক ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকার অভিযোগে এঁদের গ্রেফতার করা হয়েছে। ” তৎকালীন পাকিস্তান সরকার এই ষড়যন্ত্রকে “আগরতলা ষড়যন্ত্র” নামে অভিহিত করে। এই একই অভিযোগে ১৭ জানুয়ারি, ১৯৬৮ সালে বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও স্বাধীন বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা শেখ মুজিবুর রহমানকেও গ্রেফতার করা হয়। ৩৫ জনকে আসামী করে সরকার পক্ষ মামলা দায়ের করে।উল্লেখ্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে এই মামলায় প্রধান আসামি করা হয় ।

৯৫. আইন ও সালিশ কেন্দ্র কি ধরণের সংস্থা?

(ক) অর্থনৈতিক
(খ) মানবাধিকার
(গ) ধর্মীয়
(ঘ) খেলাধুলা

উত্তর: (খ) মানবাধিকার

ব্যাখ্যা: আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) বাংলাদেশের একটি বেসরকারী সংস্থা যারা মানবাধিকার নিয়ে কাজ করার পাশাপাশি আইনগত সহায়তাও দিয়ে থাকে। এটি বাংলাদেশের প্রথম সারির একটি মানবাধিকার সংগঠন যারা বিশেষভাবে শ্রমিক ও নারী অধিকার নিয়ে কাজ করেন।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

৯৬. Almond ও Powel চাপ সৃষ্টিকারী গােষ্ঠীকে বিভক্ত করেছেন –

(ক) ৩ ভাগে
(খ) ৪ ভাগে
(গ) ৫ ভাগে
(ঘ) ৬ ভাগে

উত্তর: (খ) ৪ ভাগে

ব্যাখ্যা: যে গোষ্ঠীর সদস্যগণ একই মনোভাব ও স্বার্থের ভিত্তিতে গড়ে ওঠে এবং স্বার্থের ভিত্তিতেই তারা পরস্পরের সাথে আবদ্ধ হয় তাকে চাপসৃষ্টিকারী গোষ্ঠী বলে। এলমন্ড ও পাওয়েল চাপ সৃষ্টিকারী গোষ্ঠীকে ৪ ভাগে ভাগ করেছেন। যথাঃ
1. Institutional interest groups (army and business associations).
2. Non-associational interest groups.
3. Associational interest groups.
4. Anomic interest groups (terrorist organization, criminal gang).

৯৭. বাংলাদেশ জাতিসংঘের –

(ক) ১৪৬তম সদস্য
(খ) ১৩৬তম সদস্য
(গ) ১২৬তম সদস্য
(ঘ) ১১৬ তম সদস্য

উত্তর: (খ) ১৩৬তম সদস্য

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশ জাতিসংঘের ১৩৬ তম সদস্য।১৭ই সেপ্টেম্বর ১৯৭৪ সালে জাতিসংঘের ২৯ তম অধিবেশনে ৩টি দেশ জাতিসংঘের সদস্যপদ লাভ করে।এগুলো হচ্ছে- বাংলাদেশ, গ্রানাডা, গিনি বিসাউ। ইংরেজি বর্ণক্রমানুসারে নাম আসায় বাংলাদেশ ১৩৬ তম,গ্রানাডা ১৩৭ তম,গিনি বিসাউ ১৩৮ তম সদস্যপদ লাভ করে।

৯৮. বাংলাদেশে প্রথম জাতীয় সংসদের নির্বাচন হয় –

(ক) ৭ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭৩
(খ) ৭ জানুয়ারি, ১৯৭৩
(গ) ৭ মার্চ, ১৯৭৩
(ঘ) ৭ এপ্রিল, ১৯৭৩

উত্তর: (গ) ৭ মার্চ, ১৯৭৩

ব্যাখ্যা: প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচন স্বাধীন বাংলাদেশে ১৯৭৩ সালের ৭ মার্চ প্রথম সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল৷ সে সময় ৩০০ আসনে সরাসরি নির্বাচন হয়৷ আর সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংখ্যা ছিল ১৫টি৷ ঐ সংসদের প্রথম অধিবেশন বসেছিল ৭ এপ্রিল, তেজগাঁওয়ে অবস্থিত তখনকার জাতীয় সংসদ ভবনে৷ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ৩০০টি আসনের মধ্যে ২৯৩টিতে জয়লাভ করে৷ বঙ্গবন্ধু সে সময় ঢাকা-১২ আসন থেকে বিজয়ী হয়েছিলেন৷

৯৯. তৃণমূল পর্যায়ে স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করা হয়-

(ক) ১৩ হাজার ১২৫টি
(খ) ১৩ হাজার ১৩০টি
(গ) ১৩ হাজার ১৩৬টি
(ঘ) ১৩ হাজার ১৪৬টি

উত্তর: (গ) ১৩ হাজার ১৩৬টি

১০০. ‘Let there be Light’—বিখ্যাত ছবিটি পরিচালনা করেন –

(ক) আমজাদ হোসেন
(খ) জহির রায়হান
(গ) খান আতাউর রহমান
(ঘ) শেখ নিয়ামত আলী

উত্তর: (খ) জহির রায়হান

40th BCS Preliminary Question Full Solution: International Affairs 20

১০১. যুক্তরাষ্ট্রের Guantanamo Bay Detention Camp কোথায় অবস্থিত?

(ক) ফ্লোরিডা
(খ) হাইতি
(গ) কিউবা
(ঘ) জ্যামাইকা

উত্তর: (গ) কিউবা

১০২. টেকসই উন্নয়ন সংক্রান্ত ২০৩০ এজেন্ডা (The Sustainable Development)-তে কয়টি লক্ষ্য (goal) রয়েছে?

(ক) ১৫
(খ) ১৭
(গ) ২১
(ঘ) ২৭

উত্তর: (খ) ১৭

ব্যাখ্যা: টেকসই উন্নয়ন সংক্রান্ত ২০৩০ এজেন্ডা (The 2030 Agenda for Sustainable Development) -তে ১৭ টি লক্ষ্য ( goals) রয়েছে ।

১০৩. জাতিসংঘ কোন সালে মানবাধিকার সংক্রান্ত বৈশ্বিক ঘােষণার ঐতিহাসিক নথিটি গ্রহণ করে?

(ক) ১৯৪৮
(খ) ১৯৫৬
(গ) ১৯৪৫
(ঘ) ২০০০

উত্তর: (ক) ১৯৪৮

ব্যাখ্যা: জাতিসংঘ মানবাধিকার সংক্রান্ত বৈশ্বিক ঘোষণার ঐতিহাসিক নথিটি গ্রহণ করে- ১৯৪৮ সালে।

১০৪. মিনস্ক নিচের কোন দেশের রাজধানী?

(ক) তাজাকিস্তান
(খ) আজারবাইজান
(গ) পর্তুগাল
(ঘ) বেলারুশ

উত্তর: (ঘ) বেলারুশ

১০৫. সর্বশেষ মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলন কোন সালের কোন মাসে অনুষ্ঠিত হয়েছে?

(ক) সেপ্টেম্বর, ২০১৮
(খ) মার্চ, ২০১৪
(গ) ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
(ঘ) ডিসেম্বর, ২০১৮

উত্তর: (গ) ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

ব্যাখ্যা: জার্মানিতে ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলন (এমএসসি)। বিশ্বের প্রায় ৪৫০ জন নীতি-নির্ধারক ও চিন্তাবিদের অংশগ্রহণে এই সম্মেলনে মানুষের নিরাপত্তার বর্তমান ও ভবিষ্যৎ চ্যালেঞ্জ নিয়ে আলোচনা-পর্যালোচনা হয়েছে।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১০৬. V-20 গ্রুপ কিসের সাথে সম্পর্কিত?

(ক) কৃষি উন্নয়ন
(খ) দরিদ্র বিমােচন
(গ) জলবায়ু পরিবর্তন
(ঘ) বিনিয়ােগ সম্পর্কিত

উত্তর: (গ) জলবায়ু পরিবর্তন

ব্যাখ্যা: জাতিসংঘের উন্নয়ন কর্মসূচি UNDP এর climate Vulnerable Forum এর সাথে জড়িত। বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় ২০ টি দেশ Vulnerable Twenty বা V-20 নামে একটা জোটের যাত্রা শুরু হয়। পরবর্তীতে আরও ২৩ টি দেশ যুক্ত হয়।

১০৭. জাতিসংঘ সমুদ্র আইন কত সালে স্বাক্ষরিত হয়েছিল?

(ক) ১৯৭৯ সালে
(খ) ১৯৮২ সালে
(গ) ১৯৮৩ সালে
(ঘ) ১৯৯৮ সালে

উত্তর: (খ) ১৯৮২ সালে

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশে ১৯৭৪ সালে সর্বপ্রথম বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ কর্তৃক সমুদ্র আইন পাস করা হয় যা আঞ্চলিক পানি ও সামুদ্রিক এলাকা আইন ১৯৭৪ (The Territorial Waters And Meritime Zones Act, 1974) নামে পরিচিত। এছাড়া জাতিসংঘের “সমুদ্র আইন বিষয়ক জাতিসংঘ কনভেনশন, ১৯৮২” একটি আন্তর্জাতিক সমুদ্র আইন যা বিশ্বব্যাপি স্বীকৃত।

১০৮. বিশ্বের সর্বশেষ জলবাযূ সম্মেলন (ডিসেম্বর ২০১৮) কোথায় অনুষ্ঠিত হয়?

(ক) কাটোউইস, পোল্যান্ড
(খ) প্যারিস, ফ্রান্স
(গ) রোম, ইতালি
(ঘ) বেইজিং, চীন

উত্তর: (ক) কাটোউইস, পোল্যান্ড

ব্যাখ্যা: বিশ্ব এখন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। তাকে বাঁচাও, এটাই শেষ সময়!’ এমনই আকুতি, উৎকন্ঠা ও আর্তনাদে পোল্যান্ডের ক্যাটওয়াইচ শহরে ‘বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলন-২০১৮’ বা ‘কপ-২৪’ অনুষ্ঠিত হয়েছিল।গত ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ স্পেনের মাদ্রিদে শেষ হলো পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন-বিষয়ক বিশ্বের সবচেয়ে বড় সম্মেলন কনফারেন্স অব দ্য পার্টিস বা কপ-২৫।

১০৯. Sunshine Policy-এর সাথে কোন দুটি দেশ জড়িত?

(ক) চীন, রাশিয়া
(খ) উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া
(গ) জাপান, থাইল্যান্ড
(ঘ) তাইওয়ান, হংকং

উত্তর: (খ) উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া

ব্যাখ্যা: সানশাইন পলিসি” হল দক্ষিণ কোরিয়া কর্তৃক উত্তর কোরিয়ার সাথে সুসম্পর্ক প্রতিষ্ঠার নীতি। ২য় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী ঠান্ডা যুদ্ধের ফলাফল হিসেবে ১৯৪৫ সালে কোরিয়া ভেঙ্গে যাওয়ার পর তাদের আর এক হওয়া সম্ভব হয় নি। দীর্ঘ বিচ্ছিন্নতা, সম্পর্কের টানাপোড়েন আর উত্তেজনাকে নিরসনে গেল শতকের ‘৯০ এর দক্ষিণ কোরিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট কিম দায়ে জং এক নীতি গ্রহণ করেন যা সানশাইন পলিসি । কিম দায়ে জং এর এই নীতির ফলশ্রুতিতে ২০০১ সালের ১৩ জুন দু দেশের প্রেসিডেন্টের মধ্যে শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ।

১১০. BRICS কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত ব্যাংকের নাম হচ্ছে –

(ক) New Development Bank (NDB)
(খ) BFRICS Development Bank (BDB)
(গ) Economic Development Bank (EDB)
(ঘ) International Commercial Bank (ICB)

উত্তর: (ক) New Development Bank (NDB)

ব্যাখ্যা: নিউ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (এনডিবি) ব্রিক্স দেশসমূহ (ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকা) দ্বারা প্রতিষ্ঠিত একটি বহুমুখী উন্নয়ন ব্যাংক।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১১১. চীন নিচের কোন আফ্রিকান দেশটিতে সামরিক ঘাঁটি স্থাপনের মাধ্যমে কৌশলগত সম্পর্ক স্থাপন করেছে?

(ক) ইথিওপিয়া
(খ) জাম্বিয়া
(গ) লাইবেরিয়া
(ঘ) জিবুতি

উত্তর: (ঘ) জিবুতি

ব্যাখ্যা: চীন জিবুতিতে সামরিক ঘাঁটি স্থাপনের মাধ্যমে কৌশলগত সম্পর্ক স্থাপন করেছে।

১১২. পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের কোন অংশে ভারত সম্প্রতি (ফেব্রুয়ারি, ২০১৯) সামরিক বিমান হামলা পরিচালনা করে?

(ক) এবােটাবাদ
(খ) বালাকোট
(গ) কোয়েটা
(ঘ) গিলগিট

উত্তর: (খ) বালাকোট

ব্যাখ্যা: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ সালে ভারতীয় বিমান বাহিনীর বারোটি মিরাজ ২০০০ জেট বিমান কাশ্মীরে নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করেছিল এবং পুলওয়ামার আক্রমণের প্রতিশোধ হিসাবে একটি বিমান হামলা চালানো হয়েছিল, যা বিমান হামলার দুই সপ্তাহ আগে ঘটেছিল। ভারতীয় গণমাধ্যম অনুসারে, জেটগুলি বালাকোটে একটি জাইশ-ই-মোহাম্মদ পরিচালিত জঙ্গি ক্যাম্প আক্রমণ করে এবং বিমান হামলা চলাকালে প্রায় ২০০ থেকে ৩০০ জঙ্গি নিহত হয়। পাকিস্তানের মতে, ভারতীয় সামরিক বিমান মুজফফরাবাদ কাছে তাদের আকাশ সীমা লঙ্ঘন করে, পাকিস্তান বাহিনী জেট বিমানগুলোকে প্রতিক্রিয়া জানায়, ফলে ভারতীয় জেটগুলি ফিরে যায় এবং ফিরে আসার সময় পেলোড ফেলে দেয়। পাকিস্তান দাবি করে যে কোনও প্রাণহানি বা ক্ষতি করা হয়নি।

১১৩. নিচের কোন দেশে ২০২২ সালের G-২০ বাত্সরিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে-

(ক) ইতালী
(খ) যুক্তরাষ্ট্র
(গ) ভারত
(ঘ) ব্রাজিল

উত্তর: (গ) ভারত

ব্যাখ্যা: ২০২২ সালে জি-২০ সম্মেলনের আয়োজক দেশ হবে ভারত। আর্জেন্টিনায় আয়োজিত ১৩ তম জি-২০ সম্মেলনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই ঘোষণা দিয়েছেন। নরেন্দ্র মোদী বলেছেন, ২০২২ সালে ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ তম বার্ষিকী। সেই বিশেষ বছরে জি-২০ সম্মেলনের আয়োজক হতে চাই আমরা। তাই আমরা ইতালিকে ২০২২ সালের পরিবর্তে ২০২১ সালের জি-২০ আয়োজক দেশ হওয়ার আবেদন জানাই।

১১৪. ‘দ্যা আইডিয়া অব জাস্টিস’-গ্রন্থের রচয়িতা কে?

(ক) মাখা সবাম
(খ) জোসেফ স্টিগলিটজ
(গ) অমর্ত্য সেন
(ঘ) জন রাউলস

উত্তর: (গ) অমর্ত্য সেন

ব্যাখ্যা: আইডিয়া অফ জাস্টিস গ্রন্থের রচয়িতা অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। বইটি ২০০৯ সালে প্রকাশিত হয়। এটি দার্শনিক জন রোলসের ‘থিওরি অফ জাস্টিস’ এর একটি সমালোচনাধর্মী বই।

১১৫. শ্রীলংকার কোন সমুদ্রবন্দর চীনের নিকট ৯১ বছরের জন্য লীজ দেয়া হয়েছে-

(ক) ত্রিঙ্কোমালী
(খ) হাম্বানটোটা
(গ) গল বন্দর
(ঘ) পাের্ট অব কলম্বাে

উত্তর: (খ) হাম্বানটোটা

ব্যাখ্যা: শ্রীলংকার দক্ষিণাঞ্চলীয় হাম্বানটোটায় ১১০ কোটি ডলারের বিনিময়ে গভীর সমুদ্রবন্দরের নিয়ন্ত্রণ এবং উন্নয়নের জন্য চীনের সাথে একটি চুক্তি করেছে দেশটির সরকার।এটি শ্রীলংকার ২য় বৃহত্তম সমুদ্রবন্দর।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১১৬. নীচের কোন সংস্থাটির সচিবালয় বাংলাদেশে অবস্থিত?

(ক) BIMSTEC
(খ) CICA
(গ) IORA
(ঘ) SAARC

উত্তর: (ক) BIMSTEC

১১৭. নিচের কোন সংস্থাটির স্থায়ী সদর দপ্তর নেই?

(ক) NATO
(খ) NAM
(গ) EU
(ঘ) ASEAN

উত্তর: (খ) NAM

ব্যাখ্যা: জোট-নিরপেক্ষ আন্দোলন বা নন অ্যালায়েন্ড মুভমেন্ট বা ন্যাম (ইংরেজি: Non-Aligned Movement (NAM) হল একটি আন্তর্জাতিক সংগঠন। ১৯৬১ সালে পুরাতন যুগোস্লাভিয়ার রাজধানী বেলগ্রেডে জন্ম হয় জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের।

১১৮. জাতিসংঘ বিষয়ক আলােচনায় পি৫ (P5) কলতে কি বুঝায়?

(ক) নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচটি স্থায়ী সদস্য রাষ্ট্র
(খ) পাঁচটি পরমাণু শক্তিধর রাষ্ট্র
(গ) পাঁচটি জাতিসংঘ সংস্থা
(ঘ) উপরে কোনটিই নয়

উত্তর: (ক) নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচটি স্থায়ী সদস্য রাষ্ট্র

ব্যাখ্যা: জাতিসংঘ বিষয়ক আলোচনায় পি৫ (P5) বলতে বুঝায়- Permanent 5 countries of the Security Council. দেশগুলো হলো- যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, চীন, রাশিয়া।

১১৯. কোন দেশটি ইউরােপের বাল্টিক অঞ্চলে অবস্থিত নয়?

(ক) ফিনল্যান্ড
(খ) পোল্যান্ড
(গ) অস্ট্রিয়া
(ঘ) সুইডেন

উত্তর: (গ) অস্ট্রিয়া

১২০. OIC-এর কততম শীর্ষ সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অংশগ্রহণ করেন?

(ক) ২য় শীর্ষ সম্মেলন
(খ) ৫ম শীর্ষ সম্মেলন
(গ) ৪র্থ শীর্ষ সম্মেলন
(ঘ) ৭ম শীর্ষ সম্মেলন

উত্তর: (ক) ২য় শীর্ষ সম্মেলন

ব্যাখ্যা: ২২-২৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৪ পাকিস্তানের লাহোরে অনুষ্ঠিত ওআইসি এর ২য় শীর্ষ সম্মেলনে শেখ মুজিবুর রহমান অংশগ্রহণ করেন। এবং বাংলাদেশ ৩২ তম দেশ হিসেবে সদস্যপদ লাভ করে।

40th BCS Preliminary Question Full Solution: Geography, Environment and Disaster Management 10

১২১. নিম্নের কোনটি পাললিক শিলা?

(ক) মার্বেল
(খ) কয়লা
(গ) গ্রানাইট
(ঘ) নিস

উত্তর: (খ) কয়লা

ব্যাখ্যা: পলি সঞ্চিত হয়ে যে শিলা গঠিত হয়েছে তাকে পাললিক শিলা বলে। এ শিলায় পলি সাধারণত স্তরে স্তরে সঞ্চিত থাকে।পাললিক শিলা ভূত্বকের মোট আয়তনের শতকরা ৫ ভাগ দখল করে আছে। যেমন- বেলেপাথর, কয়লা, শেল, চুনাপাথর, কাদাপাথর, কেওলিন, জিপসাম,ডলোমাইট পাললিক শিলার উদাহরণ।

১২২. নিম্নের কোনটি বৃহৎ স্কেল মানচিত্র?

(ক) ১ : ১০,০০০
(খ) ১: ১০০,০০০
(গ) ১: ১০০০,০০০
(ঘ) ১: ২৫০০,০০০

উত্তর: (ক) ১ : ১০,০০০

ব্যাখ্যা: স্কেল অনুসারে মানচিত্র দুই প্রকারের- (ক)বৃহৎ স্কেলের মানচিত্র এবং (খ)ক্ষুদ্র স্কেলের মানচিত্র। নৌচলাচল সংক্রান্ত নাবিকদের চার্ট, বিমান চলাচল সংক্রান্ত বৈমানিকদের চার্ট, মৌজা মানচিত্র বা ক্যাডাস্ট্রাল মানচিত্র প্রভৃত বৃহৎ স্কেলের মানচিত্র ।একটি ছোট এলাকা অনেক বড় করে দেখানো হয় বলে মানচিত্রের মধ্যে অনেক জায়গা থাকে এবং অনেক কিছুর তথ্য এরূপ মানচিত্রে ভালভাবে দেখানো যায়। ভূচিত্রাবলি মানচিত্র, দেয়াল মানচত্র প্রভৃতি ক্ষুদ্র স্কেলের মানচিত্র। সমগ্র প্রথিবী বা মহাদেশ বা দেশের মতো বড় অঞ্চলকে একটি ছোট কাগজে দেখানো হয় বলে এ প্রকার মানচিত্রে বেশি জায়গা থাকে না। ফলে এ মানচিত্রে বেশি কিছু দেখানো যায় না। প্রশ্নে উল্লেখিত অপশনগুলোর মধ্যে ১:১০,০০০ বৃহৎ স্কেলের মানচিত্র। উৎস: ভূগোল ও পরিবেশ, ৯ম-১০ম শ্রেণি; এন.সি.টি.বি

১২৩. সমবৃষ্টিপাত সম্পন্ন স্থানসমূহকে যােগকারী রেখাকে বলা হয়–

(ক) আইসােথার্ম
(খ) আইসোবার
(গ) আইসােহাইট
(ঘ) আইসােহেলাইন

উত্তর: (গ) আইসােহাইট

ব্যাখ্যা: আইসোথার্ম: আইসো অর্থ একই বা সমান এবং থার্ম অর্থ তামমাত্রা। একটি নির্দিষ্ট সময়ে বা কোন একটি নির্দিষ্ট সময়ে গড়ে মানচিত্রে একই তাপমাত্রার বিন্দুসমূহকে সংযোগকারী রেখাকে আইসোথার্ম বলে।
আইসোবার: আইসো অর্থ একই বা সমান এবং বার অর্থ ভর। যে সকল মৌলের ভরসংখ্যা একই কিন্তু পারমানবিক সংখ্যা আলাদা তাদেরকে একে ওপরের আইসোবার বলে। যেমন K আর Ar এদের পারমানবিক সংখ্যা যথাক্রমে ১৮ ও ১৯ এবং ভরসংখ্যা উভয়েরই ৩৯. তাই এরা একে অপরের আইসোবার।
আইসোহাইট: সমবৃষ্টিপাত সম্পন্ন স্থানসমূহকে সংযোগকারী রেখাকে আইসোহাইট বা সমবর্ষণ রেখা বলে। অর্থাৎ যেসব স্হানে বার্ষিক গড় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ সমান,মানচিত্রে সেসব স্থানকে এ রেখা দ্বারা যুক্ত করা হয়।এ রেখাগুলো সমোষ্ণরেখার মত আঁকাবাঁকা হয়।এরূপ মানচিত্রে দেখার সময় মনে রাখতে হবে যে, এক রেখা হতে অপর রেখা পর্যন্ত বৃষ্টিপাত হঠাৎ কমে বা বেড়ে যায়না,তা ধীরে ধীরে কমে বা বাড়ে।
আইসোহেলাইন: আইসো অর্থ একই বা সমান এবং হেলাইন অর্থ লবণাক্ততা।কোন জলীয় সিস্টেমে সমলবণাক্ততা বিশিষ্ট বিন্দুসমূহকে সংযোগকারী রেখাকে আইসোহেলাইন বলে।

১২৪. বাংলাদেশের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান কি ধরণের বনভূমি?

(ক) ক্রান্তিয় চিরহরিৎ, আধা-চিরহৰিৎ জাতীয়
(খ) ক্রান্তীয় আর্দ্র পত্র পতনশীল জাতীয়
(গ) পত্র পতনশীল জাতীয়
(ঘ) ম্যানগ্রোভ জাতীয়

উত্তর: (ক) ক্রান্তিয় চিরহরিৎ, আধা-চিরহৰিৎ জাতীয়

ব্যাখ্যা: লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলায় অবস্থিত লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান শুধু যে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে অন্যন্য তা নয়, বরং দেশে যেটুকু বন এখনও অবশিষ্ট রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম। ১৯২৫ সালে বনায়ন করে সৃষ্ট বনরাজি এখন ঘন প্রাকৃতিক বনের আকার ধারণ করেছে। এর আয়তন ১২৫০ হেক্টর। জীববৈচিত্র্যে ভরপুর লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে দেখা মেলে নানা বিরল প্রজাতির পশু পাখির। সারা দুনিয়ার পাখি প্রেমিকরা দূর দূরান্ত হতে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে পাখি দেখতে ছুটে আসেন। এ বনের মধ্যে এবং আশেপাশে খাসিয়া ও টিপরা আদিবাসীরা বাস করেন। দূরত্ব: ঢাকা থেকে ১৬০ কিঃ মিঃ উত্তর পূর্বে দিকে অবস্থিত। রেল বা সড়ক পথে শ্রীমঙ্গল পৌঁছে গাড়িতে করে যেতে ১৫-২০ মিনিট লাগে। লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান ক্রান্তীয় চিরহরিৎ, আধা-চিরহরিৎ জাতীয় বনভূমি।

১২৫. বাংলাদেশে সংঘটিত বন্যার রেকর্ড অনুযায়ী (১৯৭১-২০০৭) কোন সালের বন্যায় সবচেয়ে বেশী এলাকা প্লাবিত হয়?

(ক) ১৯৭৪
(খ) ১৯৮৮
(গ) ১৯৯৮
(ঘ) ২০০৭

উত্তর: (গ) ১৯৯৮

ব্যাখ্যা: ১৯৭৪ সালে ময়মনসিংহের প্রায় ১০,৩৬০ বর্গ কিলোমিটার অঞ্চল বন্যা কবলিত হয়। ১৯৮৮ সালের আগস্ট-সেপ্টেম্বর মাসের বন্যায় ভয়ংকর বিপর্যয় দেখা দেয়। প্রায় ৮২,০০০ বর্গ কিমি এলাকা (সমগ্র দেশের ৬০% এরও অধিক এলাকা) ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ ধরনের বন্যা ৫০-১০০ বছরে একবার ঘটে। বৃষ্টিপাত এবং একই সময়ে (তিন দিনের মধ্যে) দেশের তিনটি প্রধান নদীর প্রবাহ একই সময় ঘটার (synchronize) ফলে বন্যার আরও ব্যাপ্তি ঘটে। বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা শহরও প্লাবিত হয়। বন্যা স্থায়িত্ব ছিল ১৫ থেকে ২০ দিন। ১৯৯৮ সালের বন্যায় সমগ্র দেশের দুই-তৃতীয়াংশের বেশি এলাকা দুই মাসের অধিক সময় বন্যা কবলিত হয়। বন্যার ব্যাপ্তি অনুযায়ী এটি ১৯৮৮ সালের বন্যার সাথে তুলনীয়। ব্যাপক বৃষ্টিপাত, একই সময়ে দেশের তিনটি প্রধান নদীর প্রবাহ ঘটার ফলে ও ব্যাক ওয়াটার এ্যাফেক্টের কারণে এই বন্যা ঘটে। ২০০৭ সালের বন্যাকে “মহাবন্যা” বলা হয়। ২০০৭ সালের বন্যা হয় সেপ্টেম্বর মাসে। এতে দেশের ৪২ শতাংশ এলাকার ৬২ হাজার ৩০০ বর্গ কিলোমিটার এলাকা প্লাবিত হয়।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১২৬. সার্ক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কেন্দ্র কোথায় অবস্থিত?

(ক) নয়া দিল্লি
(খ) কলম্বো
(গ) ঢাকা
(ঘ) কাঠমুন্ডু

উত্তর: (ক) নয়া দিল্লি

ব্যাখ্যা: সার্ক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কেন্দ্র ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লীতে অবস্থিত । সার্ক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোতে অবস্থিত। সার্ক কৃষি কেন্দ্র ও আবহাওয়া কেন্দ্র বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় অবস্থিত। সার্ক যক্ষা ও এইচ.আই.ভি/এইডস কেন্দ্র নেপালের রাজধানী কাঠমাণ্ডুতে অবস্থিত।

১২৭. নীচের কোনটি জলজ উদ্ভিদ নয়?

(ক) হিজল
(খ) করচ
(গ) ডুমুর
(ঘ) গজারী

উত্তর: (ঘ) গজারী

ব্যাখ্যা: যে সমস্ত উদ্ভিদ পানিতে বা পানি যুক্ত স্থানে জন্মে তাদেরকে জলজ উদ্ভিদ বলে। এসব জলজ উদ্ভিদ নদী-নালা, খাল-বিল, ডোবা-পুকুর, হ্রদ-জলাশয় ইত্যাদিতে প্রচুর পরিমাণে জন্মে। যেমন- করচ, হিজল, ডুমুর, বরুণ,পিঠালি,অর্জুন,ছাতিম,গুটিজাম,কলমি, কচুরিপানা,বট বৃক্ষ ইত্যাদি । গজারি মূলত বৃক্ষ জাতীয় উদ্ভিদ।এর অপর নাম শাল। গাছ কাটার পর গোড়া থেকে চারা গজানোর কারণে এর নাম গজারি হয়েছে মনে করা হয়। বাংলাদেশের ভাওয়াল ও মধুপুরের গাজারি বনই দেশের বৃহত্ পত্রঝরা বনাঞ্চল। লাল মাটির পাহাড়, ছোট ছোট টিলা জমিতে গজারি ভালো জন্মে।

১২৮. নীচের কোনটি মানবসৃষ্ট আপদ (hazard) নয়?

(ক) বায়ু দূষণ
(খ) দুর্ভিক্ষ
গ) মহামারী
(ঘ) কালবৈশাখী (Norwester)

উত্তর: (ঘ) কালবৈশাখী (Norwester)

ব্যাখ্যা: আপদ (Hazard) এর প্রকারভেদ: পৃথিবীব্যাপী যে সকল আপদ সংগঠিত হয় সেগুলোকে প্রধানত দুই ভাগে ভাগ করা যায়। যথা- প্রাকৃতিক আপদ এবং মানবসৃষ্ট আপদ।
প্রাকৃতিক আপদ: প্রাকৃতিক কারণে যে সকল আপদ সৃষ্টি হয়, সেগুলোকে প্রাকৃতিক আপদ বলে। এ ধরণের আপদের মধ্যে রয়েছে ভূমিকম্প, অগ্ন্যুৎপাত, কালবৈশাখী, বন্যা, খরা, নদীভাঙন, লবণাক্ততা, তুষারপাত ইত্যাদি।
মানবসৃষ্ট আপদ: মানবসৃষ্ট আপদ বলতে মানুষের অবহেলা, ভুলভ্রান্তি বা কোনো বিশেষ অভিপ্রায়ের ফলে সৃষ্ট দুর্যোগকে বুঝায়। অর্থাৎ এ ধরনের আপদ মানুষের কর্মকাণ্ডের ফলে সৃষ্টি হয়। যুদ্ধ, পারমাণবিক বোমার বিস্ফোরণ, রাসায়নিক দূষণ, খাদ্যে কীটনাশক ব্যবহার, অপরিকল্পিত ও ত্রুটিপূর্ণ স্থাপনা নির্মাণ ইত্যাদি।

১২৯. বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সেক্টরগুলাের মধ্যে কোন খাতে বেশী কর্মসংস্থান হয়?

(ক) নির্মাণ খাত
(খ) কৃষি খাত
(গ) সেবা খাত
(ঘ) শিল্প কারখান্য খাত

উত্তর: (খ) কৃষি খাত

১৩০. বাংলাদেশের উপকূলীয় সমভূমিতে বসবাসকারী জনগােষ্ঠী যে ধরণের বন্যা কবলীত হয় তার নাম –

(ক) নদী বন্যা
(খ) আকস্মিক বন্যা
(গ) বৃষ্টিজনিত বন্যা
(ঘ) জলােচ্ছাসজনিত বন্যা

উত্তর: (ঘ) জলােচ্ছাসজনিত বন্যা

ব্যাখ্যা: আকস্মিক বন্যা: বর্ষা মৌসুম ব্যতীত যেকোন মৌসুমী আকস্মিক বৃষ্টিপাত বা পাহাড়ি ঢালের ফলে যে বন্যার সৃষ্টি হয়, তাকে আকস্মিক বন্যা বলে। বাংলাদেশের সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার, কিশোরগঞ্জ প্রভৃতি জেলায় আকাস্মিক বন্যা হতে দেখা দেয়। বোরো মৌসুমে এ ধরনের বন্যার ফলে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়।
উপকূলীয় বন্যা বা জলোচ্ছ্বাসজনিত বন্যা: উপকূলীয় অঞ্চলে ঘূর্ণিঝড়, সুনামি বা জোয়ার-ভাটাজনিত কারণে যে বন্যা সৃষ্টি হয় তাকে উপকূলীয় বন্যা বা জলোচ্ছ্বাসজনিত বন্যা বলে।তাই বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে সমভূমিতে বসবাসকারী জনগোষ্ঠী সাধারণত জলোচ্ছ্বাসজনিত বন্যায় কবলিত হয়।

40th BCS Preliminary Question Full Solution: General Science 15

১৩১. 3517Cl মৌলের নিউট্রন সংখ্যা কত?

(ক) 17
(খ) 18
(গ) 35
(ঘ) 70

উত্তর: (খ) 18

সমাধান: 3517Cl মৌলে প্রোটন সংখ্যা, Z = 17
ভর সংখ্যা , A = 35
অতএব,নিউট্রন সংখ্যা, N = A – Z
=35-17
= 18

১৩২. কোন কঠিন পদার্থ বিশুদ্ধ নাকি অবিশুদ্ধ তা কিসের মাধ্যমে নির্ণয় করা যায়?

(ক) ঘনীভবন
(খ) বাষ্পীভবন
(গ) গলনাংক
(ঘ) স্ফুটনাংক

উত্তর: (গ) গলনাংক

ব্যাখ্যা: কোনো কঠিন পদার্থ বিশুদ্ধ নাকি অবিশুদ্ধ তা গলনাঙ্কের মাধ্যমে নির্ণয় করা যায়। যেহেতু প্রত্যেক বিশুদ্ধ কঠিন পদার্থের একটি নির্দিষ্ট গলনাংক থাকে ।

১৩৩. অ্যানােডে কোন বিক্রিয়া সম্পন্ন হয়?

(ক) জারণ
(খ) বিজারণ
(গ) প্রশমন
(ঘ) পানি যােজন

উত্তর: (ক) জারণ

ব্যাখ্যা: অ্যানোডে জারণ বিক্রিয়া সম্পন্ন হয়। আর ক্যাথোডে বিজারণ বিক্রিয়া হয়।

৩৪. একটি বাল্বে “60w-220v” লেখা আছে। বাল্বটির রোধ কত ওহম (Ohm)?

(ক) 16.36
(খ) 160
(গ) 280
(ঘ) 806.67

উত্তর: (ঘ) 806.67

ব্যাখ্যা: একটি বাল্বে “60W-220V” লেখা আছে। রোধ বের করতে হবে- এখানে, বিভব পার্থক্য, V= 220volt ক্ষমতা, P = 60 watt রোধ , R =? আমরা জানি, P = V2 ÷ R R =V2 ÷ P R = {(220×220) ÷ 60} R= 806.67 ohm

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১৩৫. নবায়নযােগ্য জ্বালানীর উৎস –

(ক) তেল
(খ) গ্যাস
(গ) কয়লা
(ঘ) বায়োগ্যাস

উত্তর: (ঘ) বায়োগ্যাস

১৩৬ কার্বোহাইড্রেডে C, H এবং 0-এর অনুপাত কত?

(ক) ১ : ১: ২
(খ) ১: ২: ১
(গ) ১ : ৩ : ২
(ঘ) ১: ৩: ১

উত্তর: (খ) ১: ২: ১

ব্যাখ্যা: কার্বোহাইড্রেট C, H এবং O-এর সম্বন্বয়ে গঠিত এক প্রকার জেব রাসায়নিক পদার্থ। কার্বোহাইড্রেট জীবদেহের শক্তির প্রধান উৎস হিসেবে কাজ করে।

১৩৭. AC কে DC করার যন্ত্র –

(ক) রেকটিফায়ার
(খ) অ্যামপ্লিফায়ার
(গ) ট্রানজিস্টর
(ঘ) ডায়োড

উত্তর: (ক) রেকটিফায়ার

১৩৮. বিদ্যুৎ শক্তিকে শব্দ শক্তিতে রূপান্তরিত করা হয় কোন্ যন্ত্রের মাধ্যমে –

(ক) লাউড স্পিকার
(খ) অ্যামপ্লিফায়ার
(গ) জেনারেটর
(ঘ) মাল্টিমিটার

উত্তর: (ক) লাউড স্পিকার

১৩৯ বাতাসের আর্দ্রতা মাপার যন্ত্রের নাম কি?

(ক) মাইকোমিটার
(খ) হাইগ্রোমিটার
(গ) ব্যারােমিটার
(ঘ) গ্রাভিমিটার

উত্তর: (খ) হাইগ্রোমিটার

ব্যাখ্যা: ১। হাইগ্রোমিটার- বায়ুতে আর্দ্রতা পরিমাপক যন্ত্র
২। হাইড্রোমিটার- তরলের আপেক্ষিক গুরুত্ব বা ঘনত্ব নির্ণায়ক।
৩। ল্যাক্টোমিটার- দুধের বিশুদ্ধতা নির্ণায়ক যন্ত্র
৪। ব্যারোমিটার- বায়ুমন্ডলের চাপ নির্ণায়ক যন্ত্র

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১৪০. কোথায় সাঁতার কাটা সহজ?

(ক) পুকুরে
(খ) খালে
(গ) নদীতে
(ঘ) সাগরে

উত্তর: (ঘ) সাগরে

ব্যাখ্যা: সাগরের পানির ঘনত্ব বেশি তাই সাগরে সাতার কাটা সহজ। সমুদ্রের পানিতে লবন দ্রবীভূত অবস্থায় থাকে তাই এই পানির ঘনত্ব বেশি হয় নদীর পানির তুলনায়।  আর তাই সাগরে সাঁতার কাটা সহজ হয়।

১৪১. ডিমে কোন ভিটামিন নেই?

(ক) ভিটামিন-এ
(খ) ভিটামিন-বি
(গ) ভিটামিন-সি
(ঘ) ভিটামিন-ডি

উত্তর: (গ) ভিটামিন-সি

ব্যাখ্যা: ডিমে ভিটামিন-সি নেই। ডিমে ভিটামিন- সি ব্যতীত ভিটামিন- এ, বি, ডি এবং ই রয়েছে।

১৪২. কোনটির জন্য পুষ্প রঙ্গিন ও সুন্দর হয়?

(ক) ক্রোমোপ্লাস্ট
(খ) ক্লোরােপ্লাস্ট
(গ) ক্রোমোটোপ্লাস্ট
(ঘ) লিউকোপুষ্ট

উত্তর: (ক) ক্রোমোপ্লাস্ট

ব্যাখ্যা: ক্রোমোপ্লাস্টের জন্য পুষ্প রঙ্গিন ও সুন্দর হয়।

১৪৩. সােডিয়াম এসিটেটের সংকেত –

(ক) CH2COONa
(খ) (CH3COO)2ca
(গ) CH3COONa
(ঘ) CHCOONa

উত্তর: (গ) CH3COONa

১৪৪. ক্যান্সার চিকিৎসায় ব্যবহৃত গামা বিকিরণের উৎস কি?

(ক) আইসােটোন
(খ) আইসােটোপ
(গ) আইসােবার
(ঘ) আইসােমার

উত্তর: (খ) আইসােটোপ

ব্যাখ্যা: ক্যান্সার চিকিৎসায় ব্যবহৃত গামা বিকিরণের উৎস হলো- আইসোটোপ। ক্যান্সার চিকিৎসায় কোবাল্ট-৬০ আইসোটোপ ব্যবহার করা হয় ।

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১৪৫. খাদ্য তৈরীর জন্য উদ্ভিদ বায়ু থেকে গ্রহণ করে –

(ক) অক্সিজেন
(খ) কার্বন ডাই-অক্সাইড
(গ) নাইট্রোজেন
(ঘ) জলীয় বাষ্প

উত্তর: (খ) কার্বন ডাই-অক্সাইড

ব্যাখ্যা: খাদ্য তৈরির জন্য উদ্ভিদ বায়ু থেকে গ্রহণ করে- CO2 (কার্বনডাই-অক্সাইড) এবং সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ায় নিজের খাদ্য নিজে তৈরি করে।

0 bcs preli exam question: Computer and Information Technology 15

১৪৬. মুদ্রিত লেখা সরাসরি ইনপুট নেয়ার জন্য নীচের কোনটি ব্যবহৃত হয়?

(ক) OMR
(খ) OCR
(গ) MICR
(ঘ) Scanner

উত্তর: (ঘ) Scanner

ব্যাখ্যা: MICR – মুদ্রিত লেখা সরাসরি ইনপুট হিসেবে নেয়ার প্রযুক্ত। বাংলাদেশ এ বেসরকারি ব্যাংকে চেক বা ডকুমেন্ট এর লেখা সরাসরি ইনপুট করতে এই পদ্ধতি ব্যবহৃত হয়।
OCR- মুদ্রিত বা হাতে লেখা টেক্সটকে মেশিন পানযোগ্য টেক্সটেে রূপান্তরিত করে।
OMR- কাগজে দাগানো চিহ্ন শনাক্ত করে৷

১৪৭. নীচের কোন প্রোগ্রামটি একটি সম্পূর্ণ কম্পিউটার প্রােগামকে একবারে অনুবাদ ও সম্পাদন করে?

(ক) Interpreter
(খ) Emulator
(গ) Compiler
(ঘ) Simulator

উত্তর: (গ) Compiler

ব্যাখ্যা: কম্পাইলার সম্পূর্ণ প্রোগ্রামটিকে একসাথে অনুবাদ করে। ফলে প্রোগ্রাম নির্বাহ দ্রুত হয়।

১৪৮. নীচের কোনটি একই সাথে ইনপুট ও আউটপুট হিসেবে কাজ কবে?

(ক) Mouse
(খ) Microphone
(গ) Touch Screen
(ঘ) Printer

উত্তর: (গ) Touch Screen

ব্যাখ্যা: একই সাথে ইনপুট এবং আউটপুট ডিভাইস হিসেবে কাজ করে- টার্চ স্ক্রিন।

১৪৯. নীচের কোনটি Octal number না?

(ক) 19
(খ) 77
(গ) 15
(ঘ) 101

উত্তর: (ক) 19

১৫০. একটি রিলেশনাল ডাটাবেস মডেলে নীচের কোনটি দ্বারা Relation প্রকাশ করা হয়?

(ক) Tuples
(খ) Attributes
(ঘ) Rows
(গ) Tables

উত্তর: (গ) Tables

ব্যাখ্যা: একটি রিলেশনাল ডাটাবেস মডেলে নীচের কোনটি দ্বারা Relation প্রকাশ করা হয় ➫ Tables.

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১৫১. Bluetooth কিসের উদাহরণ?

(ক) Personal Area Network
(খ) Local Area Network
(গ) Virtual Private Network
(ঘ) কোনটি নয়

উত্তর: (ক) Personal Area Network

ব্যাখ্যা: ব্লুটুথ (ইংরেজি: Bluetooth) ক্ষুদ্র পাল্লার জন্য প্রণীত একটি ওয়্যারলেস প্রোটোকল। এটি ১-১০০ মিটার দূরত্বের মধ্যে ওয়্যারলেস যোগাযোগের একটি পদ্ধতি। ব্লুটুথ-এর কার্যকরী পাল্লা হচ্ছে ১০ মিটার। তবে বিদ্যুৎ কোষের শক্তি বৃদ্ধি করে এর পাল্লা ১০০ মিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি করা যেতে পারে। ব্লুটুথ ২.৪৫ গিগাহার্টজ-এ কাজ করে। ৯০০ খ্রীস্টাব্দের পরবর্তী সময়ের ডেনমার্কের রাজা Harald Bluetooth-এর নামানুসারে এই প্রযুক্তির নামকরণ করা হয়েছে। ব্লুটুথ ১.০-এর তথ্য আদান-প্রদান-এর সর্বোচ্চ গতি ছিল সেকেন্ডে ১ মেগাবিট। বর্তমানে ব্লুটুথ ৫.০-এর সর্বোচ্চ গতি হল সেকেন্ডে ২ মেগাবাইট ব্লুটুথ প্রোটোকল বাস্তবায়নকারী যন্ত্রাংশ বা ডিভাইসগুলি দ্বিমুখী সংযোগ স্থাপন করে কাজ করে। বর্তমানে কম্পিউটার, মোবাইল ফোন, গেমিং কনসোল, ডিজিটাল ক্যামেরা, প্রিন্টার, ল্যাপটপ, জিপিএস রিসিভার প্রভৃতি যন্ত্রাদিতে ব্লুটুথ প্রযুক্তি ব্যবহার হচ্ছে। এই প্রযুক্তিতে খুব কম বিদ্যুৎ খরচ হয়। এটি ক্ষুদ্র পাল্লার বেতার তরঙ্গের মাধ্যমে প্রয়োগ করা হয়।

১৫২. মােবাইল ফোনে কোন Mode-এ যােগাযােগ হয়?

(ক) Simplex
(খ) Half-Duplex
(গ) Full-duplex
(ঘ) কোনটি নয়।

উত্তর: (গ) Full-duplex

ব্যাখ্যা: মোবাইল ফোনের ডেটা ট্রান্সমিশন মোড হলো ফুল-ডুপ্লেক্স। এ পদ্ধতিতে ডেটা একই সাথে উভয় দিকে আদান-প্রদান করা যায়। অর্থাৎ প্রেরক ও প্রাপক উভয়ই এক সাথে ডেটা আদান-প্রদান করতে পারে। বর্তমানে আমরা স্বাচ্ছন্দ্যে কথা বলার জন্য যেসব প্রযুক্তি ব্যবহার করে থাকি, সেগুলোর প্রায় সবগুলোই ফুল-ডুপ্লেক্স ডিভাইস।

১৫৩. Time-shared OS-এর জন্য কোন scheduling policy সবচেয়ে ভাল?

(ক) First come first serve
(খ) Round-robin
(গ) Shortest job first
(ঘ) Last come first serve

উত্তর: (গ) Shortest job first

ব্যাখ্যা: Time-shared OS- এর জন্য scheduling policy সবচেয়ে ভাল- Shortest job first.

১৫৪. নীচের কোনটি ৫২১৬ এর বাইনারী রূপ?

(ক) 010100102
(খ) 011100112
(গ) 000011002
(ঘ) 111100002

উত্তর: (ক) 010100102

ব্যাখ্যা: 5216 এর বাইনারী রুপ- 010100102

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১৫৫. প্রথম Web browser কোনটি?

(ক) Netscape Navigator
(খ) World Wide Web
(গ) Internet Explorer
(ঘ) Safari

উত্তর: (খ) World Wide Web

ব্যাখ্যা: স্যার টিম বার্নাস লি একজন ইংরেজ ইঞ্জিনিয়ার এবং কম্পিউটার গবেষক। তিনি www এর ফাউন্ডার ও প্রতিষ্ঠাতা ডিরেক্টর। ১৯৯০ সালে তিনি প্রথম ওয়েব ব্রাউজার আবিষ্কার করেন। প্রথমে এটি World wide web নামে চালু থাকলেও পরে নেক্সাস নামে নামকরণ করা হয়।

১৫৬. Social Networking Site-এ যােগাযােগে কোন্ media ব্যবহৃত হয়?

(ক) Image/video
(খ) Audio
(গ) Text
(ঘ) উপরের সবগুলাে

উত্তর: (ঘ) উপরের সবগুলাে

১৫৭. Firewall কি protection দেয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়?

(ক) Fire attacks
(খ) Unauthorized access
(গ) Virus attacks
(ঘ) Data-driven attacks

উত্তর: (খ) Unauthorized access

ব্যাখ্যা: ফায়ারওয়াল বাইরের আক্রমণ থেকে এক বা একাধিক কম্পিউটার কে রক্ষা করার জন্য হার্ডওয়্যার আর সফটওয়্যার এর মিলিত প্রয়াস। ফায়ারওয়াল এর সবচেয়ে বহুল ব্যবহার লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক এর ক্ষেত্রে। তথ্য নিরাপত্তা রক্ষাও এর কাজের অংশ। ফায়ার ওয়াল হল এক বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা যাতে এক নেটওয়ার্ক থেকে আরেক নেটওয়ার্কে ডাটা প্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করা যায়। দুই নেটওয়ার্কের মাঝে এই ফায়ারওয়াল থাকে। যাতে এক নেটওয়ার্ক থেকে আরেক নেটওয়ার্কে কোন ডাটা পরিবাহিত হলে সেটিকে অবশ্যই ফায়ারওয়াল অতিক্রম করতে হয়। ফায়ারওয়াল তার নিয়ম অনুসারে সেই ডাটা নিরীক্ষা করে দেখে এবং যদি দেখে যে সে ডাটা ওই গন্তব্যে যাওয়ার অনুমতি আছে তাহলে সেটিকে যেতে দেয়। আর তা না হলে সেটিকে ওখানেই আটকে রাখে বা পরিত্যাগ করে। vccvসিস্কো রাউটারেই এখন বিল্ট -ইন সিস্কো ios ফায়ারওয়াল পাওয়া যায়।

১৫৮. TV remote এর Carrier frequency-র range কত?

(ক) < 100 MHZ
(খ) <1 GHz
(গ) <2 GHz
(ঘ) Infrared range

উত্তর: (ঘ) Infrared range

১৫৯. CPU কোন address generate করে?

(ক) physical addresses
(খ) logical addresses
(গ) Both physical and logical addresses
(ঘ) উপরের কোনটি নয়

উত্তর: (খ) logical addresses

ব্যাখ্যা: সিপিইউ মানে “সেন্ট্রাল প্রসেসিং ইউনিট” (Central Processing Unit)। এটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ যা সকল কাজ নির্দেশ অনুযায়ী সম্পাদন করে ফলাফল বের করে। সিপিইউ বলতে মূলতঃ প্রসেসরকেই বোঝানো হয়। প্রসেসর হল অসংখ্য একটি ইলেক্ট্রনিক সার্কিট যুক্ত ডিভাইস যা লজিক গেইট ব্যবহার করে প্রদত্ত তথ্য যাচাই করে তুলনামুলক তথ্য বের করতে পারে। প্রসেসরের মাঝে এই কাজ সম্পাদন করার জন্য যে অংশ থাকে তার নাম এএলইউ।

১৬০. H. 323 Protocol সাধারণত কি কাজে ব্যবহৃত হয়?

(ক) File transfer
(খ) VoIP
(গ) Data Security
(ঘ) File download

উত্তর: (খ) VoIP

ব্যাখ্যা: H . 323 Protocol সাধারণত VoIP-তে ব্যবহৃত হয়। VoIP – Voice Over Internet Protocol.

40th BCS Preliminary Question Full Solution: Mathematical Reasoning 15

(ম্যাথ এবং মেন্টাল অ্যাবিলিটির ব্যাখ্যা কাল দেয়া হবে।)

১৬১. নীচের কোনটি অমূলদ সংখ্যা?

(ক) 0.4’
(খ) 9
(গ) 5.6’39’
(ঘ) √(27/48)

উত্তর: √(27/48)

১৬২. নীচের কোন পূর্ণ সংখ্যাটিকে ৩, ৪, ৫ এবং ৬ দ্বারা ভাগ করলে যথাক্রমে ১, ২, ৩ ও ৪ অবশিষ্ট থাকে?

(ক) ৪৮
(খ) ৫৪
(গ) ৫৮
(ঘ) ৬০

উত্তর: (গ) ৫৮

সমাধান: ৩, ৪, ৫, ৬ এর ল.সা.গু ৬০। ৩-১=২ ৪-২=২ ৫-৩=২ ৬-৪=২ অতএব ৬০-২=৫৮।

১৬৩. পনির ও তপনের আয়ের অনুপাত 4:3। তপন ও রবিনের আয়ের অনুপাত 5 ! 4। পনিরের আয় 120 টাকা হলে, রবিনের আয় কত?

(ক) 36 টাকা
(খ) 12 টাকা
(গ) 72 টাকা
(ঘ) 84 টাকা

উত্তর: (গ) 72 টাকা

সমাধান: ধরি, পনিরের আয় ২০ক টাকা এবং রবিনের আয় ১২কা টাকা প্রশ্নমতে, ২০ক =১২০ বা, ক=৬ সুতরাং, রবিনের আয়=৭২ টাকা।

১৬৪. ৪৫০ টাকা বার্ষিক ৬% সুদে কত বছরে সুদে-আসলে ৫৫৮ টাকা হবে?

(ক) ৩ বছরে
(খ) ৪ বছরে
(গ) ৫ বছরে
(ঘ) ৬ বছরে

উত্তর: (খ) ৪ বছরে

সমাধান:
I=Prn=450x(6/100)xn=27n
Now, 27n+450=558
⇒ 27n=558-450=108
Or, n=4
Ans: 4 years.

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১৬৫. একটি মটর সাইকেল ১২% ক্ষতিতে বিক্রি করা হলাে। যদি বিক্রয় মূল্য ১২০০ টাকা বেশি হতাে, তাহলে ৮% লাভ হতাে। মটর সাইকেলের ক্রয় মূল্য –

(ক) ৬০০০ টাকা
(খ) ৫০০০ টাকা
(গ) ৪০০০ টাকা
(ঘ) ৮০০০ টাকা

উত্তর: (ক) ৬০০০ টাকা

সমাধান:
12% ক্ষতিতে বিক্রয়মূল্য=100-12=88 টাকা
8% লাভে বিক্রয় মূল্য=100+8=108 টাকা
বিক্রয়মূল্যের পার্থক্য=108-88=20 টাকা
বিক্রয়মূল্য 20 টাকা বেশি হলে ক্রয়মূল্য =100 টাকা
বিক্রয়মূল্য 1 টাকা বেশি হলে ক্রয়মূল্য =100/20 টাকা
বিক্রয়মূল্য 1200টাকা বেশি হলে ক্রয়মূল্য =(100×1200)/20 = 6000 টাকা

১৬৬. {(০.৯)+(০.৪)}/(০.৯+০.৮) এর মান কত?

(ক) ০.৩৬
(খ) ০.৫১
(গ) ০.৮১
(ঘ) ০.৬১

উত্তর: (ঘ) ০.৬১

১৬৭. 3x – 2> 2x -1 এর সমাধান সেট কোনটি?

(ক) [1, ∞)
(খ) (1, ∞)
(গ) [1/2, ∞)
(ঘ) [-1, ∞)

উত্তর: (খ) (1, ∞)

সমাধান:
3x – 2 > 2x – 1
বা, 3x – 2x > – 1 + 2
বা, x > 1
অর্থাৎ x এর মান 1 এর চেয়ে বড় এবং ∞ থেকে ছোট

১৬৮. 6x2 – 7x – 4 = 0 সমীকরণে মূলদ্বয়ে প্রকৃতি কোনটি?

(ক) বাস্তব ও সমান
(খ) বাস্তব ও অসমান
(গ) অবাস্তব
(ঘ) পূর্ণ বর্গ সংখ্যা

উত্তর: (খ) বাস্তব ও অসমান

১৬৯. যদি x4 – x2 +1 = 0 হয়, তবে x3 + 1/x3 =?

(ক) 3
(খ) 2
(গ) 1
(ঘ) 0

উত্তর: (ঘ) 0

সমাধান:
x4-x2+1=0
Or, x2+1/x2=1
Or, (x+1/x)2-2=1
Or, x+1/x=√3
Now, x3+1/x3
=( x+1/x)3– 3.x.1/x.( x+1/x)
=3√3-3√3=0

১৭০. xx∙x = (x∙x)x হলে x এর মান কত?

(ক) 3/2
(খ) 4/9
(গ) 9/4
(ঘ) 2/3

উত্তর: (গ) 9/4

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১৭১. কোন শর্তে Loga1=0?

(ক) a> 0, a #1
(খ) a# 0, a > 1
(গ) a> 0, a = 1
(ঘ) a # 1, a < 0

উত্তর: (ক) a> 0, a #1

সমাধান: Loga1=0 হবে যদি- a>0 এবং a≠1 হয়।

১৭২.

R চিত্রে, ∠PQR=55°, ∠LRN=90° এবং PQ ||MR, PQ = PR হলে, ∠NRP এর মান নীচের কোনটি?

(ক) 90°
(খ) 55°
(গ) 45°
(ঘ) 35°

উত্তর: (ঘ) 35°

সমাধান: ∠PQR = 55° এবং PQ = PR ∴ PRQ = 55°
আবার, LRN = 90° ∴ NRP = 90° – PRQ = 90° – 55° = 35°

১৭৩. P = {x: x, 12 এর গুণনীয়কসমূহ) এবং Q = {x: x, 3 এর গুণিতক এবং x ≠ 12} হলে, P – Q কত?

(ক) {1, 2, 4}
(খ) {1, 3, 4}
(গ) {1, 3, 6}
(ঘ) {1, 2, 6}

উত্তর: (ক) {1, 2, 4}

সমাধান: P-Q = { 2,3,4,6,12 } – { 3,6,9,12 } = { 1,2,4 } নির্ণয় সেট { 1,2,4 }

১৭৪. cos (nπ/2) অনুক্রমটির চতুর্থ পদ কোনটি?

(ক) -1
(খ) 1
(গ) 1/2
(ঘ) 0

উত্তর: (খ) 1

সমাধান: Cos (nπ/2) 4th Term= Cos (4π/2)=cos 360º=1

১৭৫. ৬ জন খেলােয়াড়কে সমান সংখ্যক দুইটি দলে কত ভাবে বিভক্ত করা যায়?

(ক) ১০
(খ) ২০
(গ) ৬০
(ঘ) ১২০

উত্তর: (খ) ২০

সমাধান: 6C3 =20

40th BCS Preliminary Question Full Solution: Mental Ability 15

১৭৬. শুদ্ধ বানান কোনটি?

(ক) অধােগতি
(খ) অধ:গতি
(গ) অধগতি
(ঘ) অধো:গতি

উত্তর: (ক) অধােগতি

ব্যাখ্যা: অধোগতি- [বিশেষ্য পদ] অধঃপতন, নিম্নেগতি; হ্রাস, অবনতি; দুর্দশা, নরকপ্রাপ্তি (পরজন্মে) হীন-যোনি-জাত।[অধঃ+গতি, গমন], অধোগমন।

১৭৭. সঠিক বানান কোনটি?

(ক) Indwelling
(খ) Indwling
(গ) Indweling
(ঘ) Induelling

উত্তর: (ক) Indwelling

১৭৮. বাংলা ব্যঞ্জনবর্ণমালায় ‘ম’ অক্ষরটির পূর্বের পঞ্চম অক্ষরটি কী?

(ক) ধ
(খ) ন
(গ) প
(ঘ) ল

উত্তর: (খ) ন

ব্যাখ্যা: ত থ দ ধ প ফ ব ভ ম বাংলা ‘ব্যঞ্জনবর্ণ’-মালায় ‘ম’ অক্ষরটির পূর্বের পঞ্চম অক্ষরটি ‘ন’।

১৭৯. যদি ABC = ZYX হয়, তবে GIVV = ?

(ক) TERE
(খ) TEER
(গ) TREE
(ঘ) FREE

উত্তর: (গ) TREE

ব্যাখ্যা: যদি ABC=ZYX হয়, তবে GIVV = TREE.

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১৮০. ‘UNICEF’ এর আয়নায় প্রতিবিম্ব কোনটি হবে?

উত্তর: (খ)

১৮১. রাস্তা সমান করার রােলার সরাবার জন্য সহজ হবে, যদি রােলারকে –

(ক) ঠেলে নিয়ে যাওয়া হয়
(খ) টেনে নিয়ে যাওয়া হয়
(গ) তুলে নিয়ে যাওয়া হয়
(ঘ) সমান সহজ হয়

উত্তর: (খ) টেনে নিয়ে যাওয়া হয়

ব্যাখ্যা: রাস্তা সমান করার রোলার সরাবার জন্য সহজ হবে, যদি রোলারকে- টেনে নিয়ে যাওয়া হয়।

১৮২. .১×.০১ × .০০১=?

(ক) ১.০০০১
(খ) .১০০০১
(গ) .০০০০১
(ঘ) .০০০০০১

উত্তর: (ঘ) .০০০০০১

ব্যাখ্যা: ০.১ x০.০১x ০.০০১= ০.০০০০০১

১৮৩. যদি চ × G= 82 হয় তবে J × ট = ?

(ক) ১২০
(খ) ৯২
(গ) ১১৫
(ঘ) ১১০

উত্তর: (ঘ) ১১০

40th BCS question solution

উত্তর:(ক)

40th BCS Preliminary Question Full Solution

40th BCS question solution

উত্তর: (খ) 7/G

40th BCS question solution

উত্তর: (ঘ)

১৮৭. কোন শব্দগুচ্ছ শুদ্ধ?

(ক) আয়ত্তাধীন, অহােরাত্রি, অদ্যপি
(খ) গড্ডালিকা, চিন্ময়, কল্যান
(গ) গৃহস্ত, গণনা, ইদানিং
(ঘ) আবশ্যক, মিথস্ক্রিয়া, গীতালি

উত্তর: (ঘ) আবশ্যক, মিথস্ক্রিয়া, গীতালি

ব্যাখ্যা: আবশ্যক, মিথস্ক্রিয়া, গীতালী শব্দগুচ্ছ শুদ্ধ।

১৮৮. ভারসাম্য রক্ষা করতে নির্দেশিত স্থানে কত কেজি ওজন রাখতে হবে?

40th BCS question solution

(ক) ১২০
(খ) ১৪০
(গ) ১৬০
(ঘ) ৮০

উত্তর: (খ) ১৪০

১৮৯. একজন ব্যক্তি ভ্রমণে ৪ মাইল উত্তরে, ১২ মাইল পূর্বে, তারপর আবার ১২ মাইল উত্তরে যায় । সে শুরুর স্থান থেকে কত মাইল দূরে?

(ক) ১৭
(খ) ২৮
(গ) ২১
(ঘ) ২০

উত্তর: (ঘ) ২০

১৯০. ঢাকা থেকে হংকং হয়ে প্লেন নিউইয়র্ক যাওয়ার সময় দিনের সময় কালকে অপেক্ষাকৃত ছােট মনে হয়, কেন?

(ক) পৃথিবী পশ্চিম দিকে ঘুরছে বলে
(খ) পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘুরছে বলে
(গ) এক্ষেত্রে এসব ঘূর্ণনের কোন প্রভাব নেই
(ঘ) অন্য কোন কারণ আছে

উত্তর: (খ) পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘুরছে বলে

40th BCS Preliminary Question Full Solution: Ethics, Values and Good governance 10

১৯১. বাংলাদেশ নব-নৈতিকতার প্রবর্তক হলেন-

(ক) মোহাম্মদ বরকতুল্রা
(খ) জি. সি. দেব
(গ) আরজ আলী মাতুব্বর
(ঘ) আবদুল মতীন

উত্তর: (গ) আরজ আলী মাতুব্বর

ব্যাখ্যা: আনুষ্ঠানিক উচ্চশিক্ষাবিহীন স্বশিক্ষিত একজন মননশীল লেখক ও যুক্তিবাদী দার্শনিক আরজ আলী মাতুব্বর বাংলাদেশের সমাজে জেঁকে বসা ধর্মীয় গোঁড়ামি ও অন্ধ কুসংস্কারের ভিত্তিতে গড়ে ওঠা নৈতিক আদর্শকে কুঠারাঘাত করে, তার স্হলে বস্তুবাদী দর্শন ও বিজ্ঞানের মাধ্যমে সত্য আবিষ্কার করে সত্য, ন্যায় ও বিজ্ঞানের যথাযথ নীতি পদ্ধতিভিত্তিক নব নৈতিক আদর্শের সমাজের কথা চিন্তা করেছেন৷

১৯২. ‘আমরা যে সমাজেই বসবাস করি না কেন, আমরা সকলেই ভালাে নাগরিক হওয়ার প্রত্যাশা করি’। এটি –

(ক) নৈতিক অনুশাসন
(খ) রাজনৈতিক ও সামাজিক অনুশাসন
(গ) আইনের শাসন
(ঘ) আইনের অধ্যাদেশ

উত্তর: (খ) রাজনৈতিক ও সামাজিক অনুশাসন

ব্যাখ্যা: নৈতিকতা একটি সামাজিক ব্যাপার।যে সমাজের বাইরে বাস করে তার কোনো নৈতিকতার প্রয়োজন নেই । নৈতিক অনুশাসন মানুষকে শিক্ষা দেয় মিথ্যা বলা ভালো না, চুরি করা খারাপ কাজ ইত্যাদি। নৈতিক অনুশাসন মূলত স্বতঃসিদ্ধ ও সমাজিক ভাবে প্রতিষ্ঠিত নীতিবাক্য।

১৯৩. সভ্য সমাজের মানদণ্ড হল-

(ক) গণতন্ত্র
(খ) বিচার ব্যবস্থা
(গ) সংবিধান
(ঘ) আইনের শাসন

উত্তর: (ঘ) আইনের শাসন

ব্যাখ্যা: সভ্য সমাজের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি সমাজে বাস্তবায়িত হয় আইনের শাসনের  মাধ্যমে। যথার্থ আইনের শাসন গণতান্ত্রিক সরকারের ভিত্তি হিসেবে কাজ করে৷

১৯৪. বিপরীত বৈষম্য’-এর নীতিটি প্রয়ােগ করা হয় –

(ক) নারীদের ক্ষেত্রে
(খ) সংখ্যালঘুদের ক্ষেত্রে
(গ) প্রতিবন্ধীদের ক্ষেত্রে
(ঘ) পিছিয়ে পড়া জনগােষ্ঠীর ক্ষেত্রে

উত্তর: (ক) নারীদের ক্ষেত্রে

ব্যাখ্যা: বিপরীত বৈষম্য -এর নীতিটি প্রয়োগ করা হয় =নারীদের ক্ষেত্রে ( লিঙ্গবৈষম্য এর কথা হর হামেশায় শোনা যায়)

40th BCS Preliminary Question Full Solution

১৯৫. মূল্যবােধ হলাে –

(ক) মানুষের সঙ্গে মানুষের পারস্পরিক সম্পর্ক নির্ধারণ
(খ) মানুষের আচরণ পরিচালনাকারী নীতি ও মানদণ্ড
(গ) সমাজজীবনে মানুষের সুখী হওয়ার প্রয়ােজনীয় উপাদান
(ঘ) মানুষের প্রাতিষ্ঠানিক কার্যাবলীর দিক নির্দেশনা

উত্তর: (খ) মানুষের আচরণ পরিচালনাকারী নীতি ও মানদণ্ড

ব্যাখ্যা: মূল্যবোধ হলো- মানুষের ইচ্ছার একটি মানদণ্ড। এর আদর্শে  মানুষের আচার ব্যবহার, রীতি-নীতি   নিয়ন্ত্রিত হয়।

১৯৬. জাতিসংঘের অভিমত অনুসারে সুশাসনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো-

(ক) দারিদ্র বিমােচন
(খ) মৌলিক অধিকার রক্ষা
(গ) মৌলিক স্বাধীনতার উন্নয়ন
(ঘ) নারীদের উন্নয়ন ও সুরক্ষা

উত্তর: (গ) মৌলিক স্বাধীনতার উন্নয়ন

ব্যাখ্যা: জাতিসংঘের অভিমত অনুসারে সুশাসনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো  “মৌলিক স্বাধীনতার উন্নয়ন”। জাতিসংঘ  সুশাসনের ৮টি উপাদানের কথা উল্লেখ করেছে।

১৯৭. সুশাসন প্রতিষ্ঠায় নাগরিকের কর্তব্য হলাে –

(ক) সরকার পরিচালনায় সাহায্য করা
(খ) নিজের অধিকার ভােগ করা
(গ) সৎভাবে ব্যবসা-বাণিজ্য করা
(ঘ) নিয়মিত কর প্রদান করা

উত্তর: (ঘ) নিয়মিত কর প্রদান করা

১৯৮. মূল্যবােধের চালিকা শক্তি হলাে –

(ক) উন্নয়ন
(খ) গণতন্ত্র
(গ) সংস্কৃতি
(ঘ) সুশাসন

উত্তর: (গ) সংস্কৃতি

ব্যাখ্যা: মানুষ হিসেবে যে সকল কর্মকান্ড আমরা করে থাকি তা সংস্কৃতি দ্বারাই নিয়ন্ত্রিত ও প্রভাবিত হয়ে থাকে। সংস্কৃতিই যেহেতু মানুষকে তার কাঙ্ক্ষিত আচরণটি শেখায় তাই স্বাভাবিকভাবেই সংস্কৃতি মূল্যবোধের চালিকা শক্তি।

১৯৯. অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠিত হলে –

(ক) দুর্নীতি দূর হয়
(খ) বিনিয়ােগ বৃদ্ধি পায়
(গ) আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়
(ঘ) কোনােটিই নয়

উত্তর: (খ) বিনিয়ােগ বৃদ্ধি পায়

২০০. তথ্য পাওয়া মানুষের কী ধরনের অধিকার?

(ক) রাজনৈতিক
(খ) অর্থনৈতিক
(গ) মৌলিক
(ঘ) সামাজিক

উত্তর: (গ) মৌলিক

40th BCS Preliminary Question Full Solution ছাড়া আরোও পড়ুন-

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

আপনার টাইমলাইনে শেয়ার করতে ফেসবুক আইকনে ক্লিক করুন—