সম্প্রতি আলোচিত আন্তর্জাতিক ইস্যূসমূহ

সাধারণ জ্ঞান
Content Protection by DMCA.com

বিসিএস ও ব্যাংক
সম্প্রতি আলোচিত আন্তর্জাতিক ইস্যূসমূহ

০১. আলোচিত পেগাসাস কেলেঙ্কারিঃ-

√পেগাসাস হলো একটি হ্যাকিং সফটওয়্যার।
√প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানঃ ইসরাইলি সাইবার গোয়েন্দা সংস্থা ও নিরাপত্তা সংস্থা (এনএসও)।
√সম্প্রতি আলোচিত হওয়ার কারণঃ

ইসরায়েল এ ক্ষতিকারক সফটওয়্যারের মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে মানবাধিকারকর্মী, সাংবাদিক, আইনজীবী ও রাজনীতিকসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের ফোনে নজরদারি চালানোর ঘটনা সামনে এসেছে।

√পেগাসাস নামের উৎপত্তিঃ গ্রিক ও ভারত পূরাণে পেগাসাস এর উল্লেখ রয়েছে। যার অর্থ পাখা বিশিষ্ট বা পঙ্খি রাজ ঘোরা।

০২. ফিলিস্তিন-ইসরায়েল যুদ্ধঃ-

১৯৪৮ সাল থেকে সূত্রপাত। বর্তমান সংঘাতের মূল কারণ/ কেন্দ্রবিন্দু আল আকসা মসজিদ,জেরুজালেম শহর/গাজা উপত্যকায় অবৈধ স্থাপনা।

এযুদ্ধের সাথে জড়িত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ঃ ওয়েলিং ওয়াল,বেলফোর ঘোষণা,হামাস,মোসাদ,হাইফা,আইরনডম।
উল্লেখঃ এর আগে আরব ইসরায়েল এর ৪ যুদ্ধ-
১৯৪৮,১৯৫৬,১৯৬৭ ও ১৯৭৩।

০৩. ইয়েমেন-সৌদি আরব যুদ্ধঃ-

২০১৫ সাল থেকে সূত্রপাত।
আরব উপদ্বীপের এযুদ্ধের মূল কারণ ইয়েমেনের সৌদি সমর্থিত হাদি সরকারের পতন ঘটিয়ে ইরান পন্থী হুতি গোষ্ঠীর ক্ষমতা দখল।

হাদি সরকারকে পুনরায় ক্ষমতায় আনতে সৌদি জোট ইয়েমেনে আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছে। অপর পক্ষে হুতিরা ইরানের সমর্থন নিয়ে পাল্টা আক্রমণ করছে।

০৪. চীন- ভারত সীমান্ত যুদ্ধঃ-

১৯৫৯ সালে চীনের শত্রু তিব্বতের ধর্মীয় নেতা ১৪ তম দালাইলামা তেনজিং গিয়াঁতসু ভারতের আশ্রয় ও ১৯৬২ সালে প্রথম লাদাখ অঞ্চল নিয়ে যুদ্ধ। সম্প্রতি গালোয়ান উপত্যকায় স্থাপনা নির্মানের আপত্তির জেরে LAC ( Line of Actual control) বরাবর উত্তেজনা বিরাজ করছে।

√চীনের সীমান্ত বাহিনী- PLA
√ভারতের সীমান্ত বাহিনী – BSF.
√ম্যাকমোহন লাইন,চীন- ভারত সীমান্ত লাইন।

০৫. ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধঃ-

১৯৪৭ সাল থেকে সূত্রপাত। ভূ- স্বর্গ হিসেবে পরিচিত কাশ্মির নিয়ে এদের দ্বন্দ্ব।

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মির জম্মু আর পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত আজাদী কাশ্মির LOC ( Line Of Control) দ্বারা বিভক্ত।
√পাকিস্তানের সীমান্ত বাহিনী- রেঞ্জার্স আর্মি।
√কাশ্মীরের ৪৫% ভারতের (জম্মু),৩৫% পাকিস্তানের(আজাদী) এবং ২০% চীনের(আকসাই) অধীনে রয়েছে।
√ ভারত-চীন ৪টি যুদ্ধ- ১৯৪৭,১৯৬৫,১৯৭১ ও ১৯৯৯।

০৬. সিরিয়ার গৃহযুদ্ধঃ

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর সিরিয়া ফ্রান্সের উপনিবেশে পরিণত হয়। ১৯৪৫ সালে স্বাধীন হওয়ার পর বিভিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে ৮০% সুন্নী প্রধান দেশে ক্ষমতায় আসে মাত্র ১১% আলাবি শিয়া গোষ্ঠী এবং মধ্য প্রাচ্যের এ দেশটি এখন পর্যন্ত সংখ্যালঘু শিয়ারা শাসন করছে।ফলে শিয়া প্রধান ইরানের সাথে দেশটির সরকারের সম্পর্ক অনেক গভীর। এর কারণে মধ্য প্রাচ্যের আরেক মোড়ল সুন্নী প্রধান সৌদি আরবের মাথা ব্যাথা। তাছাড়া ১৯৪৮ সালে প্রতিষ্ঠিত ইসরায়েল রাষ্ট্রের বড় বাধা সিরিয়া।

২০১০ সালের ডিসেম্বরে তিউনিসিয়াতে শুরু হওয়া আরব বসন্তের প্রভাবে ২০১১ সালে সিরিয়ায় সরকার পতনের আন্দোলনের সূত্রপাত হয়। এর সুযোগ নিয়ে আমেরিকা-সৌদি জোট বিদ্রোহীদের সহায়তা এমনকি পরবর্তীতে সরাসরি যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে।

এ সংকট বর্তমানে প্রায় আন্তর্জাতিক যুদ্ধে রূপ নিয়েছে। কারণ, বর্তমান শিয়াপন্থী রাষ্ট্র প্রধান বাসার আল আসাদ এর পক্ষে ইরান,রাশিয়া,চীন ও এর মিত্ররা রয়েছে।

অপর দিকে, সুন্নিপন্থী বিদ্রোহীদের পক্ষে সৌদি আরব, ইসরায়েল, আমেরিকা ও এর মিত্ররা রয়েছে।

০৭. আমেরিকা ও তালেবান যুদ্ধঃ-

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর আমেরিকার টুইনটাওয়ার ধ্বংসের দায় দিয়ে আফগানিস্তানকে আক্রমণ শুরু করে। সে সময় ক্ষমতায় ছিল তালেবান (১৯৯৬-২০০১)। আমেরিকার মূল টার্গেট আল কায়দা প্রধান ওসামা বিন লাদেন ২০১১ সালে পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদে নিহত হলেও ন্যাটো বাহিনী আফগানিস্তানে তালেবানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালিয়ে যায়।

২০২০ সালের ২৯ ফেব্রয়ারি উভয় পক্ষের মধ্যে কাতারের রাজধানী দোহাতে শান্তি চুক্তির ফলশ্রুতিতে ২০২১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর মধ্যে ন্যাটো সৈন্য প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়া হয়। তবে নিদিষ্ট সময়ের আগেই তুরস্ক বাদে আমেরিকাসহ বাকি দেশগুলো সৈন্য প্রত্যাহার করে। বর্তমানে তালেবানরা আফগানিস্তান পুনর্দখলের জন্য লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। প্রায় ৮০% তাদের দখলে রয়েছে।

√বাগরাম কারাগার।
√ ইসলামী বিপ্লব-১৯৭৩।

০৮. উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া যুদ্ধঃ-

১৯৪৮ সাল থেকে সূত্রপাত,তবে মূল যুদ্ধ শুরু হয় ১৯৫০ সাল থেকে ১৯৫৩ সাল পর্যন্ত। এ ঝামেলা এখনো চলছে।

সমাজতান্ত্রিক উত্তর কোরিয়ার পক্ষে চীন,রাশিয়া।
পুঁজিবাদী দক্ষিণ কোরিয়ার পক্ষে আমেরিকা ও তার মিত্ররা।

√কোরিয়া একটি উপদ্বীপ।
√দুই কোরিয়া পৃথক ৩৮° উত্তর অক্ষররেখা দ্বরা।
√উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক শক্তির অধিকারী হয় ২০০৬।
√দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পূর্ব পর্যন্ত কোরিয়া উপদ্বীপ ছিল জাপানের অধিনে।
√দুই কোরিয়ার মধ্যে শান্তি স্থাপনে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম দায়ে জং কর্তৃক সান শাইন পলিসি চালু ১৯৯৮ সালে।

০৯. রাশিয়া ও ইউক্রেন সংকটঃ-

২০১৪ সালে রাশিয়া ইউক্রেনের ক্রিমিয়া উপদ্বীপ দখল করলে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এর কারণে রাশিয়াকে ২০১৪ সালেই জি-৮ থেকে বহিষ্কার করা হয়। বর্তমানে উত্তেজনা বিরাজ করছে। সম্প্রতি ভীষ্মে ঘি ঢেলেছে ব্রিটেনের একটি জাহাজ কৃষ্ণ সাগরে ক্রিমিয়া উপদ্বীপ জলসীমা অতিক্রম করে।

১০. তুরস্ক ও গ্রিসের যুদ্ধের দামা ঢোল। ১৯১৪-১৯১৮ পর্যন্ত প্রথম বিশ্বযুদ্ধে তুরস্ক পরাজিত হলে ১৯২৩ সালে মিত্রপক্ষের সাথে তুরস্কের লুজান চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এর মাধ্যমে তুরস্কের কিছু গুরুত্বপূর্ণ দ্বীপ/ ভূখণ্ড মিত্রপক্ষের গ্রিসের অধিনে যায়। ২০২৩ সালে এ চুক্তির মেয়াদ শেষ, তাই তুরস্ক তার হারানো অংশ ফিরে পেতে, আগেই শক্তির জানান দেওয়া শুরু করলে গ্রিসের সাথে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে।

১১. আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া যুদ্ধঃ-

উভয় ১৯৯১ সালে তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভ করার পর ‘ নাগারনোকারাবাখ’ করিডোর নিয়ে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। আন্তর্জাতিকভাবে এটি আজারবাইজানের ভূখণ্ড হিসেবে স্বীকৃতি পেলেও, এখানে আর্মেনিয়ান খ্রিষ্টানদের বসবাস। তাই ২০২০ সালে এটি ফিরে পেতে আজারবাইজান আর্মেনিয়াকে আক্রমণ করলে যুদ্ধ শুরু হয়ে যায়। তুরস্কের সহায়তায় আজারবাইজান এ যুদ্ধে জয়ী হয়।
এছাড়াও যে আলোচিত বিষয়গুলো দেখে রাখতে পারেনঃ-

√এশিয়ান ন্যাটো হিসেবে পরিচিত কোয়াড।
√ইরান+ ছয় জাতির পারমাণবিক চুক্তি ২০১৫ ও পরবর্তী সংকট।
√দক্ষিণ আফ্রিকার সংঘাত।
√করোনা ভাইরাস ও ভ্যাক্সিন

সম্প্রতি আলোচিত আন্তর্জাতিক ইস্যূসমূহ ছাড়া আরও পড়ুনঃ

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন। আমাদের সাইট থেকে কপি হয়না তাই পোস্টটি শেয়ার করে নিজের টাইমলাইনে রাখতে পারেন।