প্রাচীন যুগে বাংলা : বাংলার প্রাচীন জনপদ

বাংলার প্রাচীন জনপদ
Content Protection by DMCA.com

প্রাচীন যুগে বাংলা : বাংলার প্রাচীন জনপদ

বাংলা নামে একটি অখন্ড দেশের জন্ম একদিনে হয়নি। এর যাত্রা শুরু হয় জনপদগুলোর মধ্য দিয়ে। গৌড়, বঙ্গ, পুন্ড্র, হরিকেল, সমতট, বরেন্দ্র এরকম প্রায় ১৬ টি জনপদের কথা জানা যায়। জনপদগুলোর মধ্যে প্রাচীনতম হলো পুণ্ড্র।

প্রাচীন জনপদঅবস্থান
পুন্ড্র ( সবচেয়ে প্রাচীনতম জনপদ)বৃহত্তর বগুড়া(মহাস্থানগড়), রাজশাহী, রংপুর ও দিনাজপুর অঞ্চল।রাজধানী ছিল পুন্ড্রুনগর, যা বর্তমানে মহাস্থানগড়।
বরেন্দ্ররাজশাহী বিভাগের উত্তর-পশ্চিমাংশ, বগুড়ার পশ্চিমাংশ, রংপুর ও দিনাজপুরের কিছু অংশ।
বঙ্গগঙ্গার দুই প্রধান স্রোতোধারা ভাগীরথী ও পদ্মার মধ্যবর্তী ত্রিভুজাকৃতির ভূ-খণ্ডই বঙ্গ। প্রাচীন গ্রিক ও ল্যাটিন ক্লাসিক্যাল লেখকগণ এই অঞ্চলকেই গঙ্গারিডাই বলে আখ্যা দিয়েছেন। বৃহত্তর ঢাকা, ময়মনসিংহ, কুমিল্লা, ফরিদপুর, বরিশাল ও পটুয়াখালী বঙ্গের অন্তর্গত ছিল।
সমতটবৃহত্তর কুমিল্লা ও বৃহত্তর নোয়াখালী। রাজধানী ছিল বড়কামতা যা বর্তমানে কুমিল্লার দেবীদ্বার থানায় অবস্থিত।
চন্দ্রদ্বীপবরিশাল, পিরোজপুর, পটুয়াখালী, মাদারীপুর, বাগেরহাট, খুলনা ও গোপালগঞ্জ।
গৌড়মালদহ, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, বর্ধমান ও চাপাইনবাবগঞ্জ। রাজধানী ছিল কর্ণসুবর্ণ।
শ্রীহট্টসিলেট অঞ্চল।
হরিকেলপার্বত্য সিলেট, চট্টগ্রাম ও পার্বত্য চট্টগ্রাম। হরিকেল প্রাচীন পূর্ববঙ্গের একটি জনপদ ছিল।
তাম্রলিপিমেদেনীপুর জেলার তমলুকই ছিল তাম্রলিপি।
রাঢ়বর্তমান পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার দক্ষিন অংশ ছিল রাঢ়ের অবস্থান। রাঢ়ের অপর নাম সূক্ষ। রাজধানী কোটি বর্ষ।

 

গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাবলিঃ

    • ঐতরেয় আরণক গ্রন্থে সর্বপ্রথম ‘বঙ্গ’ শব্দের উল্লেখ পাওয়া যায়।
    • মোগল সম্রাট আকবরের সভাকবি আবুল ফজল তাঁর ‘আইন-ই-আকবরি’ গ্রন্থে সর্প্রথম দেশবাচক বাংলা শব্দের ব্যবহার করেন। তিনি ‘বাংলা’ নামের উৎপত্তি সর্ম্পকে দেখান, এদেশের প্রাচীন নাম ‘বঙ্গ’ এর সাথে বাধঁ বা জমরি সীমানা সূচক ‘ আল’ যোগে ‘বাংলা’ শব্দ গঠিত হয়।
    • কলহনের ভারতীয় প্রাচীন ইতিহাস গ্রন্থ ‘রাজতরঙ্গিনী’ গ্রন্থে মৌর্য আমল হতে শুরু করে কাশ্মীরের রাজাদের কাহিনী বর্ণনা করা হয়েছে।
    • পাণিনি গ্রন্থে প্রথম ‘গৌড়’র উল্লেখ পাওয়া যায়।
    • কালিদাসের গ্রন্থে ‘বঙ্গ’ জনপদের উল্লেখ পাওয়া যায়।
    • প্রাচীন শিলালিপিত ‘বিক্রমপুর’ ও ‘নাব্য’ নামে বঙ্গের দুইটি অঞ্চলের উল্লেখ পাওয়া যায়। বতর্মান ফরিদপুর বরিশাল ও পটুয়াখালী নিম্ন জলাভূমি ছিল ‘নাব্যের’ অর্ন্তভুক্ত ।
    • বাকেরগঞ্জ বলতে বরিশাল, বাগেরহাট ও খুলনাকে বুঝায়
    • ইতিহাসের জনক প্রাচীন গ্রীসের হেরাডোটাস।
    • প্রাগৈতিহাসিক যুগ হলো পাথরের যুগ। পাথরের পরবর্তী যুগ ধাতুর যুগ।
    • বিশ্ব সভ্যতার যাত্রা শুরু হয় খিস্ট্রপূর্ব ৫০০০ অব্দে।
    • মৌর্যদের আমল হতে বাংলাকে সাম্রাজ্যভূক্ত করা হয় ও স্বাধীন বাংলা রাজ্যের গোড়াপত্তন হয়।বাংলার প্রথম স্বাধীন নরপতি হলো শশাঙ্ক।
    • বাংলার স্বাধীনতার সূচনা করেন ফখরুদ্দীন মুবারক শাহ।
    • বাংলায় প্রথম নৌবাহিনী গড়ে তোলেন গিয়াসউদ্দিন আযম শাহ।
    • সমটতের রাজধানী ‘বড় কামতা’।

 

প্রাচীন যুগে বাংলা : বাংলার প্রাচীন জনপদ ( প্রশ্নোত্তর)

০১. বাংলার সর্ব প্রাচীন জনপদের নাম কি? [৩৬ বিসিএস, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (ঘ ইউনিট): ২০১৪-১৫]

(ক) পুণ্ড্র
(খ) তাম্রলিপ্ত
(গ) গৌড়
(ঘ) হরিকেল

উত্তরঃ (ক) পুণ্ড্র

০২. বগুড়া প্রাচীন কোন জনপদের অন্তর্ভুক্ত? [জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (প্রত্নতত্ত্ব): ২০১২-১৩]

ক) পুণ্ড্র
খ) বরেন্দ্র
গ) হরিকেল
ঘ) সমতট

উত্তরঃ ক) পুণ্ড্র

০৩. পিরোজপুর জেলা কোন প্রাচীন জনপদের অন্তর্ভুক্ত ছিল?

ক) চন্দ্রদ্বীপ
খ) হরিকেল
গ) বঙ্গ
ঘ) সমতট

উত্তরঃ ক) চন্দ্রদ্বীপ

০৪. কোন নদীটি বঙ্গ জনপদের উত্তরাঞ্চলের সীমানা ছিল? [সমাজসেবা অধিদপ্তরের সহকারী শিক্ষক: ২০১৭]

ক) পদ্মা
খ) মেঘনা
গ) যমুনা
ঘ) সুরমা

উত্তরঃ ক) পদ্মা

০৫. বর্তমান বৃহত্তর ঢাকা জেলা প্রাচীনকালে কোন জনপদের অন্তর্ভুক্ত ছিল? [বাতিলকৃত ২৪তম বিসিএস, বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড সহকারী সচিব: ২০০১৫, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ): ২০০৮-০৯]

ক) সমতট
খ) পুন্ড্র
গ) বঙ্গ
ঘ) হরিকেল

উত্তরঃ গ) বঙ্গ

০৬. প্রাচীনকালে ‘সমতট’ বলতে বাংলাদেশের কোন অংশকে বুঝানো হতো?

ক) বগুড়া ও দিনাজপুর অঞ্চল
খ) কুমিল্লা ও নোয়াখালী অঞ্চল
গ) ঢাকা ও ময়মসিংহ অঞ্চল
ঘ) বৃহওম সিলেট অঞ্চল

উত্তরঃ খ) কুমিল্লা ও নোয়াখালী অঞ্চল

০৭. নোয়াখালী ও  কুমিল্লা প্রাচীন বাংলার কোন জনপদের অন্তর্ভুক্ত ছিল?

ক) সমতট
খ) পুণ্ড্রবর্ধন
গ) বঙ্গ
ঘ) রাঢ়

উত্তরঃ গ) বঙ্গ

০৮. বর্তমান বৃহৎ বরিশাল ও ফরিদপুর এলাকা প্রাচীনকালে কোন জনপদের অন্তর্ভুক্ত ছিল?

ক.সমতট
খ.পুণ্ড্রবর্ধন
গ.বঙ্গ
ঘ.রাঢ়

উত্তরঃ গ.বঙ্গ

০৯. বরেন্দ্র বলতে কোন এলাকাকে বুঝায়?

ক) উত্তরবঙ্গ
খ) পশ্চিমবঙ্গ
গ) উত্তর-পশ্চিমবঙ্গ
ঘ) দক্ষিণ-পূর্ববঙ্গ

উত্তরঃ ক) উত্তরবঙ্গ

১০. রাজশাহীর উত্তরাংশ, বগুড়ার পশ্চিমাংশ, রংপুর ও দিনাজপুরের কিছু অংশ নিয়ে গঠিত-

ক) পলল গঠিত সমভূমি
খ) বরেন্দ্রভূমি
গ) উত্তরবঙ্গ
ঘ) মহাস্থানগড়

উত্তরঃ খ) বরেন্দ্রভূমি

১১. বরেন্দ্রভূমি নামে পরিচিত-

ক) ময়নামতি ও লালমাই পাহাড়
খ) মধুপুর ও ভাওয়াল গড়
গ) সুন্দরবন
ঘ) রাজশাহী বিভাগের উত্তর-পশ্চিমাংশ

উত্তরঃ ঘ) রাজশাহী বিভাগের উত্তর-পশ্চিমাংশ

১২. বাংলাদেশের কোন বিভাগে ‘বরেন্দ্রভূমি’ অবস্থিত?

ক) সিলেট
খ) রাজশাহী
গ) খুলনা
ঘ) বরিশাল

উত্তরঃ খ) রাজশাহী

১৩. বরেন্দ্র বলতে বর্তমান কোন অঞ্চলকে বোঝায়?

ক) দিনাজপুর
খ) পাবনা
গ) রাজশাহী
ঘ) খুলনা

উত্তরঃ গ) রাজশাহী

১৪. প্রাচীন বাংলায় নিম্নের কোন অঞ্চল বাংলাদেশের পূর্বাংশে অবস্থিত ছিল?

ক) হরিকেল
খ) সমতট
গ) বরেন্দ্র
ঘ) রাঢ়

উত্তরঃ ক) হরিকেল

১৫. চট্টগ্রাম অঞ্চলের প্রাচীন নাম –

ক) রাঢ়
খ) বঙ্গ
গ) হরিকেল
ঘ) পুণ্ড্র
ঙ) গৌড়

উত্তরঃ গ) হরিকেল

১৬. প্রাচীন বাংলায় হরিকেল জনপদ অঞ্চলভূক্ত এলাকা-

ক) রাজশাহী
খ) দিনাজপুর
গ) খুলনা
ঘ) চট্টগ্রাম

উত্তরঃ ঘ) চট্টগ্রাম

১৭. সিলেট – প্রাচীন জনপদের অন্তর্গত-

ক) বঙ্গ
খ) পুণ্ড্র
গ) সমতট
ঘ) হরিকেল

উত্তরঃ ঘ) হরিকেল

১৮. হরিকেল জনপদ-
ক) ঢাকার সমার্থক
খ) বগুড়ার সমার্থক
গ) কুমিল্লার সমার্থক
ঘ) সিলেটের সমার্থক

উত্তরঃ ঘ) সিলেটের সমার্থক

১৯. বাংলাদেশের একটি প্রাচীন জনপদের নাম-

ক) রাঢ়
খ) চট্টলা
গ) শ্রীহট্ট
ঘ) কোনটিই

উত্তরঃ ক) রাঢ়

২০. প্রাচীন রাঢ় জনপদ অবস্থিত-

ক) বগুড়া
খ) কুমিল্লা
গ) বর্ধমান
ঘ) বরিশাল

উত্তরঃ গ) বর্ধমান

২১. প্রাচীন গৌড় নগরীর অংশবিশেষ বাংলাদেশের কোন জেলায় অবস্থিত?

ক) কুষ্টিয়া
খ) বগুড়া
গ) কুমিল্লা
ঘ) চাঁপাই নবাবগঞ্জ

উত্তরঃ ঘ) চাঁপাই নবাবগঞ্জ

২২. সর্বপ্রথম বঙ্গ নামের উল্লেখ পাওয়া যায় কোন গ্রন্থে?

ক) রামচরিত
খ) চণ্ডীমঙ্গল
গ) ঐতরেয় আরণ্যক
ঘ) করতোয়া মাহাত্যম

উত্তরঃ গ) ঐতরেয় আরণ্যক

২৩. রজতরঙ্গিনী ইতিহাস গ্রন্থের রচয়িতা কে?

ক) হিরোডোটাস
খ) কলহন
গ) আবুল ফজল
ঘ) জিয়াউদ্দিন

উত্তরঃ খ) কলহন

আরোও পড়ুনঃ প্রাচীন যুগে বাংলা : বাঙালি জাতির উদ্ভব ও বিকাশ

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় প্রশ্ন উত্তর

বাংলা সাহিত্যের নাটক ও প্রহসন সহজে মনে রাখার শর্টকাট রুল

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।