প্রাচীন ভারতে সাম্রাজ্য : গৌড় শাসন

প্রাচীন ভারতে সাম্রাজ্য : গৌড় শাসন
Content Protection by DMCA.com

প্রাচীন ভারতে সাম্রাজ্য : গৌড় শাসন

স্বাধীন বঙ্গ ও গৌড় রাজ্য 

গুপ্তবংশের পতনের পর বাংলায় দুটি স্বাধীন রাজ্যের উদ্ভব হয়। এর একটি ছিল প্রাচীন ‘বঙ্গ রাজ্য’। রাজ্যটির অবস্থান ছিল দক্ষিনপূর্ব বাংলা এবং পশ্চিম বাংলার দক্ষিণাঞ্চল। প্রাচীনকালে রাজারা তামার পাত খোদাই করে বিভিন্ন ঘোষণা বা নির্দেশ দিতেন। এগুলোকে তাম্রশাসন বলা হতো। স্বাধীন বঙ্গ রাজ্য আমলের এরকম ৭টি তাম্রলিপি পাওয়া গেছে।

দ্বিতীয় স্বাধীন রাজ্যের নাম গৌড়। এর অবস্থান ছিল বাংলার পশ্চিম এবং উত্তরাঞ্চল জুড়ে। গুপ্ত রাজাদের অধীনে বড় কোন অঞ্চলের শাসনকর্তাকে বলা হয় ‘মহাসামন্ত’

শশাঙ্ক:
শশাঙ্ক ছিলেন গুপ্তরাজা মহাসেন গুপ্তের একজন মহাসামন্ত। শশাঙ্ক গৌড়ের রাজা হয়েছিলেন ৬০৬ সালের কিছু আগে। তিনি প্রাচীন বাংলা জনপদগুলোকে ‘গৌড়’ নামে একত্রিত করেন। শশাঙ্কের উপাধি ‘রাজাধিরাজ’। তিনি বাংলার প্রথম স্বাধীন ও সার্বভৌম রাজা।শশাঙ্কের রাজধানী কর্ণসুবর্ণে। এটি বর্তমানে মুর্শিদাবাদ জেলায়। শশাঙ্কের অন্য নাম নরেন্দ্রগুপ্ত।

 

পুষ্যভূতি রাজ্য 

গুপ্ত সাম্রাজ্যের পতনের পর উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত অঞ্চলে কতগুলো ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র রাজ্যের উৎপত্তি ঘটে। এদরে মধ্যে বর্তমান পাঞ্জাবের পূর্বাঞ্চলে পুষ্যভূতি রাজ্যের অভ্যুদয় অন্যতম।

হর্ষবর্ধন (৬০৬ – ৬৪৭ খ্রিস্টাব্দ):

হর্ষবর্ধন পুষ্যভূতি বংশের শ্রেষ্ঠ রাজা। তার সময় কৌনজ ছিল এদেশের রাজধানী। তাঁর সময়ের বিখ্যাত সাহিত্যিক হল বানভট্ট । বানভট্টের বিখ্যাত গ্রন্থ হল ‘হর্ষচরিত্র’

  • হিউয়েন সাঙ ছিলেন বিখ্যাত চীনা বৌদ্ধ ভিক্ষুক, পন্ডিত, পর্যটক এবং অনুবাদক। তিনি ৬৩০ সালের কোন এক সময় ভারতবর্ষে আসেন। হর্ষবর্ধনের দরবারে তিনি আট বছর কাটান। মহাস্থবির শীলভদ্র বৌদ্ধ শাস্ত্রের একজন শাস্ত্রজ্ঞ এবং দার্শনিক ছিলেন। তিনি নালন্দা বিহারের অধ্যক্ষ ছিলেন। হিউয়েন সাঙ ২২ বছর ধরে তার কাছ থেকে যাবতীয় শাস্ত্র  অধ্যয়ন করেন। এরপর ‘সিদ্ধি’ নামক গ্রন্থ রচনা করেন।
  • নালন্দা ভারতের বিহার রাজ্যে অবস্থিত একটি প্রাচীন উচ্চ শিক্ষাকেন্দ্র। প্রাচীন নালন্দা মহাবিহার রাজধানী পাটনা থেকে ৫৫ কিমি দক্ষিন-পূর্বে অবস্থিত। এই মহাবিহার বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর একটি। এটি স্থাপিত হয়েছে গুপ্ত সম্রাট শক্রাদিত্যের (অপর নাম কুমার গুপ্ত) সময়। ১১৯৩ সালে তুর্কি সেনাপতি বখতিয়ার খলজী নালন্দা মহাবিহার ধ্বংস করেন। ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ সালে এটি পুনরায় চালু করা হয়।

 

প্রাচীন ভারতে সাম্রাজ্য : স্বাধীন বঙ্গ ও গৌড় রাজ্য (প্রশ্নোত্তর)

১. প্রাচীন বাংলায় কতটি রাজ্য ছিল?

ক) ২টি
খ) ৩টি
গ) ৪টি
ঘ) ৫টি

উত্তরঃ ক) ২টি

২. প্রাচীনকালে এদেশের নাম ছিল-

ক) বাংলাদেশ
খ) বঙ্গ
গ) বাংলা
ঘ) বাঙ্গালা

উত্তরঃ খ) বঙ্গ

৩. প্রাচীন বাংলায় জনপদগুলোকে গৌড় নামে একত্রিত করেন-

ক) রাজা কনিস্ক
খ) বিক্রমাদিত্য
গ) চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য
ঘ) রাজা শশাংক

উত্তরঃ ঘ) রাজা শশাংক

৪. প্রাচীন গৌড় নগরীর অংশবিশেষ বাংলাদেশের কোন জেলায় অবস্থিত?

ক) কুষ্টিয়া
খ) বগুড়া
গ) কুমিল্লা
ঘ) চাঁপাই নবাবগঞ্জ

উত্তরঃ ঘ) চাঁপাই নবাবগঞ্জ

৫. প্রাচীন বাংলার প্রথম গুরুত্বপূর্ণ নরপতি কে?

ক) হর্ষবর্ধন
খ) শশাঙ্ক
গ) গোপাল
ঘ) লক্ষণ সেন

উত্তরঃ খ) শশাঙ্ক

৬. বাংলার প্রথম স্বাধীন ও সার্বভৌম রাজা হলেন-

ক.ধর্মপাল
খ.গোপাল
গ.শশাঙ্ক
ঘ.দ্বিতীয় চন্দ্র গুপ্ত

উত্তরঃ গ.শশাঙ্ক

৭. একসময়ে বাংলা,বিহার ও উড়িষ্যার রাজধানী মুর্শিদাবাদের প্রাক্তন নাম ছিল-

ক) সিনহাবাদ
খ) চন্দ্রদ্বীপ
গ) গৌড়
ঘ) মাকসুদাবাদ

উত্তরঃ গ) গৌড়

৮. শশাঙ্কের রাজধানী ছিল-

ক) কর্ণসুবর্ন
খ) গৌড়
গ) নদীয়া
ঘ) ঢাকা

উত্তরঃ ক) কর্ণসুবর্ন

৯. প্রাচীন বাংলার কোন এলাকা কর্ণসুবর্ন নামে কথিত হতো?

ক) মুর্শিদাবাদ
খ) রাজশাহী
গ) চট্টগ্রাম
ঘ) মেদিনীপুর

উত্তরঃ ক) মুর্শিদাবাদ

১০. শশাঙ্ক প্রথম জীবনে ছিলেন-

ক) কৃষক
খ) সামন্ত
গ) রাজা
ঘ) সম্রাট

উত্তরঃ খ) সামন্ত

১১. হিউয়েন সাং কে ছিলেন?

ক) মঙ্গোলীয় পরিব্রাজক
খ) চীনা ব্যবসায়ী
গ) মঙ্গোলীয় লেখক
ঘ) চীনা পরিব্রাজক

উত্তরঃ ঘ) চীনা পরিব্রাজক

১২. হিউয়েন সাং বাংলায় (ভারতবর্ষে) এসেছিলেন যার আমলে-

ক) সম্রাট অশোক
খ) চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য
গ) শশাঙ্ক
ঘ) হর্ষবর্ধন

উত্তরঃ ঘ) হর্ষবর্ধন

১৩. চীনা পরিব্রাজক হিউয়েন সাঙ-এর দীক্ষাগুরু কে ছিলেন? [৩৫ বিসিএস]

ক) অতীশ দিপঙ্কর
খ) মাহুয়ান
গ) শিলভদ্র
ঘ) মেগাস্থিনিস

উত্তরঃ গ) শিলভদ্র

১৪. মহাস্থবীর শীলভদ্র কোন মহাবিহারের আচার্য ছিলেন? [৩৫ বিসিএস]

ক) আনন্দ বিহার
খ) নালন্দা বিহার
গ) গোসিপো বিহার
ঘ) সোমপুর বিহার

উত্তরঃ খ) নালন্দা বিহার

 

আরোও পড়ুনঃ

প্রাচীন ভারতে সাম্রাজ্য : গুপ্ত যুগ
প্রাচীন ভারতে সাম্রাজ্য : মৌর্য যুগ
প্রাচীন যুগে বাংলা : বাংলার প্রাচীন জনপদ
প্রাচীন যুগে বাংলা : বাঙালি জাতির উদ্ভব ও বিকাশ
বাংলা সাহিত্যের নাটক ও প্রহসন সহজে মনে রাখার শর্টকাট রুল

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।