নতুন বিধিমালায় আসছে ৪০,০০০ শিক্ষক নিয়োগ।

প্রথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ
Content Protection by DMCA.com

সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা ২০১৯ অনুযায়ী শীঘ্রই আসছে প্রাথমিকের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি। এর মাধ্যমে সারাদেশে ২৬,০০০ প্রাক-প্রাথমিক ও ১৪,০০০ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।

যোগ্যতাঃ নারী ও পুরুষ উভয়ের ক্ষেত্রে কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দ্বিতীয় শ্রেনি বা সমমানের সিজিপিএ-সহ স্নাতক বা স্নাতক(সম্মান) বা সমমানের ডিগ্রি।

বয়সসীমাঃ ২১-৩০ বৎসর।

নিয়োগ পরীক্ষাঃ MCQ ও ভাইভা।

তথ্যচিত্রে প্রাথমিক শিক্ষাঃ

  • মোট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ৬৫,৬২০ টি।
  • প্রাথমিক শিক্ষার উন্নয়নে চলমান কর্মসূচিঃ পিইডিপি-৪।
  • প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (পিটিআই)ঃ ৬৮টি।
  • প্রাথমিক শিক্ষাকে জাতীয়করণ করা হয়ঃ ১৯৭৩ সালে।
  • সর্বজনীন প্রাথমিক শিক্ষা প্রবর্তিত হয়ঃ ১৯৮০ সালে।
  • বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা আইন প্রনীত হয়ঃ ১৯৯০ সালে।
  • প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠিত হয়ঃ ১ মার্চ ১৯৮১।
  • প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের প্রধানের পদবিঃ মহাপরিচালক( ডিজি)।
  • বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা প্রবর্তিত হয়ঃ ১ জানুয়ারি ১৯৯২(৬৮ টি উপজেলায়)।
  • বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা সারা দেশে প্রবর্তিত হয়ঃ ১ জানুয়ারি ১৯৯৩।
  • প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকের নিয়োগকর্তাঃ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।
  • প্রাথমিক ও গণশিক্ষা বিভাগ প্রতিষ্ঠিত হয়ঃ ১৯৯২ সালে।
  • প্রাথমিক ও গণশিক্ষা বিভাগ প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে উন্নীত হয়ঃ ২ জানুয়ারি ২০০৩।
  • ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে শিক্ষা ও প্রযুক্তি খাতে মোট বরাদ্দঃ ৮৫,৭৬২ কোটি টাকা।
  • ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে মোট বরাদ্দঃ ২৪,৯৩৭ কোটি টাকা।

তথ্যসূত্রঃ কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স আগস্ট ২০২০।

আরও পড়ুনঃ জবস।

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

আপনার টাইমলাইনে শেয়ার করতে ফেসবুক আইকনে ক্লিক করুন।