প্রকৌশল গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের পদ্ধতি

প্রকৌশল গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের পদ্ধতি
Content Protection by DMCA.com

যেভাবে করবেন প্রকৌশল গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আবেদন তথা প্রকৌশল গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের পদ্ধতি

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) প্রথমবারের মতো গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা নেবে। তিন সরকারি প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট, রুয়েট ও কুয়েট) গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু হয়েছে গত শনিবার (২৪ এপ্রিল) থেকে অনলাইনের মাধ্যমে। ভর্তির ওয়েবসাইটে আগামী ৮ মে বিকেল ৫টা পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

আবেদন করার পদ্ধতিঃ
চুয়েট, কুয়েট ও রুয়েট এর সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে (https://www.admissionckruet.ac.bd/) নির্দেশনা মোতাবেক আবেদন ফরম পূরণ করে নির্ধারিত ফি দিয়ে অনলাইনে সাবমিট করতে হবে। এই আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে ৫ ধাপে। এতে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের ফলসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন তথ্য সঠিকভাবে দিতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষার মানবণ্টনঃ
আবেদনকারীদের ‘ক’ গ্রুপে ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ এবং নগর উন্নয়ন ও পরিকল্পনা বিভাগে ৯০০ টাকা ফি দিয়ে প্রাথমিক আবেদন করতে হবে। আর ‘খ’ গ্রুপে ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ, নগর উন্নয়ন ও পরিকল্পনা এবং স্থাপত্য বিভাগের ১ হাজার টাকা ফি দিয়ে আবেদন করতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষা কবেঃ
৩ হাজার ২০১টি আসনের জন্য যোগ্য আবেদনকারীর মধ্য থেকে উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন ও ইংরেজি বিষয়ের মোট নম্বরের ভিত্তিতে শীর্ষ ৩০ হাজার জনকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়া হবে। আবেদনের যোগ্যতা হিসেবে ২০১৭ অথবা ২০১৮ সালে মাধ্যমিক কিংবা সমমানে সর্বনিম্ন জিপিএ-৪ এবং উচ্চমাধ্যমিকে উচ্চতর গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন ও ইংরেজিতে আলাদা আলাদাভাবে জিপিএ-৫ নিয়ে মোট গ্রেড-২০ থাকতে হবে। ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য শিক্ষার্থীদের তালিকা আগামী ২ জুন প্রকাশ করা হবে।

সাধারণ প্রকৌশল বিভাগসহ এবং নগর ও পরিকল্পনা বিভাগ, অর্থাৎ গ্রুপ ‘ক’-তে এমসিকিউ পদ্ধতিতে ৫০০ নম্বর। প্রকৌশলের পাশাপাশি স্থাপত্য বিভাগ নিয়ে গ্রুপ ‘খ’-তে ৭০০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ১২ জুন। চূড়ান্ত মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে আগামী ৩০ জুন।

আবেদন ফি ও আসনসংখ্যাঃ
গ্রুপ ‘ক’-তে আবেদনের ফি ৯০০ টাকা এবং গ্রুপ ‘খ’-তে ১০০০ টাকা। চুয়েটে আসন ৯০১টি ও সংরক্ষিত ১১টি, কুয়েটে ১ হাজার ৬৫ ও সংরক্ষিত ৫টি এবং রুয়েটে ১ হাজার ২৩৫ ও সংরক্ষিত ৫টি আসনের বিপরীতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

আরোও পড়ুন-

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।