পানিতে দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় ক্ষারক চেনার সহজ উপায়

সাধারন বিজ্ঞান বিসিএস
Content Protection by DMCA.com

বিসিএস ও ব্যাংক প্রস্তুতি
দৈনন্দিন বিজ্ঞান
পানিতে দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় ক্ষারক চেনার সহজ উপায়

কোন ক্ষারকগুলো পানিতে দ্রবীভূত হবে এবং কোনগুলো পানিতে দ্রবীভূত হবেনা তা আমরা বুঝবো কিভাবে? এ সম্পর্কে ধারণা না থাকলে ক্ষারক ও ক্ষার সঠিকভাবে চেনা যাবেনা। তবে নিচের বিষয়গুলো আয়ত্বে রাখলে ক্ষারক ও ক্ষার সম্পর্কে সঠিক ধারণা পাওয়া যাবে।

তথ্যঃ

১. সাধারণত পর্যায় সারণীর গ্রুপ-১ এর ক্ষার ধাতু সমূহের অক্সাইড বা হাইড্রোক্সাইড পানিতে দ্রবণীয় হয়।

২. গ্রুপ-২ এর Ca, Sr, ও Ba এর অক্সাইড বা হাইড্রোক্সাইড পানিতে দ্রবীভূত হয়।

৩. উভধর্মী অক্সাইডগুলো (O²⁻) সাধারণত পানিতে অদ্রবণীয় হয়। এক্ষেত্রে মনে রাখাতে হবে Cu, Zn, Pb, Al, Be এর অক্সাইড উভধর্মী অক্সাইড হয়। আরো মনে রাখতে হবে, দুর্বল তড়িৎ ধনাত্বক ধাতুর অক্সাইড গুলো উভধর্মী হয়।

উভধর্মী অক্সাইড গুলো হলো: Al₂O₃, ZnO, PbO, CuO এ অক্সাইড গুলো শুধু ক্ষারক হিসেবে ব্যবহার হয়।

৪. দুর্বল তড়িৎ ধনাত্বক ধাতুর হাইড্রোক্সাইড সমূহ পানিতে অদ্রবনীয়।

যেমনঃ Al(OH)₃, Fe(OH)₃ প্রভৃতি যৌগ পানিতে অদ্রবণীয় তাই এর শুধু ক্ষারক হবে।

মনে রাখা ভালোঃ 

  • উভধর্মী অক্সাইডগুলো একই সঙ্গে দুর্বল এসিড ও দুর্বল ক্ষারক হিসেবে আচরণ করে,  এজন্য এদের উভধর্মী অক্সাইড বলা হয়।
  • যে সব ধাতু তাদের বাইরের কক্ষপথের ২টি বা ৩টি ইলেকট্রন ত্যাগ করতে পারে সে সকল ধাতু  দুর্বল তড়িৎ ধনাত্বক ধাতু হিসেবে আচরণ করে। কারণ ২ বা ৩টি ইলেকট্রন ত্যাগ করতে একটি বেশি শক্তির প্রয়োজন হয়।

পানিতে দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় ক্ষারক চেনার সহজ উপায় ছাড়া আরও পড়ুনঃ

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন। আপডেট পেতে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেল যোগ দিতে পারেন। আমাদের সাইট থেকে কপি হয়না তাই পোস্টটি শেয়ার করে নিজের টাইমলাইনে রাখতে পারেন অথবা পিডিএফ আইকনে ক্লিক করে ডাউনলোড ও করে নিতে পারেন।