ইতিহাসে আলোচিত সময়গুলোর বাংলা ও ইংরেজি তারিখ

ইতিহাসে আলোচিত সময়গুলোর বাংলা ও ইংরেজি তারিখ
Content Protection by DMCA.com

ইতিহাসে আলোচিত সময়গুলোর বাংলা ও ইংরেজি তারিখ

বিভিন্ন চাকরির পরিক্ষায় ইতিহাসে আলোচিত সময়গুলোর বাংলা ও ইংরেজি তারিখ আসতে দেখা যায়। হয়তো কোনটা জানা থাকে কোনটা থাকেনা। তাই আজকে আমি পরিক্ষায় আসতে পারে এমন সম্ভাব্য কিছু ইতিহাসে আলোচিত সময়ের পরিচিতিসহ বাংলা ও ইংরেজি তারিখ উল্লেখ কারার চেষ্টা করেছি। আরোও হেল্পফুল আলোচনা পেতে আমাদের সাথে কানেক্ট থাকুন। ধন্যবাদ।

১. ছিয়াত্তরের মন্বন্তরঃ ছিয়াত্তরের মন্বন্তর ভারতের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াভহ দুর্ভিক্ষ নামে পরিচিত। ১১৭৬ বঙ্গাব্দে এটি হয়েছিলবলে একে ‘ছিয়াত্তরের মন্বন্তর’ বলা হয়। এতে প্রায় ১ কোটি মানুষ মারা যায়।
ইংরেজি: ১৭৭০ সালে
বাংলা: ১১৭৬ সনে

 

২. পঞ্চাশের মন্বন্তরঃ ১৯৪৩ সালের দুর্ভিক্ষের সময় তৎকালীন ভারতবর্ষে লাখ লাখ মানুষ না খেয়ে মারা যান। ১৩৫০ বঙ্গাব্দে এই দুর্ভিক্ষ হয়েছিল বলে একে ‘পঞ্চাশের মন্বন্তর’ বলা হয়। এই করুণ পরিণতির জন্য তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিলকে সরাসরি দায়ী করা হয়েছে ।
ইংরেজি: ১৯৪৩ সালে
বাংলা: ১৩৫০ সনে

 

৩. চর্যাপদের আবিষ্কারঃ প্রাচীন যুগে বাংলা ভাষায় রচিত সাহিত্যের একমাত্র ও আদিতম নিদর্শন হল চর্যাপদ। ১৯০৭ খ্রীষ্টাব্দে হরপ্রসাদ শাস্ত্রী মহাশয় নেপালের রাজদরবার থেকে চর্যাপদের পুথি আবিষ্কার করেন।
ইংরেজি: ১৯০৭ সালে
বাংলা: ১৩১৪ বঙ্গাব্দ

 

৪. শ্রীকৃষ্ণকীর্তন আবিষ্কারঃ বসন্তরঞ্জন রায় বিদ্বদ্বল্লভ ১৯০৯ সালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া জেলার কাকিল্যা গ্রামে শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্যের পুঁথিটি খুঁজে পান।
ইংরেজি ১৯০৯ সালে
বাংলা ১৩১৬ বঙ্গাব্দ

 

 

৫. চর্যাপদের ও শ্রীকৃষ্ণকীর্তনের প্রকাশঃ হরপ্রসাদ শাস্ত্রী মহাশয় ১৯১৬ খ্রীষ্টাব্দে বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষৎ থেকে ‘হাজার বছরের পুরাণ বাঙ্গালা ভাষায় বৌদ্ধগান ও দোহা’ নাম দিয়ে চর্যাপদের পুথিগুলি প্রকাশ করেন।
শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্যটিও ১৯১৬ সালে পশ্চিমবঙ্গের বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষৎ থেকে প্রকাশিত হয়।
ইংরেজি ১৯১৬ সালে
বাংলা ১৩২৩ বঙ্গাব্দ

 

৬. ভাষা আন্দোলনঃ বৃহস্পতিবার
মায়ের ভাষা বাংলা রক্ষার জন্য ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি রাজপথে আন্দোলনে নামে বাংলার দামাল ছেলেরা। পাকিস্তানি বাহিনীর গুলিতে প্রাণ হারান সালাম-বরকত-রফিক-শফিক-জব্বার আরও কত নাম না-জানা কত শহীদ।
ইংরেজি ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি
বাংলা ১৩৫৮ সালের ৮ ফাল্গুন

 

৭. স্বাধীনতা ঘোষণাঃ শুক্রবার
২৫ মার্চ দিবাগত রাত, তথা, ২৬ মার্চ ১৯৭১ এর প্রথম প্রহরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। এ ঘোষণাটি ইপিআর-এর নিকট পৌছানো হয় এবং তা ইপিআর বেতারের মাধ্যমে সারাদেশে প্রচার করা হয়।
ইংরেজি: ২৬ মার্চ ১৯৭১ সালে
বাংলা: ১২ চৈত্র ১৩৭৭ বঙ্গাব্দ

 

৮. বিজয় দিবসঃ বৃহস্পতিবার
১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর দখলদার পাকিস্তানি বাহিনীকে পরাস্ত করে বিজয় অর্জন করে বাংলাদেশ।
ইংরেজি: ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭১ সালে
বাংলা: ২রা পৌষ ১৩৭৮ বঙ্গাব্দ

 

৯. শোক দিবসঃ ১৫ আগস্ট, বাংলাদেশের জাতীয় শোক দিবস।  ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরের নিজ বাসায় সেনাবাহিনীর কতিপয় বিপথগামী সেনাসদস্যের হাতে স্বপরিবারে নিহত হন ৷
ইংরেজি: ১৫ আগস্ট ১৯৭৫ সালে
বাংলা: ১৩৮২ বঙ্গাব্দ

 

১০. স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসঃ সোমবার,
দীর্ঘ সাড়ে ৯ মাস পাকিস্তানের কারাগারে বন্দি থাকার পর ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশে ফিরে আসেন বঙ্গবন্ধু।
ইংরেজি: ১০ জানুয়ারি ১৯৭২ সালে
বাংলা: ২৭ পৌষ ১৩৭৮ বঙ্গাব্দ

 

১১. ঐতিহাসিক ভাষণঃ ১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দের ৭ই মার্চ ঢাকার রমনায় অবস্থিত রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) অনুষ্ঠিত জনসভায় শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক প্রদত্ত এক ঐতিহাসিক ভাষণ। ২০১৭ সালের ৩০ শে অক্টোবর ইউনেস্কো এই ভাষণকে ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।
ইংরেজি: ৭ মার্চ ১৯৭১ সালে
বাংলা: ২৩ ফাল্গুন ১৩৭৭ বঙ্গাব্দ

 

১২. বঙ্গবন্ধুর জন্মঃ বুধবার
শেখ মুজিবুর রহমান ১৯২০ সালের ১৭ই মার্চ তৎকালীন ভারতীয় উপমহাদেশের বঙ্গ প্রদেশের অন্তর্ভুক্ত ফরিদপুর জেলার গোপালগঞ্জ মহকুমার পাটগাতি ইউনিয়নের টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।
ইংরেজি: ১৭ মার্চ ১৯২০ সালে
বাংলা: ৪ চৈত্র ১৩২৬ বঙ্গাব্দ

 

১৩. আসাদ দিবসঃ সোমবার
১৯৬৯ সালের ২০ জানুয়ারি পাকিস্তানি স্বৈরশাসক আইয়ুব খান সরকারের বিরুদ্ধে এ দেশের ছাত্রসমাজের ১১ দফা কর্মসূচির মিছিলে নেতৃত্ব দিতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে জীবন দেন ছাত্রনেতা আসাদুজ্জামান। আসাদ শহীদ হওয়ার পর তিন দিনের শোক পালন শেষে, ওই বছরের ২৪ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের ছয় দফা ও ছাত্রদের ১১ দফার ভিত্তিতে সর্বস্তরের মানুষের বাঁধভাঙা জোয়ার নামে ঢাকাসহ সারা বাংলার রাজপথে। সংঘটিত হয় উনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থান। পতন ঘটে আইয়ুব খানের। ২৪ জানুয়ারি ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস পালিত হয়।
ইংরেজি: ২০ জানুয়ারি ১৯৬৯ সালে
বাংলা: ৭ মাঘ ১৩৭৫ বঙ্গাব্দ

 

১৪. বঙ্গবন্ধু উপাধিঃ রবিবার
কেন্দ্রীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ ১৯৬৯ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি শেখ মুজিবের সম্মানে ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) এক সভার আয়োজন করে। লাখো জনতার এই সম্মেলনে শেখ মুজিবকে ‘বঙ্গবন্ধু’ উপাধি দেওয়া হয়। উপাধি ঘোষণা দিয়েছিলেন তোফায়েল আহমেদ।
ইংরেজি: ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ সালে
বাংলা: ১১ ফাল্গুন ১৩৭৫ বঙ্গাব্দ

 

১৫. প্রথম পতাকা উত্তোলনঃ মঙ্গলবার
১৯৭১ সালের ২রা মার্চে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেছিলেন ছাত্র নেতা আ.স.ম. আব্দুর রব।
ইংরেজি: ০২ মার্চ ১৯৭১ সালে
বাংলা: ১৮ ফাল্গুন ১৩৭৭ বঙ্গাব্দ

 

১৬. জাতির জনক উপাধিঃ বুধবার
১৯৭১ সালের ৩ মার্চ, আ. স. ম. আবদুর রব বঙ্গবন্ধুকে ’জাতির জনক’ উপাধি দিয়েছিল।
ইংরেজি: ০৩ মার্চ ১৯৭১ সালে
বাংলা: ১৯ ফাল্গুন ১৩৭৭ বঙ্গাব্দ

 

১৭. রবীন্দ্রনাথের জন্মঃ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কলকাতার জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।
ইংরেজি: ০৭মে ১৮৬১ সালে
বাংলা: ২৫ বৈশাখ ১২৬৮ বঙ্গাব্দ

 

১৮. রবীন্দ্রনাথের মৃত্যুঃ জোড়াসাঁকোর বাসভবনেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
ইংরেজি: ০৭ আগস্ট ১৯৪১ সালে
বাংলা: ২২ শ্রাবণ ১৩৪৮ বঙ্গাব্দ

 

১৯. পলাশীর যুদ্ধঃ বৃহস্পতিবার
বাংলার শেষ স্বাধীন নবাব সিরাজউদ্দৌলার সাথে ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির পলাশী নামক স্থানে যে যুদ্ধ সংঘটিত হয়েছিল তাই পলাশীর যুদ্ধ নামে পরিচিত।
ইংরেজি: ২৩ জুন ১৭৫৭ সালে
বাংলা: ৯ আষাঢ় ১১৬৪ বঙ্গাব্দ

 

২০. আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠাঃ বৃহস্পতিবার
১৯৪৯ সালের ২৩শে জুন বিকালে ঢাকার কেএম দাস লেনের রোজ গার্ডেনে গঠিত হয় নতুন একটি রাজনৈতিক দল পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ। পরবর্তীতে সেই দলের নাম পরিবর্তন হয়ে হয় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।
ইংরেজি: ২৩ জুন ১৯৪৯ সালে
বাংলা: ৯ আষাঢ় ১৩৫৬ বঙ্গাব্দ

 

আরও পড়ুনঃ

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।