ইংরেজি সাহিত্য Old English Period (450-1066) : A to Z

ইংরেজি সাহিত্যের যুগবিভাগ টেকনিকে মনে রাখুন
Content Protection by DMCA.com

ইংরেজি সাহিত্য Old English Period (450-1066) : A to Z

বিসিএস প্রস্তুতিতে ইংরেজি সাহিত্য নিয়ে কিছু কথা না বললেই নয়। বিসিএস প্রিলির এই অংশটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কেবল প্রিলিতেই ১৫ মার্ক থাকে মোটামুটি । রিটেনে ভূমিকা রাখবে কিছু কোটেশন এর কাজে। তাই এই অংশে যতটা পারা যায় কম পড়ে ভাল মার্ক তুলে নিতে হবে, এই প্লান ছাড়া অন্য কিছু মাথায় না রাখাটাই ভাল। তাই আপনি চাইলেই এ অংশে কিভাবে ভাল মার্ক তুলে নিতে পারেন, তাই থাকছে আমাদের ধারাবাহিক আলোচনায়। আজ থাকছে Anglo Saxon Period এর গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে A to Z আলোচনা।

Anglo Saxon Period (450-1066)

  1. Anglo Saxon Period কে The Old English Period বলে।
  2. ৫ম শতাব্দীতে Jute, Angles এবং Saxons রা জার্মানি থেকে ইংল্যান্ডে এসে ইংলিশ উপজাতিদের পরাজিত করেন। সেই সময় থেকে শুরু হয় Anglo-Saxon যুগের।
  3. আলফ্রেড দ্যা গ্রেট ৮৭১ থেকে ৯০১ সাল পর্যন্ত শিক্ষা ও সাহিত্যে বিদ্যোৎসাহী ছিলেন এবং তিনি Anglo Saxon Chronicle সংরক্ষণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন।
  4. Anglo Saxon যুগের দুজন কবি হচ্ছেন Caedmon এবং Cynewulf.
  5. Anglo Saxon poetry was influenced by Christianity.
  6. Anglo Saxon people were mainly warriors, hunters and travellers.

Anglo Saxon সাহিত্যকর্ম:

Beowulf (বিউলফ):
1. Beowulf was one of the first long poems in English.
2. It was written anonymously.
3. It consists of 3200 lines of two parts in the style of an epic.
4. The first part deals with hero’s fight with Grendel and the second part deals with hero’s fight with Dragon.

  • বিউলফ কে The Earliest Epic in England বলা হয়। এটি ৬৫০ সালের দিকে রচিত। (বাংলা সাহিত্যে প্রথম এবং সার্থক মহাকাব্য মাইকেল মধুসূদনের ‘মেঘনাদ বধ-১৮৬১ সালে)।
  • এই Herioc Epic (বিউলফ) টিতে ৩১৮২ টি লাইন ছিল। মহাকাব্যের নায়কের নাম বিউলফ।
  • Beowulf ছাড়াও The Wanderer, The Seafarer, The Husband’s Message, The Wife’s Lament, Traveler প্রভৃতি নামে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কবিতা পাওয়া যায়। এগুলোর সুনির্দিষ্ট কোন লেখকের নাম পাওয়া যায়না।

Known poets (জ্ঞাত কবি): Caedmon (কীডমন) এবং Cynewulf (কেনেউলফ) হলো এ যুগের উল্লেখযোগ্য কবি।

Caedmon (ক্যাডমন) (657-680)

Caedmon সপ্তম শতকের কবি। ক্যাডমনের জন্ম ৬৩৭ সালে এবং মৃত্যু ৭৩৫ সালে। তিনি ছিলেন একজন মেষপালক এবং Whitby (হুইটবী) নামক এক স্থানে বসবাস করতেন। তিনি লেখা-পড়াও জানতেন না। তাকে ইংরেজি সাহিত্যের আদি কবি (Earliest poet/first known poet in English Literature) বলা হয় (বাংলা সাহিত্যের আদি কবি লুইপা)। তাকে Father of English Sacred Song-ও বলা হয়। ক্যাডমন যা কিছু রচনা করেন তা এংলো-স্যাকসন ভাষাতেই রচনা করেন। এজন্য তাকে Anglo Saxon যুগের মিল্টন বলা হয়।

  • তাঁর রচিত কাব্য Hymn of Caedmon (হিম অব ক্যাডমন) এবং Paraphrase (প্যারাফ্রেজ)
  • তাঁর গ্রন্থের মধ্যে সবচেয়ে প্রসিদ্ধ হল- Historia ecclesiastica gentis Anglorum.
  • এছাড়াও তিনি লিখেছেন- i. Genesis, ii. Exodus, iii. Judith.

 

Cynewulf (কেনেউলফ) (770-840)

Juliana তার একটি বিখ্যাত কবিতা।কেউ কেউ মনে করেন যে, Lindisfarne (লিন্ডিসফার্ন) নামক স্থানে তিনি বিশফ ছিলেন।

  • He is considered ‘the Author of Christ’.
  • তাঁর উল্লেখযোগ্য সাহিত্যকর্ম— i. Christ ii. Juliana iii. Elene iv. The Fates of the Apostles. (যীশু খ্রীষ্টের শিষ্যদের নিয়তি)।

আপনি পড়ছেন- ইংরেজি সাহিত্য Old English Period (450-1066) : A to Z

Prose or History-based Writing (গদ্য বা ইতিহাস-ভিত্তিক রচনা):
ভাষার দিক থেকে anglo-Saxon গদ্য আধুনিক ইংরেজী ভাষার সমগোত্রীয় বলে প্রতীয়মান হয়। সময়ের গদ্য বা ইতিহাস-ভিত্তিক রচনাবলী বেশ সমৃদ্ধই বলা যায়। Adam Bede (এডাম বেডে), Alfric (এলফ্রিক), Wulfstan (উলস্টান) এবং King Alfred, The Great (রাজা আলফ্রেন্ড, দ্য গ্রেট) এসময়ের উল্লেখযোগ্য গদ্য রচয়িতা।

Saint Venerable Bede (673-735):
1) He is called “The Father of English Learning” and he is also known as “First historian in English Language.”
2) He has written ‘The Ecclesiastical History of the English’ (ইংরেজদের ধর্মীয় ইতিহাস) আর এই কারণে তিনি। “Doctor of the church” উপাধি পেয়েছেন।

Afric (এলফ্রিক):
এলফিককে একজন মহান গদ্য লেখক বলা হয়। তিনি গদ্যে নতুন ধারার প্রবর্তন করেন। তিনি রচনা করেছেন Catholic Homilies (ক্যাথলিক ধর্মোপদেশ)।

Wulfstan (উলফস্টান):
তিনি একাদশ শতাব্দীর শুরুতে ইয়র্কের Arch-Bishop (প্রধান বিশপ) ছিলেন। তাঁর রচনার ভাষা এলফিকের মতো ছিল না। গীর্জায় তিনি অনেক Sermon বা ধর্মোপদেশ প্রদান করেন। এগুলো তৎকালীন ইংরেজী গদ্যের উৎকৃষ্ট নমুনা।

King Alfred the Great (849-899):
1. King Alfred, The Great was a great prose-writer.
2. He reigned over England from 871 to 901.
3. He rearranged education and supervised the compilation of The Anglo-Saxon Chronicle (অ্যাংলো-সাক্সন ঘটনাপঞ্জি)। সম্রাট আলফ্রেডের এ বইটা ইতিহাস হিসেবে প্রথম এবং গদ্য হিসেবেও প্রথম।
4. তিনি The Consolation of Philosophy (দর্শনের সান্তনা) নামক আরো একটি গ্রন্থ রচনা করেন।
5. He was sometimes regarded as the “Founder of English Prose”.
6. He was the king of Wassex.

Old English Period (450-1066) : A to Z ছাড়া আরও পড়ুনঃ

William Shakespeare থেকে বেশি আসা প্রশ্ন গুলো।
William Shakespeare এর “TRAGEDY” মনে রাখার টেকনিক
English Literature MCQ Questions & Answers For BCS, BANK & All Competitive Exams.

Part-1[1-105]Part-2[106-210]Part-3[211-315]Part-4[316-420]Part-5[421-525]

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

পুনরায় দেখতে নিজের টাইমলাইনে শেয়ার করে রাখুন-