আজকের Daily Star Editorial অনুবাদ চর্চা: পর্ব-৭১

The Daily Star Editorial অনুবাদ
Content Protection by DMCA.com

আজকের Daily Star Editorial অনুবাদ চর্চা: পর্ব-৭১

বিসিএস ও ব্যাংকের লিখিত পরিক্ষায় অনুবাদ দুইভাবে আসতে পারে— যথাঃ ইংরেজি থেকে বাংলা এবং বাংলা থেকে ইংরেজি। শব্দভাণ্ডার (Vocabulary) সমৃদ্ধ হলে উভয় ক্ষেত্রেই ভালো করা যাবে। আর শব্দভাণ্ডার (Vocabulary) সমৃদ্ধ করতে নিয়মিত The Daily Star Editorial অনুবাদ চর্চার কোন বিকল্প নেই।

আর হ্যাঁ অজানা শব্দগুলোর অর্থসহ অবশ্যই খাতায় নোট করে রাখুন। প্রতিদিন একবার হলেও সেগুলো রিভিশন করার চেষ্টা করুন। দেখবেন একদিন আপনার ভিতর কত শব্দ ভান্ডার তৈরী হয়। আশা করি তখন আর নিজেকে ইরেজিতে দূর্বল মনে হবেনা।
The daily star editorial for BCS written and Bank written.

শিরোনাম:—Rapists of Sylhet’s MC college incident must face justice: সিলেটের এমসি কলেজের ঘটনার ধর্ষকদের বিচারের মুখোমুখি হতে হবে;

Tagline:—Culture of impunity for criminals in BCL must end: ছাত্রলীগের অপরাধীদের দায়মুক্তির সংস্কৃতি শেষ হতে হবে;

Date: 28 September 2020
Translated by– BD Study Corner

এখন অনুবাদ করিঃ-

1. Words are not enough to express our shock and horror at the incident of rape that happened last Friday in the hostel of Sylhet’s MC college. Reportedly, on Friday night, six Bangladesh Chhatra League (BCL) activists forced a married couple visiting the college campus to the hostel and gang-raped the wife while keeping the husband tied with a rope.

অনুবাদঃ সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গত শুক্রবারের ধর্ষণের ঘটনায় আমাদের শোক প্রকাশ করার জন্য ব্যবহৃত শব্দগুলি যথেষ্ট নয়। শুক্রবার রাতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের (ছাত্রলীগ) ছয় কর্মী কলেজ ক্যাম্পাসে এক বিবাহিত দম্পতিকে ছাত্রাবাসে স্বামীকে দড়ি দিয়ে বেঁধে রেখে এবং জোর করে স্ত্রীকে গণধর্ষণ করে।

2. The questions are, how could such a horrible crime happen inside a college hostel? Where were the hostel superintendent and the administration when the incident happened?

অনুবাদঃ প্রশ্নগুলি হচ্ছে, কলেজের একটি ছাত্রাবাসের অভ্যন্তরে কীভাবে এমন ভয়াবহ অপরাধ ঘটতে পারে? ঘটনাটি ঘটলে হোস্টেল সুপারিন্টেন্ডেন্ট এবং প্রশাসন কোথায় ছিলেন?

3. What emboldened the BCL activists to rape the woman without fearing any repercussions? The answers to these questions, sadly, are also very clear. Although all the accused, except for one, are the former students of the college, they, in fact, have been controlling the hostel for years.

অনুবাদঃ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কোন ধরণের ভয়ভীতি ছারা কীভাবে এই মহিলাকে ধর্ষণ করতে সাহস পেয়েছিল? দুঃখজনকভাবে এই প্রশ্নের উত্তরগুলিও খুব পরিষ্কার। যদিও একজন আসামী বাদে সমস্ত আসামি কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থী, তারা আসলে বছরের পর বছর ধরে হোস্টেল নিয়ন্ত্রণ করে আসছে।

4. And the fact that the prime accused Saifur Rahman used to live in a bungalow designated for the hostel superintendent makes it clear that the hostel superintendent remains only in name but has no control over the institution.

অনুবাদঃ এবং প্রধান আসামি সাইফুর রহমান হোস্টেল সুপারিন্টেন্ডেন্টের জন্য মনোনীত একটি বাংলোয় থাকতেন বলে এ বিষয়টি স্পষ্ট করে দেয় যে হোস্টেল সুপারিন্টেন্ডড কেবল নামেই রয়েছেন তবে প্রতিষ্ঠানের কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই।

5. What is the source of power of these BCL men? Reportedly, the accused have backings from influential ruling party leaders. Talking to several present and former BCL activists of the college, our reporter came to know that all the accused are followers of former youth and sports affairs secretary of Sylhet district Awami League.

অনুবাদঃ এসব ছাত্রলীগের শক্তির উৎস কী? খবরে বলা হয়েছে, অভিযুক্তদের প্রভাবশালী ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের সমর্থন রয়েছে। কলেজের একাধিক বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্রলীগ কর্মীদের সাথে কথা বলে আমাদের প্রতিবেদক জানতে পারেন যে সমস্ত আসামি হলেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের প্রাক্তন যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক এর অনুসারী।

6. We are concerned at the way the BCL members have been carrying out all kinds of atrocious activities at educational institutions across the country, including torturing and harassing students, stalking, assaulting and raping women, being involved in extortion, tender grabbing and occupation of hostel, etc., under the shelter of powerful ruling party leaders.

অনুবাদঃ ছাত্রলীগ দাঁরা নির্যাতন ও হয়রানি করা, লাঠিপেটা, লাঞ্ছনা ও ধর্ষণ, চাঁদাবাজিতে জড়িত হওয়া, টেন্ডার দখল ও ছাত্রাবাস দখল করা সহ ছাত্রলীগের সদস্যরা যেভাবে সারাদেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সকল ধরণের নৃশংস কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছে তাতে আমরা উদ্বিগ্ন। এবং তা শক্তিশালী ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের আশ্রয়ে।

7. We have learnt that police have arrested two accused in the case, including the prime suspect Saifur Rahman. We urge them to immediately arrest all the accused in the case and bring them to justice. The college authorities also cannot avoid their responsibility; they should take prompt action against the accused after the committee submits its report. The rapists must face justice no matter how powerful they are.

অনুবাদঃ আমরা জানতে পেরেছি যে মামলায় প্রধান আসামি সাইফুর রহমানসহ দুজন অভিযুক্তকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। আমরা তাদের অনুরোধ করছি যেন তারা এই মামলার সমস্ত আসামিকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে তাদের বিচারের আওতায় নিয়ে আসে। কলেজ কর্তৃপক্ষও তাদের দায় এড়াতে পারে না; কমিটি রিপোর্ট জমা দেওয়ার পরে তাদের আসামির বিরুদ্ধে তাত্ক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। ধর্ষণকারীরা যতই শক্তিশালী হোক না কেন তাকে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।

Click To View the original “The Daily Star” Editorial.

আজকের Daily Star Editorial অনুবাদ চর্চা ছাড়া আরোও পড়ুন-
All Question Taken By Taken By Arts

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজঅফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।